বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > স্নানের দৃশ্যে 'মন্দাকিনী' হতে পারবে? শুনেই পরিচালককে একহাত নিয়েছিলেন টুইঙ্কেল!
'মেলা' ছবির একটি গানের দৃশ্যে টুইঙ্কেল। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)
'মেলা' ছবির একটি গানের দৃশ্যে টুইঙ্কেল। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

স্নানের দৃশ্যে 'মন্দাকিনী' হতে পারবে? শুনেই পরিচালককে একহাত নিয়েছিলেন টুইঙ্কেল!

  • সম্প্রতি, ওয়াহিদের রহমানের সঙ্গে একটি আড্ডা আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি জানিয়েছেন তাঁর সঙ্গে একবার এক পরিচালক অপ্রীতিকর ব্যবহার করেছিল। অবশ্য পাল্টা একহাত নিতে ছাড়েননি টুইঙ্কেলও। 

নব্বইয়ের দশকে বলিপাড়ার হট অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন টুইঙ্কেল খান্না। তবে কোনওদিনই নিজের তারকা তকমাকে সেভাবে পাত্তা দেননি তিনি। বরাবরই নিজের বক্তব্য সুস্পষ্ট আর কাটা কাটা বাক্যে পেশ করে এসেছেন তিনি। কোনও 'সেন্সর' ছাড়াই। এই কারণে বিভিন্ন সময়ে মুশকিলেও পড়তে হয়েছিল তাঁকে। এবার রাখঢাক না করে তেমনই এক ঘটনার কথা নিজেই প্রকাশ্যে জানালেন এই প্রাক্তন বলি-সুন্দরী।

সম্প্রতি, টুইক ইন্ডিয়ার ইউটিউব চ্যানেল আয়োজিত একটি আড্ডা আলোচনা অনুষ্ঠানে ওয়াহিদা রহমানের সঙ্গে গল্পে মেতে ওঠেছিলেন টুইঙ্কেল। সেখানেই কথায় কথায় সত্যজিৎ রায়ের 'অভিযান' ছবির নায়িকা জানান একবার বলি-পরিচালক রাজ খোসলা তাঁর সঙ্গে কীভাবে কুরুচিপূর্ণ ব্যবহার করেছিলেন। সেই প্রসঙ্গের রেশ টেনে টুইঙ্কেল বলে ওঠেন যে তাঁর সঙ্গেও একবার এক পরিচালক অপ্রীতিকর ব্যবহার করেছিল।

ওয়াহিদা রহমান এবং টুইঙ্কেল। (ছবি সৌজন্যে - ইউটিউব)
ওয়াহিদা রহমান এবং টুইঙ্কেল। (ছবি সৌজন্যে - ইউটিউব)

 'বাদশা' ছবির অভিনেত্রীর কথায়, ' একবার একটি ছবির শ্যুটিংয়ে চিত্রনাট্যের প্রয়োজনেই ঝর্ণার সামনে স্নানের দৃশ্যের শ্যুটিং করার প্রস্তুতি সারছি, এমন সময় পরিচালক এলেন। গায়ে শাল চাপিয়ে, অনেকটা বিখ্যাত পরিচালক-অভিনেতা গুরু দত্তের নকল করে। আমার তখন সাদা কুর্তা পরে রয়েছি। সেই পরিচালক এসে আমাকে সরাসরি জিজ্ঞেস করলেন ওই ঝর্ণার জলে স্নানের দৃশ্যে 'মন্দাকিনী' -র মত সেজে উঠতে পারব কি না?'

সামান্য থেমে ফের শুরু করেন অক্ষয়-পত্নী, 'আমি সেইমুহূর্তে ওঁর ইঙ্গিত বুঝতে পেরেছিলাম। আমাকে পুরোপুরি ভিজে ফিনফিনে,সি-থ্রু পোশাকে ক্যামেরার সামনে উপস্থিত হওয়ার জন্য ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন তিনি। তবে মুখের ওপর আমি না বলে দিয়েছিলাম। সঙ্গে এও জানিয়েছিলাম যেহেতু ওই পরিচালক রাজ কাপুর নন তাই তাঁর প্রস্তাবে 'মন্দাকিনী'-র মত ওভাবে সেজে ওঠার প্রশ্নই আসে না'। বলাই বাহুল্য, এরপর আর একটি কথা না বাড়িয়ে ফিরে যান পরিচালক। টুইঙ্কেলের কথায় সেই পরিচালক নাকি এতটাই অপমানিত বোধ করেছিলেন যে ছবির শ্যুটিংয়ে আর তেমনভাবে কোনও কথাই বলেননি অভিনেত্রীর সঙ্গে। এমনকি এরপরে আর কোনও ছবির জন্য টুইঙ্কলের কাছে প্রস্তাব নিয়ে আসেনওনি।

উল্লেখ্য, সেই ছবি বা পরিচালকের নাম না বললেও দর্শকদের দুইয়ে দুইয়ে চার করে নিতে কোনও অসুবিধে হয়নি। কারণ টুইঙ্কেলের ছোট ফিল্মি কেরিয়ারে 'মেলা' ছবিতে সাদা কুর্তা পরে টুইঙ্কেলের নাচের সিকোয়েন্স আজও বহু দর্শকের স্মৃতিতে উজ্জ্বল। পাশাপাশি নিজের ছবির শ্যুটিংয়ে বেশিরভাগ সময় গায়ে চাদর চাপিয়ে রাখার অভ্যাস ছিল পরিচালক ধর্মের দর্শনের।

বন্ধ করুন