বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলাম’, কোরিওগ্রাফার শিব শংকরের প্রয়াণে ভেঙে পড়লেন সোনু সুদ
প্রয়াত শিব শংকর 

‘বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলাম’, কোরিওগ্রাফার শিব শংকরের প্রয়াণে ভেঙে পড়লেন সোনু সুদ

  • ‘সিনেমা আপনাকে মিস করবে স্যার’, শংকর মাস্টারজির মৃত্যুর খবরে মর্মাহত সোনু সুদ। 

চলে গেলে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত কোরিওগ্রাফার শিব শংকর। করোনা কেড়ে নিল তাঁর প্রাণ। বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই হায়দরাবাদের এক হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তেলুগু চলচ্চিত্রের এই প্রবাদপ্রতিম ব্যক্তিত্ব। চলতি মাসের শুরুতেই করোনার শিকার হন তিনি। শিব শংকরের স্ত্রী এবং তাঁদের বড় ছেলে অজয় কৃষ্ণও আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। তাঁদের অবস্থাও বেশ গুরুতর।

দিন কয়েক আগেই বর্ষীয়ান কোরিওগ্রাফারের চিকিত্সার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সাহায্যের আর্তি রেখেছিলেন পরিবার, জানা মাত্রই তাঁর চিকিত্সার ভার নিজের কাঁধে তুলে নেন অভিনেতা, সমাজকর্মী সোনু সুদ। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। রবিবার রাতে কোরিওগ্রাফারের মৃত্যুর খবর জানিয়ে মন খারাপের কথা লেখেন সোনু। টুইটারে তাঁর বার্তা, ‘মনটা ভেঙে গেল শিব শংকর মাস্টারজির চলে যাওয়ার খবরে। আমাদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করেছিলাম ওঁনাকে বাঁচাতে, কিন্তু ভগবান ওঁনার জন্য অন্য কোনও পরিকল্পনা করে রেখেছেন। মাস্টারজিকে সবসময়ই মিস করব। ভগবান ওঁনার পরিবারকে এই শোক সইবার ক্ষমতা দিক। সিনেমা আপনাকে মিস করবে স্যার’। 

বাহুবলী পরিচালক এসএস রাজামৌলীও শোক প্রকাশ করেছেন বর্ষীয়ান কোরিওগ্রাফারের মৃত্যুতে। তিনি লেখেন, ‘খুব খারাপ লাগছে শিব শংকর গুরুর চলে যাওয়ার খবর পেয়ে। মগধিরা ছবিতে ওঁনার সঙ্গে কাজের সুযোগ পাওয়ার অভিজ্ঞতাটা দুর্দান্ত। ওঁনার আত্মার শান্তি কামনা করি। পরিবারের প্রতি সমবেদনা’। 

বেশ কিছু তেলুগু-তামিল ছবিতে অভিনয়ও করেছেন এই কোরিওগ্রাফার। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘শংকর’ এবং 'থানা সেরনধা কোট্টাম'।

 

বন্ধ করুন