বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Urfi Javed: জিন্স আর ব্রা পরেই ঘরের বাইরে এলেন উরফি, বললেন বার বার ভাবতেন আত্মহত্যার কথা!
উরফি জাভেদ। 
উরফি জাভেদ। 

Urfi Javed: জিন্স আর ব্রা পরেই ঘরের বাইরে এলেন উরফি, বললেন বার বার ভাবতেন আত্মহত্যার কথা!

জীবনে লড়াই করার পথই সকল অনুরাগীর সামনে তুলে ধরতে চেয়েছেন উরফি নিজের নতুন পোস্টে। 

‘বিগ বস ওটিটি’ খ্যাত উরফি জাভেগ ‘হ্যাপি গো লাকি’ মানুষ হিসেবেই পরিচিত সকলের কাছে। নিজের পছন্দের পোশাক পরেন, বিতর্ক তৈরি করেন, বিতর্কে মনের মতো জবাব দেন! ভাবনাচিন্তা করার ধার ধারেন না তিনি! তবে সেই উরফি এবার তুলে ধরল নিজের জীবনের এক অন্ধকার অধ্যায়। 

রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের নতুন কিছু ছবি শেয়ার করে নিয়েছেন উরফি। যেখানে দেখা যাচ্ছে জিন্সের ওপর শুধুমাত্র অন্তর্বাস পরেই তিনি ছবির জন্য পোজ দিয়েছেন। খোলা চুল শরীরের একধার দিয়ে সামনে ফেলা। হাতে ধরা আছে একটি স্কার্ফ। 

তবে উরফির এই ছবি যতটা না বিস্ফোরক, তার চেয়ে বেশি বিস্ফোরক এই ছবির ক্যাপশন। যেখানে এই মডেল-অভিনেত্রী কথা বলেছেন তাঁর বারবার করা আত্মহ্যার ভাবনা নিয়ে। 

উরফি নিজের ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন-- 

‘তোমরা জানো আমি কতবার ব্যর্থ হয়েছি? আমি এখন গণনা করাও ছেড়ে দিয়েছি!

জীবনে অনেকবার আমি অনুভব করেছি যে, এই জগাখিচুড়ি থেকে মুক্তির একমাত্র উপায় হল জীবন শেষ করে দেওয়া। আমার জীবন পুরোটাই ঘেঁটে ছিল... ব্যর্থ কেরিয়ার, ব্যর্থ সম্পর্ক, অর্থের অভাব আমাকে এমন একজন পরাজিত মানুষের বোধ দিত। আমার এখনও অনেক টাকা নেই, সফল কেরিয়ারও না এবং আমি এখনও অবিবাহিত। কিন্তু আমার আশা আছে। এটাই আমার বেঁচে থাকার একমাত্র কারণ (বিশ্বাস করুন আমার জীবনে এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে যা আমাকে প্রায় মেরে ফেলেছে)। আমি কখনোই থামিনি। আমি হাঁটতে থাকি এবং এখনও হাঁটছি। আমি যেখানে থাকতে চাই সেখানে হয়তো এখনও পৌঁছয়নি তবে অন্তত আমি সেই পথে আছি।

বছর শেষ হওয়ার আগে কিছু জোশের কথা বলি! উঠুন, লড়াই করুন, বার বার লড়াই করুন। মনে রাখবেন আপনার চারপাশের পরিবেশের চেয়ে আপনার মনের জোর বেশি।’

কিছুদিন আগেই উরফি নিজের সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, যাঁরা তাঁকে নিয়ে ট্রোল করে তাঁদের মধ্যে মুসলিমের সংখ্যাই বেশি। কারণ মুসলিম ছেলেরা চান নিজের জাতির মেয়েদের হাতের মুঠোয় বন্দি করে রাখতে। এমনকী, উরফি কখনো মুসলিম ছেলে বিয়ে করবেন না বলেও জানান সাক্ষাৎকারে। 

এর আগেও উরফি জানিয়েছেন রক্ষণশীল পরিবারে তাঁর বেড়ে ওঠা। বলিউডে আসার আগে তাঁর সালোয়ার ছাড়া আর কিছু পরার উপর বাধানিষেধ ছিল। তবে, ওই জীবনে আর ফেরত যেতে চান না তিনি। বরং ট্রোলারদের পাত্তা না দিয়ে থাকতে চান নিজের শর্তে।

বন্ধ করুন