বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Uunchai: অমিতাভ-অনুপম-বোমানের বন্ধুত্ব চমক দিল বক্স অফিসে! সপ্তাহান্তে উঁচাই কত আয় করল

Uunchai: অমিতাভ-অনুপম-বোমানের বন্ধুত্ব চমক দিল বক্স অফিসে! সপ্তাহান্তে উঁচাই কত আয় করল

সপ্তাহান্তে উঁচাই কত আয় করল?

Uunchai: সুরজ বরজাতিয়া পরিচালিত ছবি উঁচাই সপ্তাহান্তে বেশ ভালো ব্যবসা করল। অমিতাভ বচ্চন, অনুপম খের অভিনীত এই ছবিটি বক্স অফিসে তিনদিনে ১০.১৬ কোটির ব্যবসা করল।

উঁচাই গত শুক্রবার, ১১ নভেম্বর বড়পর্দায় মুক্তি পেয়ে গেছে। এই ছবিতে অমিতাভ বচ্চন, অনুপম খের, বোমান ইরানি, নীনা গুপ্ত, পরিণীতি চোপড়া প্রমুখকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই বক্স অফিসে মোটের উপর বেশ ভালোই ব্যবসা করছে। রবিবার দিন উঁচাইয়ের বক্স অফিস কালেকশন ছিল ৪.৭১ কোটি টাকা।

মুক্তি পাওয়ার পর সপ্তাহান্তে ভালোই ব্যবসা করল সুরজ বরজাতিয়ার উঁচাই। প্রথমদিনে এই ছবির মোট বক্স অফিস কালেকশন হল ১০.১৬ কোটি টাকা। প্রথমদিন এই ছবি ১.৮১ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল। শনিবার দিন এই ছবি প্রথম দিনের তুলনায় প্রায় ১০১ শতাংশ বেশি ব্যবসা করে। শনিবার উঁচাই ৩.৬৪ কোটি টাকার ব্যবসা করে।

এই ছবিতে তিন বন্ধুর কথা দেখা যাবে যাঁরা মাউন্ট এভারেস্টে যেতে চায়, কেন? কারণ এটাই তাঁদের মৃত বন্ধুর (ড্যানি ডেনজংপা) শেষ ইচ্ছা ছিল।

তোরণ আদর্শ, ট্রেড অ্যানালিস্ট টুইটারে এই ছবির সপ্তাহান্তের ব্যবসার মূল্য প্রকাশ্যে আনেন। তিনি লেখেন, 'উঁচাই তৃতীয় দিনে উচ্চতা ছুঁলো।' একই সঙ্গে তিনি জানান সীমিত সংখ্যক শো হলেও এই ছবি বেশ ভালোই ব্যবসা করছে। 'সপ্তাহান্তে দুই সংখ্যার ব্যবসা হয়েছে মানেই এই ছবির কনটেন্টে দম আছে' এমনটাই জানান তোরণ। এছাড়া তাঁর এই টুইটে তিনি উল্লেখ করেন, ৪৮৬ স্ক্রিনে এই ছবির দেখানো হচ্ছে, প্রতিদিন মোট শোয়ের সংখ্যা হল ১২৮২ ।

এই ছবিটির প্রযোজনা করেছে রাজশ্রী প্রোডাকশন। সহ প্রযোজনা করেছে মহাবীর জৈন ফিল্মস, এবং বাউন্ডলেস মিডিয়া। দীর্ঘ সাত বছর পর সুরজ বরজাতিয়ার কোনও ছবি আবার বড়পর্দায় মুক্তি পেল। এর আগে তাঁর শেষ, প্রেম রতন ধন পায়ো ছবিটি ২০১৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল। সেই ছবিটিও সমালোচকদের থেকে বেশি পজিটিভ রিভিউ পেয়েছিল।

সুরজ বরজাতিয়া মূলত ফ্যামিলি ড্রামা ঘরানার ছবি তৈরি করেন, এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল হাম আপকে হ্যায় কৌন, হাম সাথ সাথ হ্যায়, বিবাহ, ইত্যাদি। সেখানে দাঁড়িয়ে উঁচাইয়ের মতো একটি ছবি তৈরি করা একটি নতুন ব্যাপার। তিনি পিটিআইকে এই ছবির বিষয়ে বলেছিলেন, এই ছবিতে আমি আমার পুরোনো ধারা থেকে বেরোতে চেয়েছি। আগে একটা ব্যাপার ছিল ছবিতে কোনও চরিত্রের নাম প্রেম রাখলেও সেই ছবি চলত। কিন্তু আমি এবার সেটা চাইনি। মহামারী সব বদলে দিয়েছে, পুরনো জিনিস ধরে রাখার কোনও মানে নেই।

বন্ধ করুন