বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জানেন কি অমিতাভকে ফেলুদা 'বানাতে' চেয়েছিলেন সত্যজিৎ?
অমিতাভ বচ্চনকে পর্দায় 'ফেলুদা' হিসেবে দেখতে চেয়েছিলেন স্বয়ং সত্যজিৎ রায়।  ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক
অমিতাভ বচ্চনকে পর্দায় 'ফেলুদা' হিসেবে দেখতে চেয়েছিলেন স্বয়ং সত্যজিৎ রায়।  ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক

জানেন কি অমিতাভকে ফেলুদা 'বানাতে' চেয়েছিলেন সত্যজিৎ?

  • অমিতাভ বচ্চনকে পর্দায় 'ফেলুদা' হিসেবে দেখতে চেয়েছিলেন স্বয়ং সত্যজিৎ রায়। সেইমতো প্রস্তাবও দিয়েছিলেন। আগ্রহী হয়েও শেষমেশ 'ফেলুদা' হিসেবে পর্দায় হাজির হতে পারেননি অমিতাভ।

যতই থাকুক ব্যোমকেশ বক্সী,কিরীটি রায়,জয়ন্ত-মানিক,গোয়েন্দা শবর কিংবা হালের মিতিন মাসি, বস্তুত বাঙালি গোয়েন্দা বলতে আজও কিন্তু আপামর বাঙালি চোখ বুজে প্রথম নাম উচ্চারণ করেন 'ফেলুদা' যাঁর ভালো নাম প্রদোষ চন্দ্র মিত্র। পরিচালক ও লেখক সত্যজিতের সৃষ্টি এই কিংবদন্তি গোয়েন্দার জনপ্রিয়তার সঙ্গে বুঝি শুধু তুলনা টানা যায় স্যার আর্থার কোনান ডয়েলের সৃষ্ট বিশ্ববিখ্যাত গোয়েন্দা চরিত্র 'শার্লক হোমস'-এর। বইয়ের পাতা থেকে সেলুলয়েডের উঠে এসেছে ফেলুদা। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়,শশী কাপুর,সব্যসাচী চক্রবর্তী,আবির চট্টোপাধ্যায় এবং টোটা রায়চৌধুরী এঁরা সবাই কখনও না কখনও ফেলুদা রূপে দর্শকদের সামনে হাজির হয়েছেন বড়পর্দায়। তবে ফেলুদা বড়পর্দায় প্রথমবার উঠে এসেছিল স্বয়ং সত্যজিতের হাত ধরে। তাই পরিচালনা ও 'ফেলুদা'-র চরিত্রে অসামান্য অভিনয়ের গুণে দর্শকদের মনে পাকাপাকি বন্দোবস্ত করে ফেলেছিলেন প্রয়াত বিখ্যাত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তবে জানেন কি অমিতাভ বচ্চনকে 'ফেলুদা' হিসেবে পর্দায় দেখতে চেয়েছিলেন সত্যজিৎ স্বয়ং। সেইমতো প্রস্তাবও গেছিল 'বিগ বি'-র কাছে। তবে কেন অমিতাভ হয়ে উঠলেন না 'ফেলুদা' আসুন,জানা যাক সেই ঘটনাই।

'শতরঞ্জ কী খিলাড়ি ' ছবির ডাবিংয়ে সত্যজিৎ-অমিতাভ ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
'শতরঞ্জ কী খিলাড়ি ' ছবির ডাবিংয়ে সত্যজিৎ-অমিতাভ ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

এ প্রসঙ্গে সত্যজিৎ-পুত্র জনপ্রিয় পরিচালক সন্দীপ রায় জানিয়েছিলেন যে আটের দশকে মাঝামাঝি জনপ্রিয় টেলিভিশন সিরিজ 'সত্যজিৎ রায় প্রেজেন্টস' এর জন্য 'ফেলুদা' ছবি তৈরির তোড়জোড় শুরু হয়। সেইমতো গল্পও বাছা হয়। ঠিক হয় সন্দীপবাবুর পরিচালনায় 'যত কান্ড কাঠমান্ডু'-কে তুলে আনা হবে পর্দায়। ' ওই ছবিতে প্রথম থেকেই ফেলুদা হিসেবে অমিতাভ বচ্চনকে দেখতে চেয়েছিলেন বাবা। ভীষণভাবে চেয়েছিলেন অমিতাভ যেন ফেলুদা চরিত্রে অভিনয় করেন। তার ওপর ছবিটি যেহেতু হিন্দি ভাষায় তৈরি হচ্ছে তাই ওই সময়ে গোটা ভূ-ভারতে অমিতাভের থেকে বেশি জনপ্রিয় আর কোনও বলি-তারকা ছিলেন না। তাই সবদিক ভেবেই বাবা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন', জানালেন সন্দীপ রায়। এরপর অমিতাভের কাছে 'ফেলুদা'হওয়ার প্রস্তাব যায়। সত্যজিৎ-ভক্ত অমিতাভও ভীষণই আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু সেইমুহূর্তে ভারতের ব্যস্ততম অভিনেতা অমিতাভ। হাতে পরপর সব ছবি। ডায়েরির ডেট-এ মারা রয়েছে তালা। অনেক চেষ্টা করেও সময় বের করতে পারেননি অমিতাভ। তাই শেষমেশ 'ফেলুদা' হয়েছিলেন শশী কাপুর। ছবির নাম রাখা হয়েছিল ‘কিসসা কাঠমান্ডু কা’। অমিতাভের ব্যারিটোন গলার স্বর কিন্তু নিজের পরিচালিত একমাত্র হিন্দি ছবি 'শতরঞ্জ কে খিলাড়ি' ছবিতে ব্যবহার করিয়েছিলেন সত্যজিৎ! অমিতাভও সে কাজ করে দুধের স্বাদ একপ্রকার ঘোলেই মিটিয়েছিলেন আর কী।

বন্ধ করুন