বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Nusrat-Nikhil-Yash: ‘হিন্দুকে বিয়ে করেছো কেন?’ ট্রোলারের কটাক্ষের সপাট জবাব নুসরতের- ‘তুমি ঠিক….’
বিদ্রুপের জবাব নুসরতের (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

Nusrat-Nikhil-Yash: ‘হিন্দুকে বিয়ে করেছো কেন?’ ট্রোলারের কটাক্ষের সপাট জবাব নুসরতের- ‘তুমি ঠিক….’

  • Nusrat Jahan on her inter-regional marriages: ভিন ধর্মীকে কেন বিয়ে করেছেন তিনি? ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রশ্ন শুনে কী বললেন নুসরত জাহান? 

নুসরত জাহান মানেই বিতর্ক! তারকা সাংসদের ব্যক্তিগত জীবন হামেশাই থাকে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে। আর থাকবে নাই বা কেন? নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একটু বেশি খোলামেলা নুসরত। নিখিল জৈনের সঙ্গে রূপকথার ‘বিয়ে’ সেরেছিলেন তবে সেই বিয়ে বৈধই নয়। দুজনের পথ আইনের শিলমোহর-সহ আলাদা হয়েছে, এখন নুসরত যশের ঘরণী। যশের সঙ্গে লিভ ইনে থাকাকালীনই অন্তঃসত্ত্বা হন, গত বছর অগস্টে মা হয়েছেন নুসরত। যদিও ছেলে ইশানকে সবার নজরের আড়ালেই বড় করছেন অভিনেত্রী।

রবিবার রাতে ইনস্টাগ্রামে ফ্যানেদের সঙ্গে একটু আড্ডা দিলেন তাঁদের প্রিয় এনজে। #Askmeanything সেশনের আয়োজন করেছিলেন অভিনেত্রী। সেখানে একদিকে যেমন ভালোবাসার মানুষদের তরফে শুভেচ্ছা পেলেন, তেমনই ট্রোলাররাও সুযোগ নিতে ছাড়েনি কটাক্ষ করবার।

একজন নুসরতকে প্রশ্ন করেন, ‘তুমি অমুসলিমদের বিয়ে করেছো কেন? নাকি তুমি মুসলমান বর পাওয়ার যোগ্য নও?’ ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে এমন প্রশ্ন শুনেই মেজাজ হারান বসিরহাটের সাংসদ। সপাটে জবাব দিয়ে লেখেন, ‘তুমি ঠিক কোন গ্রহের প্রাণী? তুমি কি মানুষ…!’

নুসরতের ইনস্টাগ্রাম স্টোরি 
নুসরতের ইনস্টাগ্রাম স্টোরি 

২০১৯ সালের জুন মাসে তুরস্কের বোদরুমে রাজকীয় বিয়ে সেরেছিলেন নুসরত জাহান। যদিও ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে সেই বিয়ে ভারতের ‘স্পেশ্যাল ম্যারেজ অ্যাক্ট ১৯৫৪’ মেনে হয়নি। দুই পৃথক ধর্মের মানুষ এই আইন অনুসারে বিয়ে করলে তবেই সেটি বৈধ বলে বিবেচ্য হয়। এই কারণেই এই বিয়ে গত বছর খারিজ করে দেয় আলিপুর কোর্ট।

পরবর্তীতে যশ দাশগুপ্তকে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের স্বামী বলেই দাবি করেছেন নুসরত। যদিও তাঁদের বিয়ে নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলেননি এই তারকা জুটি। জানা যায়, ২০২০ সালে এসওএস কলকাতার সেটে কাছাকাছি আসেন দুজনে, এরপর প্রণয় ডোরে বাঁধা পড়েন। ততদিনে নিখিলের সঙ্গে সম্পর্কের পাট চুকিয়েছেন নুসরত। ২০২০ সালের নভেম্বরে নিখিলের আলিপুরের বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান নুসরত, এবং নিজের বালিগঞ্জের ফ্ল্যাটে যশের সঙ্গে লিভ ইন শুরু করেন। সেই বছরের শেষে একসঙ্গে রোড ট্রিপে রাজস্থানে গিয়েছিলেন যশরত। সেই থেকেই নুসতর-যশের প্রেম কাহিনির খবর প্রকাশ্যে চলে আসে। এরপর সম্পর্কের বহু চড়াই-উতরাই পেরিয়ে আপতত সুখী গৃহকোণ দুজনের।

সম্প্রতি থাইল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন ‘যশরত’। সেখান থেকে একের পর এক বোল্ড ছবি পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। বক্স অফিসে নুসরতের শেষ রিলিজ ছিল ‘স্বস্তিক সংকেত’। পরবর্তীকে তাঁকে দেখা যাবে ‘জয় কালী কলকাত্তাওয়ালি’তে। পাশাপাশি যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে ‘মাস্টার মশাই আপনি কিচ্ছু দেখেননি’র শ্যুটিং শেষ করেছেন নুসরত। যদিও ‘চিনে বাদাম বিতর্ক’-এর পর এই ছবির মুক্তি বিশ বাঁও জলে।

বন্ধ করুন