বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Bidipta-Chaitali: 'বন্ধু কখন ছেলের বউ গেল… শকিং', বিদিপ্তা-বিরসার বিয়ের গল্প ফাঁস করলেন চৈতালী
বিরসা-বিদিপ্তার প্রেম কাহিনি ফাঁস

Bidipta-Chaitali: 'বন্ধু কখন ছেলের বউ গেল… শকিং', বিদিপ্তা-বিরসার বিয়ের গল্প ফাঁস করলেন চৈতালী

  • শাশুড়িকে আজও পিসি বলে সম্বোধন করেন আর শ্বশুরমশাইকে রাজাদা! কতটা গুণী গৃহিনী বিদিপ্তা? ফাঁস করলেন চৈতালী দাশুগুপ্ত। 

বাংলা বিনোদন জগতের অন্যতম পরিচিত মুখ বিদিপ্তা চক্রবর্তী। টেলিভিশন থেকে সিনেমা- সবেতেই উজ্জ্বল উপস্থিতি তাঁর। অভিনেতা বিপ্লব কেতন চক্রবর্তীর মেয়ে হওয়ার সুবাদে অভিনয়ের জগতেই বড় হয়েছেন বিদিপ্তা। বর্তমানে বাংলার সবচেয়ে জনপ্রিয় শো ‘মিঠাই’-তে দেখা যাচ্ছে তাঁকে। মিঠাইরানির সঙ্গে তাঁর শাশুড়ি মা-এর দারুণ বন্ডিং। তবে জানেন কি রিয়েল লাইফে বিদিপ্তার সঙ্গে তাঁর শাশুড়ির সম্পর্ক কেমন?

পরিচালক বিরসা দাশগুপ্তের স্ত্রী বিদিপ্তা। জনপ্রিয় সঞ্চালিকা চৈতালী দাশগুপ্তের বউমা তিনি। যদিও বিরসার সঙ্গে বিয়ের অনেক আগে থেকে শাশুড়ি মায়ের সঙ্গে বন্ধুত্ব বিদিপ্তার। একবার দিদি নম্বর ১-এর মঞ্চে হাজির হয়ে বৌমার কীর্তি ফাঁস করেছিলেন চৈতালী দাশগুপ্ত। তিনি বলেন, ‘বন্ধু কখন বউমা হয়ে গেল, সেটা একদম চমকপ্রদ গল্প…’। পাশ থেকে হাসিমুখে বিদিপ্তা যোগ করেন, ‘হ্যাঁ, বন্ধু কখন ছেলের বউ গেল… সেটা শকিং’। আধুনিক চিন্তা-ভাবনায় বিশ্বাসী চৈতালী, তিনি জানান, ‘বিয়ের পর ও আমার মেয়ে হয়ে গেল। সঙ্গে একটা ফুটফুটে বাচ্চা (মেঘলা) পেয়েছিলাম। আমার বাড়িটা ভরে গেল। আমার বাড়িতে মেয়ে ছিল না। আমার দুই ছেলে। আর আজ বাড়িময় মেয়ে।….. সব মিলিয়ে আমার ভরপুর সংসার’।

বন্ধু যখন বউমা হয়ে ঢুকল পরিবেশ কতটা বদলেছিল? রচনার প্রশ্নের উত্তরে বিদিপ্তা বলেন, ‘আমার কাছে কিছু বদলায়নি। বাবা-মা’র প্রতি যে দায়িত্ব ছিল, সেটা শ্বশুর-শাশুড়ির প্রতি থাকবে। আমার কাছে তো শ্বশুরমশাই দাদা আর শাশুড়ি পিসি। আমি রাজাদা আর চৈতালী পিসি বলি আজও'।

ভবঘুরে এবং বাউন্ডুলে স্বভাবের মেয়ে বিদিপ্তা, নিজেই সে কথা মেনে নেন। আদর্শ গৃহিনী নন, তবে ছেলে-বউমার লড়াইয়ে সবসময় বৌমা-র পক্ষ নেন চৈতালী দাশগুপ্ত। রান্না-বান্নার ধারে কাছেও হাঁটেন না বিদিপ্তা। বরং শাশুড়ি-বরই তাঁকে রান্না করে খাওয়ায়। বৌমার মধ্যে কী পরিবর্তন দেখতে চান চৈতালী? জবাব আসে,'যদি একটু ঘর-দোরটা গুছোয়।' তবে বিয়ের পর খানিকটা পালটেছেন বিদিপ্তা তা মেনে নেন শাশুড়ি মা। আরও পড়ুন-অসুস্থ সৌমিতৃষা, বারণ সত্ত্বেও শ্যুটিং জারি রেখেছেন মিঠাইরানি!

২০১০ সালে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন বিরসা-বিদিপ্তা। এটা ছিল বিদিপ্তার দ্বিতীয় বিয়ে। অভিনেত্রীর প্রথমপক্ষের মেয়ে মেঘলা দাশগুপ্তের সঙ্গে দারুণ বন্ডিং বিরসার। বাবার সহকারী পরিচালক হিসাবে কাজও করে সে। অন্যদিকে বিরসা-বিদিপ্তার ছোট মেয়ে ইদারা। যাকে ‘সব ভূতুড়ে’ ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা গিয়েছে।

বন্ধ করুন