বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বরুণ-কিয়ারার সঙ্গে কলকাতার জমাটি আড্ডা, ‘যুগ যুগ জিও’-র প্রচারে শহরে দুই তারকা
কলকাতায় কিয়ারা-বরুণ। (ছবি: শাহিদ আখতার)

বরুণ-কিয়ারার সঙ্গে কলকাতার জমাটি আড্ডা, ‘যুগ যুগ জিও’-র প্রচারে শহরে দুই তারকা

  • কলকাতায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আড্ডা দিলেন বরুণ ধাওয়ান ও কিয়ারা আডবানি। সাংবাদিক বৈঠকে হাজির ছিলেন রণবীর ভট্টাচার্য

যোগাসন দিবস আবার সঙ্গে সুরেরও দিন আজ, এরই মধ্যে কলকাতায় ঝটিতি আড্ডা দিলেন বরুণ ধাওয়ান এবং কিয়ারা আডবানি। ছটফটে প্রাণবন্ত এই জুটি খুব তাড়াতাড়ি পর্দায় আসছেন ‘যুগ যুগ জিও’ সিনেমা নিয়ে। কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলে সাংবাদিক বৈঠকে ধরা পড়ল খুনসুটি, জমাটি আলোচনা আর রসায়নের রংমিশালিতে।

‘অক্টোবর’, ‘সুই ধাগা’, ‘বদলাপুর’ নিয়ে উচ্ছ্বসিত বরুণ বলেন, ‘কলকাতায় আজ এই নিয়ে ছ’বার মানুষ আমায় ধন্যবাদ জানালেন ‘অক্টোবর’ নিয়ে। আমি সিনেমার ছাত্র। সব সিনেমার গুরুত্ব রয়েছে আমার কাছে। সুজিতদার শহর যে আমাকে মনে রেখেছে ‘অক্টোবর’ নিয়ে, সেটা খুব গর্বের আমার কাছে।’

‘যুগ যুগ জিও’র প্রচারে কিয়ারা আর বরুণ। (ছবি: শাহিদ আখতার)
‘যুগ যুগ জিও’র প্রচারে কিয়ারা আর বরুণ। (ছবি: শাহিদ আখতার)

‘শের শাহ’, ‘ভুলভুলাইয়া ২’-এর মতো সিনেমায় সাফল্য পাওয়া কিয়ারা আডবানি অকপটে জানালেন, ‘যখন সিনেমায় সাইন করেছিলাম, তখন ধারণা ছিল না যে এত বড় হিট হতে চলেছে। আমি সত্যি ভাগ্যবান।’

‘জুগ জুগ জিও’-র সঙ্গে একই সময়ে রিলিজ করছে ‘শের দিল’ যেখানে রয়েছেন ইন্ডাস্ট্রির এক ও অদ্বিতীয় কালীন ভাইয়া। তবে বরুণ সেই নিয়ে চিন্তিত নন, বরং অকপটে জানালেন, ‘পঙ্কজ স্যারের অভিনয় থেকে আমরা শিখি। এখানে কোন প্রতিযোগিতা নেই। ভারতীয় সিনেমার স্বার্থে ওঁর সিনেমার সাফল্য কামনা করি।’

কলকাতায় বরুণ (ছবি: শাহিদ আখতার)
কলকাতায় বরুণ (ছবি: শাহিদ আখতার)

আলোচনার সময়ে বারবার উঠে এল কমিক টাইমিং-এর কথা, বিশেষ করে সেই বরুণ ধাওয়ান, যাঁর বাবার হাত ধরে নব্বইয়ের দশকে নতুন স্বাদের কমেডির সঙ্গে আলাপ হয়েছিল সবার।

রিয়েল লাইফে বিবাহিত বরুণ অবশ্য বিয়ে নিয়ে টিপস দিতে গিয়ে টিপ্পনী করতে ছাড়লেন না কিয়ারাকে। তবে সেই নিয়ে কিয়ারার সাফ জবাব, ‘বিয়ে একবারই করব!’

সাংবাদিক বৈঠকে কিয়ারা (ছবি: শাহিদ আখতার)
সাংবাদিক বৈঠকে কিয়ারা (ছবি: শাহিদ আখতার)

শ্যুটিংয়ের মাঝে নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা জানালেন দু’জনেই। এর সঙ্গে অনিল কাপুরের ফিটনেস নিয়ে বাহবা জানাতে ভুললেন না কেউই। শেষ বরুণ ধাওয়ান আশ্বস্ত করলেন, ‘যুগ যুগ জিও’ একটি পারিবারিক সিনেমা। নির্দ্বিধায় আসুন, বড় পর্দায় দেখুন আর আমাদের জানান কেমন লাগল।’

এখন অপেক্ষা বরুণ-কিয়ারার অনস্ক্রিন রসায়ন কতটা মন খুশি করতে পারল দর্শকদের।

বন্ধ করুন