বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জনসমক্ষে আত্মীয়াকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ টলিউড অভিনেতার বিরুদ্ধে, ভাইরাল ভিডিয়ো
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

জনসমক্ষে আত্মীয়াকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ টলিউড অভিনেতার বিরুদ্ধে, ভাইরাল ভিডিয়ো

  • বিতর্কিত ভিডিয়ো নিয়ে বিস্ফোরক অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী। লিখলেন, ‘অভিনয় জগতের অংশ হিসাবে লজ্জাবোধ করছি’।

গ্ল্যামার দুনিয়ার ব্যক্তিত্বের সঙ্গে নানারকম কেচ্ছা হামেশাই জড়িয়ে পড়ে। কখনও কাস্টিং কাউচ তো কখনও মিটু-র অভিযোগে বিদ্ধ হন পরিচালক, প্রযোজক, অভিনেতারা। বলিউড পেরিয়ে টলিউডেও মিটু ঝড় আছড়ে পড়েছে বারবার। তবে শুক্রবারের ঘটনা ঘিরে তাজ্জব গোটা ইন্ডাস্ট্রিসহ বাংলা! এদিন এক অভিনেতা অন্য একচি কারণে শিরোনামে আসার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় একটি ভিডিয়ো। মাত্র কয়েক সেকেন্ডের ওই ভিডিয়োতে এক তরুণীর সঙ্গে অশালীন আচরণ করতে দেখা যায় অভিনেতাকে। যা নিয়ে তোলপাড় শুরুর পরেই জানা যায়, ওই তরুণী আর কেউ নন বরং সেই অভিনেতার আত্মীয়া। যদিও সেই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। দু-দিন আগেই ছিল অভিনেতার জন্মদিন। সেই জন্মদিনের সেলিব্রেশনের সময়কারই ভিডিয়ো সেটি। অভিনেতা যেই সময় ওই তরুণীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা তৈরির চেষ্টা করছিলেন, পাশেই ছিল তাঁদের বাবাও। গোটা ঘটনা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না নেট নাগরিকরা।

এই নিয়ে শুক্রবার রাতে বিস্ফোরক ফেসবুক পোস্ট লেখেন অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী।তিনি লেখেন- 'কুরুচিকর, বিকৃতমনষ্ক, অবিশ্বাস্য! কখনও তার সঙ্গে কাজ করিনি। খুব কমবারই দেখা হয়েছে হয়ত, কিন্তু যে আমার এক জুনিয়র সহকর্মী। আজ ওর জন্য আমি অভিনয় জগতের অংশ হিসাবে লজ্জাবোধ করছি!!

মানে..ওটা কী এক্সাইটেমন্টের অভিব্যক্তি? সত্যি কি তাই?  বাবা-বোনের উপস্থিতিতেই এই কাণ্ড? 

আমি জানি না, আমি ভীষণ কনফিউজড, আমি হতবাক!!!'

পোস্টের কমেন্ট বক্সে অভিনেত্রী আরও লেখেন- ‘আমিও বিশ্বাস করতে পারছি না রে। খুব লজ্জ্বা ও লাগছে।  অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ও ফেসবুকে ক্ষোভ প্রকাশ করে লেখেন- ‘জানি না কী লেখা উচিত,তবে সব অভিনেতারাই আজ বড্ড ছোট হল। মারাত্মক!’

এক অভিনেত্রীর সঙ্গে লিভ ইন করেন ওই অভিনেতা। ওয়েব সিরিজের সুবাদেই মূলত চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছেন তিনি। একাধিক সিরিজে সাহসী দৃশ্যে দর্শক তাঁকে অভিনয় করতে দেখেছে, কিন্তু নিজের আত্মীয়ার সঙ্গে এমন আচরণ? মেনে নিতে পারছেন না নেটনাগরিকরা।

শুক্রবার দিনভর ওই ভাইরাল ভিডিয়ো ঘিরে চলা চাপানউতোরের পর গভীর রাতে গোটা বিষয় নিয়ে সাফাই দেন অভিযুক্ত অভিনেতা। সোশ্যাল মিডিয়ায় দীর্ঘ পোস্ট লেখেন, সঙ্গে শেয়ার করেন নিজের জন্মদিনের সেলিব্রেশনের সেই মুহূর্তের ভিডিয়ো। অভিনেতার পোস্ট করা ভিডিয়োটি অবশ্য কয়েক সেকেন্ডের নয়, প্রায় ৬ মিনিট দীর্ঘ। তবে বিতর্কিত অংশটিতে ক্যামেরা জুম করা মুখে, অর্থাত্ সেটি নজরে আসবে না এই ভিডিয়োয়। এই নিয়েও সাইবারবাসীরা আক্রমণ শানিয়েছেন অভিনেতাকে। তাঁদের বক্তব্য- ‘ওতোই যখন ধোয়া তুলসীপাতা, তাহলে ওই সময় মুখটা জুম করা হল কেন?’

টলিউডের হাতে গোনা কিছু সেলেব অবশ্য ওই অভিনেতার পাশে দাঁড়িয়েছেন। এই বিতর্কিত পোস্টের কমেন্ট বক্সে লাভ ইমোজি দেওয়াকে অন্তত সমর্থন বলাই যেতে পারে বোধহয়!

 

বন্ধ করুন