বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘আমরা শঙ্কিত, আমরা আতঙ্কিত’, নতুন সিরিয়ালের শ্যুটিং শুরুর দাবি আর্টিস্ট ফোরামের
মন ফাগুন সিরিয়ালের শ্যুটিংয়ের একটি দৃশ্য (ফাইল ছবি) 
মন ফাগুন সিরিয়ালের শ্যুটিংয়ের একটি দৃশ্য (ফাইল ছবি) 

‘আমরা শঙ্কিত, আমরা আতঙ্কিত’, নতুন সিরিয়ালের শ্যুটিং শুরুর দাবি আর্টিস্ট ফোরামের

  • কাটছে না টলিগঞ্জের শ্যুটিং জট।পুরোনো সিরিয়ালের শ্যুটিং চালু থাকলেও নতুন সিরিয়ালের শ্যুটিংয়ে না ফেডারেশনের। 

ফের নতুন করে শ্যুটিং জটে জেরবার টলিগঞ্জ। ফেডারেশনের চাপে কাজ বন্ধ একাধিক নতুন ধারাবাহিকের। এখনও শুরু হয়নি যে সকল সিরিয়ালের সম্প্রচার সেই সব সিরিয়ালের শ্যুটিংয়ে যোগ না দেওয়ার কথা বলা হয়েছে টেকনিশিয়ানদের। ‘মন ফাগুন’, ‘সর্বজয়া’, ‘শ্রীকৃষ্ণভক্ত মীরা’র মতো একাধিক সিরিয়ালের শ্যুটিং বাতিল হয়েছে।হয়নি ‘ধুলোকণা’র লুক সেটও, কারণ গরহাজির টেকনিশিয়ানরা, স্বভাবতই চাপে প্রযোজকরা। এবার বিবৃতি দিয়ে আর্টিস্ট ফোরামের পাশে দাঁড়াল আর্টিস্ট ফোরাম। 

সোমবার রাতে আর্টিস্ট ফোরামের তরফে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘সমস্ত শিল্পী ও কলাকুশলীদের স্বার্থে সিংশিষ্ট সকলের কাছে দাবি তুলছি—অবিলম্বে সমস্ত নতুন ধারাবাহিকের কাজ শুরু হোক। যদি কোনও মতপার্থক্য থাকে তার মীমাংসা হোক আলোচনার টেবিলে—শুটিং ফ্লোরে বন্ধ দরজার প্রেক্ষাপটে নয়। আমাদের শিল্পীরা অসম্ভব কষ্টে রয়েছেন। কেউ অনন্যোপায় হয়ে বাজারে মাছ বিক্রি করছেন, কেউ দেড় বছর কাজের সুযোগ না পেয়ে ডুবে গেছেন মানসিক অবসাদে আবার, কেউ বা ৭০টার বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করার পর হঠাৎ ঘাড়ের উপর এসে পড়া এই শ্বাসরুদ্ধকর কর্মহীনতা থেকে বাঁচতে নিতে চলেছেন আত্মহননের পথ’। 

ফের নতুন করে বৈঠক করে সমস্যার সমাধানের পথ খোঁজা ছাড়া এই মুহূর্তে অন্য কোনও উপায় সম্ভবত নেই, মনে করছে টলিপাড়ার শিল্পীদের অধিকাংশ। শিল্পী ও কলাকুশলীদের জীবন নিয়ে ‘ছিনিমিনি’ খেলা বন্ধ করা হোক, আর্জি ফোরামের। বিবৃতিতে বলা হয়েছে- ‘আজ যদি ১৫টি নতুন ধারাবাহিকের কাজ শুরু হয় তা হলে কলাকুশলী ও শিল্পী মিলিয়ে কমপক্ষে হাজার জনের কর্ম সংস্থান হবে। সেই সমস্ত শিল্পী এবং কলাকুশলীদের জীবন তাঁদের পরিবার নিয়ে ছিনিমিনি খেলার প্রতিবাদ জানাচ্ছে ফোরাম’।

ফেডারেশন বনাম প্রোডিউসার্স গিল্ডের তরজা শুরু সেই শ্যুট ফ্রম হোমের হাত ধরে। গত বৃহস্পতিবারই মন্ত্রী স্বরূপ বিশ্বাসের নেতৃত্বে প্রযোজক রাজ চক্রবর্তী, অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে প্রোডিউসারস গিল্ড, আর্টিস্ট ফোরাম এবং ফেডারেশনের এক সম্মিলিত বৈঠক হয়।সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল তিন বছর ধরে আটকে থাকা মউ (MOU) চুক্তি নিয়ে ফেডারেশন এবং প্রযোজকদের যে মতবিরোধ তৈরি হয়েছিল তা মিটিয়ে নিয়ে নির্দিষ্ট শ্যুটিং গাইডলাইন তৈরি করা হবে আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে এবং ৩১-শে জুলাইয়ের মধ্যে সেই গাইডলাইন কার্যকর করা হবে।

বর্তমানে ফেডারেশনের দাবি MOU স্বাক্ষর না হলে নতুন ধারাবাহিকের শ্যুটিংয়ে টেকনিশিয়ানরা যোগ দেবেন না, সেই কতা একমাস আগেই জানানো হয়েছিল বলে জানিয়েছে ফেডারেশন। কী রয়েছে সেই মউ চুক্তিতে? কোনও সিরিয়ালের সেটে টেকনিশিয়ানদের ম্যান পাওয়ার কী হবে, বেতন কী হবে, কত ঘন্টার শিফট হবে সেই সংক্রান্ত খুঁটিনাটি থাকবে ওই চুক্তিতে। 

একদিকে প্রযোজকদের পাশে দাঁড়িয়ে যখন বিবৃতি দিয়েছে আর্টিস্ট ফোরাম, তখন  ফেডারেশনের ‘ওয়ার্কিং কমিটি’ এদিন ‘সিনে আর্ট ডিরেক্টর’স গিল্ড’-এর এগজিকিউটিভ কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়, ‘এবার থেকে গিল্ড বা অ্যাসোসিয়েশনের তরফে শুধু তাদের সভাপতি বা সম্পাদক নন, বরং তাদের নির্বাচিত কমিটির সকলেই ফেডারেশনের ‘ওয়ার্কিং কমিটি’-র সঙ্গে সরাসরি বৈঠকে নিজেদের বক্তব্য ও পরামর্শ তুলে ধরতে পারবেন। সকলকে সঙ্গে নিয়েই ফেডারেশন ভবিষ্যতের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার পথে পা বাড়াবে’।

বন্ধ করুন