বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘কোনও গডফাদার নেই,বলিউডের আসল বহিরাগত আমি’, অকপট ‘দিল্লির ছেলে’ শাহরুখ খান
শাহরুখ খান
শাহরুখ খান

‘কোনও গডফাদার নেই,বলিউডের আসল বহিরাগত আমি’, অকপট ‘দিল্লির ছেলে’ শাহরুখ খান

  • বলিউডে বহিরাগত তকমা কীভাবে ঘোচালেন শাহরুখ? নিজেই জানালেন অভিনেতা।

শূন্য থেকে শুরু.. দীর্ঘ একটা লড়াই। বর্তমানে বলিউডের বাদশা নামে পরিচিত শাহরুখ খান। দু –একটা ছবি করে ব্যাগপত্র গুটিয়ে ফের দিল্লি পাড়ি দেবেন, সেই আশা বুকে বেঁধে একসময় মুম্বই এসেছিলেন শাহরুখ। তা আর হল কই? আরাব সাগর ঘেঁষা মন্নাতেই এখন তাঁর সোনার সংসার। সিমি গেরওয়ালকে দেওয়া পুরনো এক সাক্ষাৎকার সম্প্রতি শাহরুখের ফ্যান পেজ থেকে ভাইরাল হয়েছে। স্ট্রাগল জীবনের শুরুটা কেমন ছিল সেই নিয়ে বলতে দেখা যায় শাহরুখকে।

ভিডিয়োতে শাহরুখকে আউটসাইডার হিসেবে বলতে শোনা যায় সিমিকে এবং তিনি বলেন সেই সময় বেশিরভাগই ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত পরিবার থেকে ছিল। তাঁর কথায় অবশ্য সহমত জানিয়েছেন অভিনেতা। তবে তিনি আরো বলেন, কেউ তাঁকে সেই অনুভূতিটা হতে দেয়নি। আজিজ মির্জা তাঁকে থাকার জন্য বাড়ি দিয়েছিল। নতুন কেউ আসলে সহসা তাঁকে এই ব্যবহার করা হত না। হেমা মালিনি এবং রাকেশ রোশন তাঁর সঙ্গে খুব ভালো ব্যবহার করেছিল। যাঁদের সঙ্গে তিনি ছবি করেছিলেন সকলেই তাঁর সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেছিল।

যদিও অভিনেতা বুদ্ধিদীপ্ত ভাবে বলেন, তাঁর মনে হয়েছিল যেন মুম্বইয়ে সকলে অপেক্ষা করছে তাঁর জন্য। অভিনেতা বলেন, তিনি মাত্র এক বছরের একটু বেশি সময় মুম্বইতে এসেছেন, বেশ কয়েকটি ছবি করে দিল্লি ফেরত চলে যাবেন ভেবেছিলেন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত যেতে পারেননি। তাঁরা ঠিক যেন ‘এসেছ, আপনি এত দিন কোথায় ছিলেন, এসে ব্যান্ডওয়্যাগনে যোগ দিন’।

তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে শোবিজের দুনিয়ায় রয়েছেন শাহরুখ। একাধিক সুপার স্টারের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। প্রত্যেক নবাগতের মতো অমিতাভ বচ্চন, দিলীপ কুমারের সঙ্গে কাজ করার স্বপ্ন দেখতেন শাহরুখ। 

তিনি সিমি গেরওয়ালকে আরো বলেছেন, ‘সবাই আমাকে ভয় দেখিয়েছে। আমি যখন প্রথম কোনো অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করি তখন আমি খুব নার্ভাস হয়ে যাই। কারণ আমি কোনও অভিনেতার থেকে কম নই, তবে এই মানুষগুলিকে দেখে আমি বড় হয়েছি বলে আমি কখনই ভাবিনি যে আমি এদের সঙ্গে কাজ করতে পারব। অমিতাভ বচ্চন এবং দিলীপ কুমার আমার সঙ্গে দেখা করেন, তারা আমাকে আমার গালে ট্যাপ করেন এবং আমার সঙ্গে হাত মেলান। তাদের সঙ্গে বসে থাকতে পারাটা এক দুর্দান্ত অনুভূতি। আমি এটা ভয়-ভীতিজনক বলব না তবে এটি আমার জন্য দারুণ মুহুর্ত ছিল’।

 

বন্ধ করুন