বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বাজিরাও মস্তানি-তে দীপিকার চরিত্রে অভিনয় করার প্রশ্নে কী জবাব ছিল প্রিয়াঙ্কার ?
'বাজিরাও মাস্তানি' ছবিতে একসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা-দীপিকা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
'বাজিরাও মাস্তানি' ছবিতে একসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা-দীপিকা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

বাজিরাও মস্তানি-তে দীপিকার চরিত্রে অভিনয় করার প্রশ্নে কী জবাব ছিল প্রিয়াঙ্কার ?

বাজিরাও মাস্তানি-তে 'কাশীবাঈ 'চরিত্রে অভিনয় করে ভূয়সী প্রশংসিত হয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তবে তিনি কি ছবিতে দীপিকা পাড়ুকোন অভিনীত চরিত্রটি করতে চেয়েছিলেন ? প্রিয়াঙ্কার জবাবে মুগ্ধ হয়েছিলেন নেটিজেনরা।

সঞ্জয় লীলা বনশালি পরিচালিত ' বাজিরাও মস্তানি' -তে নিজের অভিনয়ের জন্য ছবি সমালোচকদের অকুন্ঠ তারিফ কুড়িয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। দর্শকও ' কাশীবাঈ '-কে গ্রহণে কার্পণ্য করেনি। তবে এই ছবিতে প্রধান অভিনেত্রী ছিলেন না পিগি চপস। তাঁর চরিত্রটি গুরুত্বপূর্ণ হলেও 'বাজিরাও মস্তানি' - তে ' কাশীবাঈ ' সহ-অভিনেত্রী হিসেবেই ছিলেন। মুখ্যভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোন। 

সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি অ্যাওয়ার্ডের রেড কার্পেট অনুষ্ঠানে প্রিয়াঙ্কা এক সাংবাদিক জিজ্ঞেস করছেন যে 'বাজিরাও মাস্তানি'-তে দীপিকার চরিত্রে অর্থাৎ মুখ্যভূমিকায় অভিনয় করতে চেয়েছিলেন কি না তিনি। জবাবে যা জবাব দিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা,তা নেটিজেনদের মতে এক্কেবারে ' পারফেক্ট !'  প্রিয়াঙ্কার উদ্দেশে ওই সাংবাদিকের প্রশ্ন ছিল,  বাজিরাওয়ের গোটা চিত্রনাট্য শোনার পর অভিনেত্রী পরিচালকের কাছে একবারও দীপিকা অভিনীত 'মস্তানি ' চরিত্রে অভিনয় করার জন্য আবদার করেছিলেন কি না। একমুহূর্ত সময় না নিয়ে ছোট্ট হেসে এই তারকা অভিনেত্রীর জবাব ছিল,' আপনি ছবিটা দেখেছেন ? কাশীবাঈ-কে ভালো লাগেনি ? যদি লেগে থাকে,তাহলে অন্য চরিত্রে অভিনয় করে কী লাভ হতো আমার ?' 

এখানেই না থেমে প্রিয়াঙ্কা আরও জানিয়েছিলেন ওই চরিত্রে অভিনয় করার পর নানান শুভেচ্ছাবার্তা সহ ফুলের বুকে-তে তাঁর বাড়ি ভরে গেছে। মজা করে জানান,অবস্থা এরকম যে তাঁর বাড়ি নাকি  পুরো বাগানে পরিণত হয়েছে।প্রসঙ্গত,২০১৪ সালে করা একটি ট্যুইটে প্রিয়াঙ্কা জানিয়েছিলেন তাঁর কেরিয়ারের অন্যতম কঠিন চরিত্র কাশীবাঈ। শ্যুটিং শেষে বাড়ি ফিরে বিছানায় গা এলানোর পর টের পেতেন ' কাশীবাঈ ' চরিত্রে অভিনয় করে তাঁকে কী ধকলটাই না পোহাতে হচ্ছে। 

বন্ধ করুন