বাড়ি > বায়োস্কোপ > করোনার জেরে ঘরবন্দি দেবের সময় যেভাবে কাটছে
পায়ের ভাঙা আঙুল জোরা লাগানোর প্রচেষ্টায় দেব (সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম)
পায়ের ভাঙা আঙুল জোরা লাগানোর প্রচেষ্টায় দেব (সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম)

করোনার জেরে ঘরবন্দি দেবের সময় যেভাবে কাটছে

  • করোনার প্রকোপে এখন ঘরবন্দি হয়েই কাটছে দেবের সময়। যার সদ্ব্যবহার পুরোদমে করে নিচ্ছেন দেব। গোলন্দাজের শ্যুটিংয়ে ভাঙা আঙুল জোড়া লাগানোর চেষ্টায় অভিনেতা।

গোলন্দাজের শ্যুটিং করতে গিয়ে মাস খানেক আগে পায়ে চোট পেয়েছিলেন দেব। সেখবর হিন্দুস্তান টাইস বাংলার পাঠকদের আগেই জানিয়েছি আমরা। দেবের চোট এতটাই গুরুতর যে বাঁ পায়ের বুড়ো আঙুলে চিড় ধরে, কিন্তু হেয়ারলাইন ফ্যাকচারের ব্যাপার দেব নিজে কিছুই জানাননি। প্রায় দিন চারকে পরে খবরটি সামনে আসে। অবশেষে প্রথমবার দেব নিজের চোট নিয়ে মুখ খুললেন।

করোনার জেরে আপতত ঘরবন্দি দেব। বাড়িতেই কাটছে অভিনেতার যাবতীয় সময়। তাই কোয়ারেন্টাইনে থাকার সুবাদে ভাঙা আঙুল জোড়ার চেষ্টায় দেব। এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের পায়ের ভাঙা আঙুলের ছবি পোস্ট করে দেব লেখেন, আমার কাছ থেকে অনেকেই জানতে চাইছিল যে কেমনভাবে আমি বাড়িতে এই কোয়ারেন্টাইনটা কাটাচ্ছি? এই ভাবে.. অবশেষে গোলন্দাজের সুবাদে আমার ভাঙা আঙুল জোড়ার চেষ্টা করছি। কোয়ারেন্টাইনের কোয়ারেন্টাইনকে ধন্যবাদ যে আমি নিজের জন্য কিছু সময় বার করতে পেরেছি। আশা করি কোনও অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন পড়বে না'।



পরিচালক ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়ের গোলন্দাজে ভারতীয় ফুটবলের জনক নগেন্দ্র প্রসাদ সর্বাধিকারীর চরিত্রে অভিনয় করছেন দেব। ইতিহাস নির্ভর এই বায়োপিকে কোনও খামতি রাখতে চাননি অভিনেতা। তাই নিজের সেরাটা উজার করে দিয়েছেন শ্যুটিংয়ে। ছবির প্রথম পর্বের শ্যুটিংয়ে ফুটবল খেলার দৃশ্য গুলোই ছিল মুখ্য। যেখানে দেবের ফুটবল স্কিল দেখে শ্যুটিং সেটে অনেকেই চমকে গিয়েছেন। হবে নাই বা কেন? এই ছবির জন্য প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক তথা ফুটবল তারকা বাইচুং ভুটিয়ার কাছে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন দেব।

করোনার জেরে পিছিয়ে গিয়েছে গোলন্দাজের দ্বিতীয় পর্বের শ্যুটিং। এপ্রিল মাসে এই ছবির শ্যুটিংয়ের দিন নির্দিষ্ট ছিল। শুধু গোলন্দাজই নয় করোনা সতর্কতার জন্য বাতিল হয়েছে দেবের প্রথম বাংলাদেশি ছবি কম্যান্ডোর থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশ শেডিউলও। এখন দেখার শ্যুটিং পিছানোয় গোলন্দাজের মুক্তির উপর সেটা কী প্রভাব ফেলে!



বন্ধ করুন