বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'মেয়েদের সম্মান করা আপনাদের ধাতে নেই', বিজেপিকে আক্রমণ তৃণমূল প্রার্থী সায়নীর
সায়নী ঘোষ (ফাইল ছবি) 
সায়নী ঘোষ (ফাইল ছবি) 

'মেয়েদের সম্মান করা আপনাদের ধাতে নেই', বিজেপিকে আক্রমণ তৃণমূল প্রার্থী সায়নীর

  • ধার করতে বিজেপি ওস্তাদ,নেতা হোক আর স্লোগান’, বিস্ফোরক সায়নী।

দিন কয়েক আগেই হুগলির সাহাগঞ্জে তৃণমূলের জনসভায় তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন সায়নী ঘোষ। সাম্প্রতিক সময়ে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থেকেছেন এই টলি নায়িকা। প্রত্যাশা মতোই শুক্রবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন সায়নী। আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা আসন থেকে লড়বেন সায়নী। 

তৃণমলের প্রার্থী তালিকায় তারকা সমাবেশ দেখে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি। সায়নীর পুরোনো টুইট নিয়ে ফের তাঁকে বিঁধেছেন সকলেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের ছড়িয়ে পড়ছে সেই বিতর্কিত টুইট। এর মাঝেই শনিবার ভারতীয় জনতা পার্টির উদ্দেশ্যে খোলা চিঠি লিখলেন সায়নী। 

ফেসবুকের দেওয়ালে সায়নী লেখেন-

‘প্রিয় বিজেপি, আপনাদের এই পার্সোনাল অ্যাটাক (ব্যক্তিগত আক্রমণ) বা স্মিয়ার ক্যাম্পেইন ( মিথ্য প্রচারাভিযান), ট্রোল বা মিম আমাদের চলচ্চিত্র জগতের মানুষদের কাছে কিছু নতুন নয়। চিরাচরিত এবং বাধাগত ফর্মুলা নিয়ে মানুষের মধ্যে ভ্রান্তি ছড়ানো, তাদের মনে ব্যক্তি সম্বন্ধে ভুল ধারনা স্থাপন করা, মেরুকরণ আপনাদের বাধাগত ছক। তবে এইটুকু মনে রাখতে হবে, যে আমরা বাংলার অনেক পুরোনো সহচর। বাংলার মানুষের ভালোবাসা আমাদের প্রতিষ্ঠিত করেছে। বোঝাই যাচ্ছে আপনারা একটু অস্বস্তিতে পড়েছেন। আমাদের বিরুদ্ধাচারণ  সেটা আরও পরিষ্কার করে দিচ্ছে। আর মেয়েদের সম্মান করা অবশ্যই আপনাদের ধাতে নেই। তা থাকবেই বা কেন? আপনাদের নেতা যখন আদ্যাশক্তি,মহামায়া, দেবী দূর্গার বংশ পরিচয় নিয়ে প্রশ্ন তোলেন! আগে নিজের দলের লোকেদের নিঃশর্তভাবে সম্মান করাতে শিখুন। বেশি কথা বাড়ালে এবার আপনারাই অস্বস্তিতে পড়বেন। এছাড়াও বাংলার মানুষের মনোভাব বা মুখের ভাষা বিষিয়ে দিতে আপনাদের জুরি মেলা ভার। ধার করতে আপনারা ওস্তাদ, তা আমাদের দলের নেতা হোক বা পরিবর্তনের স্লোগান। #গ্রোআপবিজেপি, এত ভয় ভালো নয় বাবুমশাই'।

এই পোস্টের ক্যাপশনে সায়নী লেখেন, ‘নিজেদের মলম লাগাতে অন্যদের আঘাত করা জরুরি?  সঙ্গে হ্যাশট্যাগে জুড়ে দেন #গেটঅ্যালাইফ এবং #জয়বাংলাজয়হিন্দ।

উল্লেখ্য, মাসখানেক আগে এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে করা মন্তব্যকে ঘিরে বিজেপির রোষের মুখে পড়তে হয়েছিল সায়নীকে। এরপর অভিনেত্রীর ছয় বছর পুরোনো টুইটের জেরে শোরগোল পড়ে যায় রাজনৈতিক মহলে। ২০১৫ সালের সেই টুইটে এক ব্যঙ্গচিত্রে দেখা গিয়েছিল, যেখানে শিবলিঙ্গের মাথায় কন্ডোম পরাচ্ছেন বুলা দি নামে একটি চরিত্র। এতে নিজেদের ধর্মীয় ভাবাবেগ আহত হয়েছে বলে জানান কিছু মানুষ। তারপর থেকেই বিজেপি নেতাদের রোষের মুখে পড়তে হয়েছে সায়নীকে। তথাগত রায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন সায়নী বিরুদ্ধে। সৌমিত্র খাঁ, সায়নীকে ‘যৌনকর্মী’ বলে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি। 

ভোট-যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত সায়নী। তা বারেবারেই বুঝিয়ে দিচ্ছেন অভিনেত্রী। ইতিমধ্যেই সায়নীর নামে দেওয়াল লিখন শুরু হয়ে গিয়েছে আসানসোলে। সেই ছবিও ফেসবুকে শেয়ার করেছেন নায়িকা।

বন্ধ করুন