বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > করোনা জয়ী হয়ে দীর্ঘ ১৫ দিন পর বাড়ি ফিরলেন ‘বাহামণি’র বাবা, আবেগঘন রণিতা
রণিতা দাস (ছবি সৌজন্য- ফেসবুক)
রণিতা দাস (ছবি সৌজন্য- ফেসবুক)

করোনা জয়ী হয়ে দীর্ঘ ১৫ দিন পর বাড়ি ফিরলেন ‘বাহামণি’র বাবা, আবেগঘন রণিতা

  • দিন কয়েক আগেই সপরিবারে করোনা আক্রান্ত হন রণিতা। 

গত কয়েকদিন ধরেই মন ভালো ছিল না অভিনেত্রী রণিতা দাসের, যাঁকে ‘বাহামণি’ নামেই চেনেন ছোটপর্দার অগণিত দর্শক। করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন অভিনেত্রীর বাবা। স্বাভাবিকভাবেই চিন্তায় ঘুম উড়েছিল অভিনেত্রীর। অবশেষে স্বস্তির খবর রণিতার কাছে। দীর্ঘ ১৫ দিন পর করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন অভিনেত্রীর বাবা। রবিবার ফেসবুকে এই খবর জানিয়েছেন স্বয়ং অভিনেত্রী। দিন কয়েক আগে বাড়ি ফিরেছেন তাঁর মা’ও, তিনিও কোভিড পজিটিভ ছিলেন, বাদ যাননি রণিতাও। 

দিন কয়েক আগে দিন আগে ফেসবুকে এক পোস্টের মাধ্যমে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছিলেন রণিতা।

রণিতা এদিন লেখেন- অবশেষে রাজা তাঁর নিজের রাজত্বে ফিরে এসেছে। আপনাদের সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ প্রার্থনার জন্য, আমার বাপি আজ বাড়ি ফিরল দীর্ঘ ১৫ দিন হাসপাতালে থাকার পর। অনেক ধন্যবাদ'। 

গত ৯ই মে ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে সপরিবারে করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন অভিনেত্রী। তিনি  লিখেছিলেন, ‘আমি,আমার মা ও বাবা কোভিড-১৯ পজিটিভ। বাড়িতে দিদার ও ঠান্ডা লেগেছে,কিন্তু মেডিসিন নিয়ে এখন একটু ভালো আছেন, ঠাকুমার কোনো উপসর্গ নেই,তিনি সুস্থ।কিন্তু কদিন থাকবেন জানি না, ওনার ফুসফুসের কন্ডিশন ভালো নয়,কিন্তু আমাদের আর কিছু করার নেই ’। পরবর্তী সময়ে ঠাকুমার কোভিড রিপোর্টও পজিটিভ আসে। একমাত্র রণিতা ছাড়া বাড়ির সকলেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। 

বাবা ফিরে আসায় উদ্বেগ কাটিয়ে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন রণিতা। চলতি বছর বিধানসভা নির্বাচনের আগেই তৃণমূলে যোগদান করেন অভিনেত্রী, তাঁর দীর্ঘদিনের বয়ফ্রেন্ড সৌপ্তিক। অভিনেত্রীর বরাবরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ হিসাবেই পরিচিত। তৃণমূলে যোগদানের পর রণিতা জানিয়েছিলেন, ‘এতদিন আনঅফিসিয়ালি যুক্ত ছিলাম। ১০ বছরের এই সম্পর্ককে বলা যেতে পারে স্বীকৃতি দেওয়া হল…’। 

বন্ধ করুন