বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বাংলা টেলিভিশনেই বিপন্ন বাংলা ভাষা, দায় কার?
প্রতীকী ছবি

বাংলা টেলিভিশনেই বিপন্ন বাংলা ভাষা, দায় কার?

  • প্রথম সারির বাংলা বিনোদন চ্যানেলগুলি খুললেই শোনা যায় এমন কথ্য ভাষা যা কোনও এক অদৃশ্য যাদুবলে হিন্দি ভাষার বাংলা সংস্করণ হয়ে উঠেছে। এই যেমন ধরুন কোনও এক চরিত্র অপর একটি চরিত্রকে তার সেই কাজের পেছনের কারণ জিজ্ঞেস করলে সংশ্লিষ্ট চরিত্র কথা শুরু করে 'কেন কি' অর্থাৎ কিঁউ কি?

বাংলা টেলিভিশন আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অঙ্গ হয়ে উঠেছে। বিকেল থেকে রাত একের পর এক সিরিয়ালেই মজে শহর থেকে গ্রাম, বাচ্চা থেকে বয়স্ক, নারী-পুরুষ নির্বিশেষে । অথচ প্রতিদিন যে ভাষা আমাদের মনোরঞ্জন করছে তার প্রতি যত্নের অভাব আশঙ্কাজনকভাবে স্পষ্ট। তবুও তা নিয়ে কেউ কোনও প্রশ্ন তোলে না। সমস্যা ঠিক কোথায় নাকি সমস্যা যে আছে তা বুঝতে পারার মত বোধটাই হারিয়ে ফেলছি আমরা।

 প্রথম সারির বাংলা বিনোদন চ্যানেলগুলি খুললেই শোনা যায় এমন কথ্য ভাষা যা কোনও এক অদৃশ্য যাদুবলে হিন্দি ভাষার বাংলা সংস্করণ হয়ে উঠেছে। এই যেমন ধরুন কোনও এক চরিত্র অপর একটি চরিত্রকে তার সেই কাজের পেছনের কারণ জিজ্ঞেস করলে সংশ্লিষ্ট চরিত্র কথা শুরু করে 'কেন কি' অর্থাৎ কিঁউ কি? আবার কোথাও কোথাও শব্দের পূর্ণাঙ্গ উচ্চারণে রয়েছে প্রবল অনীহা‌, যেমন - ' আমাকে বলতে পারতি!' এরকমভাবেই 'পারতিস', 'জানতিস' ইত্যাদি শব্দ দেকে 'স' হারিয়ে গিয়েছে। তবে এর দায় শুধু নতুন প্রজন্মের নয়, সোহাগ সেন সহ একাধিক বড় মাপের শিল্পীও একই ভুল করে চলেছেন।

 পাশাপাশি অনেক বাংলা চ্যানেলেও এখন বাংলাতেই সাবটাইটেলের আকারে স্ক্রিনে ডায়লগ আসতে দেখা যায়‌‌। কিন্তু তার অবস্থা আরও বেসামাল। স্ক্রিনে আসা লেখার বাক্যরচনা, বানান, অর্থ কোনওকিছুরই তল‌ পাওয়া দায়। মানুষের সাধারণ জীবনে বাংলা টেলিভিশনের প্রভাব বিশেষভাবে লক্ষণীয়। সেই জায়গায় বাংলা টেলি বিনোদন জগতে বাংলা ভাষার এমন দৈন্য দশা বাংলার মানুষের জন্য কী বার্তা দিচ্ছে! একবার ভেবে দেখুন চ্যানেল কর্তৃপক্ষগুলি।

বন্ধ করুন