বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘১০১ টাকা দিয়ে যদি চারটে ভোট পাই, আমি খুশি’, ভোটের দিন বেঁফাস মন্তব্য সায়ন্তিকার
বেফাঁস মন্তব্য সায়ন্তিকার
বেফাঁস মন্তব্য সায়ন্তিকার

‘১০১ টাকা দিয়ে যদি চারটে ভোট পাই, আমি খুশি’, ভোটের দিন বেঁফাস মন্তব্য সায়ন্তিকার

  • সায়ন্তিকার বিরুদ্ধে ভোটের দিন টাকা বিলির অভিযোগ এনেছে বিজেপি। 

ভোটের দিন নির্বাচনী বিধি ভেঙে ভোটারদের টাকা বিলানোর অভিযোগ বাঁকুড়ার তৃণমূল প্রার্থী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। তারকা প্রার্থীর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনেছে বিজেপি। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় ভৈরব মন্দিরে গিয়ে পুজো দেন সায়ন্তিকা। সেখানে মন্দিরের বাইরে বসে থাকা কিছু দুঃস্থ মানুষের হাতে টাকা দেন তিনি। এই প্রসঙ্গে বিরোধীদের অভিযোগ, ভোটের দিন টাকা বিলি করছেন সায়ন্তিকা।

নির্বাচনের ফাঁকে বাঁকুড়ার বিভিন্ন বুথ পরিদর্শনে বেরিয়ে ছিলেন সায়ন্তিকা। সেই সময়ই ‘টাকা বিলানোর’ অভিযোগ নিয়ে সায়ন্তিকাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল এক টেলিভিশন চ্যানেলের তরফে। তখনই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন সায়ন্তিকা।টিভিনাইন বাংলাকে অভিনে্ত্রী বলেন, ‘অনেকেই তো বলছেন, আমি ভৈরব স্থান মায়ের মন্দিরে পুজো দিয়ে টাকা দিয়েছি। প্রণামীর বাক্সে ১০১ টাকা না দিয়ে মন্দিরের সামনে বসে থাকা গরিব মা-জ্যেঠিমাদের টাকা দিই, আশীর্বাদ নিই, চারটে ভোট পাই, তাতে আমি খুশি। বিজেপি তো টাকা দিয়ে খাইয়ে ভোটটা কেনাচ্ছে’। 

সায়ন্তিকার এই মন্তব্য নিয়ে নতুন করে শোরগোল শুরু হয়েছে। তবে অভিযোগ শুধু সায়ন্তিকার বিরুদ্ধে তা নয়, তারকা প্রার্থীও বৃহস্পতিবার সকাল থেকে একগুচ্ছ অভিযোগ এনেছেন। সকাল থেকেই বাঁকুড়ার বহু কেন্দ্রে বিকল হয়ে পড়ে ইভিএম মেশিন। তবে নিজের জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী সায়ন্তিকা। দিদির প্রিয় প্রার্থী বললেন, ‘বাঁকুড়ার মানুষ ফিরত আসবে এবং দিদিকেই ভোটটা দেবে। ষড়যন্ত্র তো রয়েইছে, কারণ আমাদের বিরোধী দল জানে বাংলার মানুষ দিদিকে ভালোবাসে। যেখানে আমাদের মানুষজন স্ট্রং রয়েছে, সেখানেই ইভিএম মেশিন খারাপ। তবে জিতব আমি’। 

বন্ধ করুন