বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পাঁচ মিনিটে 'কৃষ ৪' এর গল্প লিখল ফ্যান, কুর্ণিশ জানিয়ে শেয়ার করলেন হৃত্বিক!
'কৃষ' সিনেমার একটি দৃশ্য। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক
'কৃষ' সিনেমার একটি দৃশ্য। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক

পাঁচ মিনিটে 'কৃষ ৪' এর গল্প লিখল ফ্যান, কুর্ণিশ জানিয়ে শেয়ার করলেন হৃত্বিক!

  • এবার 'কৃষ ৪'-এর গল্প লিখলেন একজন ফ্যান। নেটিজেনরা তো বটেই, স্বয়ং হৃত্বিক রোশন পর্যন্ত সেই ফ্যানের কল্পনাশক্তিকে কুর্ণিশ জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই পোস্ট শেয়ার করেছেন!

কিছুদিন আগেই 'কৃষ'-এর মুক্তির পনেরো বছরের পূর্তি উপলক্ষে এই সুপারহিরোর ফ্র্যাঞ্চাইজির চার নম্বর ছবি অর্থাৎ 'কৃষ ৪' এর কথা ঘোষণা করেছেন হৃত্বিক রোশন। টুইট করে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন হৃত্বিক। সেখানে দেখা যাচ্ছে চিরাচরিত কালো রঙের লং কোট পরে আকাশপথে উড়ে যাচ্ছেন কৃষ। তার মাঝেই মুখ থেকে নিজের মুখোশটি খুলে ছুঁড়ে দেন তিনি। ভিডিওর সঙ্গে লিখেছেন, ‘অতীতে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। দেখা যাক, ভবিষ্যৎ কী নিয়ে আসে। কৃশ ৪’। হ্যাশট্যাগ হিসেবে ‘ফিফটিন ইয়ারস অফ কৃশ’ এবং ‘কৃশ ৪’ শব্দেরও ব্যবহার করেছেন তিনি।

এবার 'কৃষ ৪'-এর গল্প লিখলেন একজন ফ্যান। অবশ্য মজা করে তাঁর লেখা সেই গল্পের প্লট পড়ে ইতিমধ্যেই তারিফ জানিয়েছে বহু নেটিজেন। ওই পোস্টের লাইকের সংখ্যাও বেড়েছে লাফিয়ে লাফিয়ে। এমনকি স্বয়ং হৃত্বিক রোশন পর্যন্ত ফ্যানের কল্পনাশক্তিকে কুর্ণিশ জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই পোস্ট শেয়ার করেছেন! তবে টুইট করে ওই লেখকের দাবি মাত্র মিনিট পাঁচেকের মধ্যেই তিনি 'কৃষ ৪' এর গল্পখানা লিখে ফেলেছেন। ভিনগ্রহের প্রাণী থেকে টাইম ট্র্যাভেল থেকে কী জায়গা পায়নি তাঁর লেখা ওই গল্পের প্লটে। এমনকি প্রিয়াঙ্কা চোপড়া অভিনীত 'প্রিয়া' চরিত্রটিকেও সুচারুভাবে সুপারপাওয়ারের অধিকারিণী করিয়ে ফেলা হয়েছে। তা ওই ব্যক্তি কী গল্প লিখেছেন 'কৃষ ৪'-এর?

টাইম মেশিনের সাহায্যে 'কৃষ'-এর ভিলেন নাসিরুদ্দিন শাহ হাজির হয়েছে বর্তমান সময়ে। সে এখন সুপারভিলেন। কারণ ইতিমধ্যেই টাইম মেশিনে করে অতীতে গিয়ে ভিনগ্রহের জীব জাদুর কয়েকটা বন্ধুবান্ধবকে পাকড়ে এনেছে সে। যাইহোক বর্তমানে তাঁর আসার উদ্দেশ্য, প্রতিহিংসা চরিতার্থ করা। প্রধান শত্রু কৃষ্ণা অর্থাৎ 'কৃষ'. কৃষকে না পেয়ে তাঁর ছোট্ট ছেলেকে চুরি করে ফের ২০০৬ সালে ফিরে যায় সে। এবার নিজের মেধা এবং সুপারপাওয়ারকে কাজে লাগিয়ে কৃষও তৈরি করে ফেলে একটি টাইম মেশিন। সে এবং প্রিয়া নিজেদের সন্তানকে উদ্ধারের জন্য অতীতে ফিরে যায় বটে কিন্তু ধরা পড়ে যায় নাসিরুদ্দিনের খপ্পরে। কোনওরকমে বেঁচে যায় প্রিয়া। অসহায় প্রিয়াকে এবার সাহায্য করতে এগিয়ে আসে 'জাদু'. রোহিতের মতো প্রিয়াকেও নিজের 'সুপারপাওয়ার' দেয় সে। সেই শক্তিকে কাজে লাগিয়েই কৃষ এবং নিজের সন্তানকে উদ্ধার করতে সফল হয় প্রিয়া। শেষে এই 'সুপারহিরো জুটি' মাইল ধ্বংস করে 'সুপারভিলেন'এর ডেরায় চলা সমস্ত কার্যকলাপ।

বন্ধ করুন