বাড়ি > বায়োস্কোপ > পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবনের দাম নেই? দেশের সেলিব্রিটিদের প্রশ্ন করলেন দেব
পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশা নিয়ে দেশের তারকারা চুপ কেন? প্রশ্ন তুললেন দেব
পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশা নিয়ে দেশের তারকারা চুপ কেন? প্রশ্ন তুললেন দেব

পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবনের দাম নেই? দেশের সেলিব্রিটিদের প্রশ্ন করলেন দেব

  • 'মঙ্গলকামানায় পোস্ট' করা অনেক সোজ কিন্তু আমরা যে সিস্টেমের অংশ সেটাকে প্রশ্ন করা সহজ নয়। দান-ধ্যান তো বাড়ি থেকেই শুরু হয় তাই না? কারুর সেকথা মনে আছে?' ফেসবুকের দেওয়ালে লিখলেন দেব।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন ভারতীয় সেলেবরা। জর্জ ফ্লয়েডকে খুনের ঘটনায় তীব্র ধিক্কার জানিয়ে বিশ্বের অনান্য প্রান্তের মতো এই দেশেরও সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে ট্রেন করেছে #BlackLivesMatter। প্রিয়াঙ্কা থেকে করিনা কিংবা করণ জোহর সকলেই প্রতিবাদ জানিয়েছেন এই নক্কারজনক ঘটনার। অন্যদিকে কেরলে আনারসে বাজি ভরে এক গর্ভবতী হাতিকে মেরে ফেলার ঘটনা সামনে আসার পর থেকেই সমালোচনার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে দেশের তারকারা মাথাব্যাথা নেই কেন? কেন এই শ্রমিকদের মৃত্যু নিয়ে নীরব দেশের সেলেব্রিটিরা? শুক্রবার ফেসবুকের দেওয়ালে এমনই প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল সাংসদ তথা টলিউড তারকা দেব। 

এদিন দেব  ফেসবুকের দেওয়ালে লেখেন,  আজ আমি দেখছি কত ভারতীয় তারকা #BlackLivesMatter বলে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন,এমনকী কেরলের অন্তঃসত্ত্বা হাতির মৃত্যু নিয়েও কত আন্দোলন। দুটো বিষয়ের প্রতি আমার পূর্ন শ্রদ্ধা এবং সমর্থন রয়েছে সত্যি বলতে।

কিন্তু কেন এঁদের একজনও প্রতিবাদের এক লাইনও লিখল না অথবা কোনও হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ড করল না যখন এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে মাইলের পর মাইল পরিযায়ী শ্রমিকদের হাঁটতে দেখল? এই গরমের মধ্যে! রোদে পুড়ে পায়ের চামড়া উঠে গেছে, পায়ে প্লাস্টিকের বোতল জড়িয়ে হাঁটছে পরিযায়ীরা,তবুও প্রতিবাদ কই? ট্রেনের লাইনে ছিন্ন-ভিন্ন হয়ে গেলে তাঁদের দেহ, প্রতিবাদ? 

গুরুত্বপূর্ন নয়? তাঁদের জীবনের কোনও দাম নেই? 

'মঙ্গলকামানায় পোস্ট' করা অনেক সোজ কিন্তু আমরা যে সিস্টেমের অংশ সেটাকে প্রশ্ন করা সহজ নয়। দান-ধ্যান তো বাড়ি থেকেই শুরু হয় তাই না? কারুর সেকথা মনে আছে? 

বেশ বাছাই করা কিংবা সুবিধাজনক প্রতিবাদ।

লকডাউনে ঘরে ফিরতে ট্রেনেই মৃত্যু হয়েছে ৮০ জন পরিযায়ী শ্রমিকের বলছে ভারতীয় রেলওয়ের তথ্য। অন্যদিকে সড়ক ও রেল দুর্ঘটনাতেও প্রাণ হারিয়েছেন ২০০-র বেশি পরিযায়ী শ্রমিক। বেসরকারি মতে এই সংখ্যাটা আরও বেশি। পরিযায়ী শ্রমিকদের দুরাবস্থা নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করলেও সেইভাবে প্রতিবাদের সুর চড়াতে দেখা যায়নি ভারতীয় তারকাদের। আর সেই ‘বাছাই করা’ প্রতিবাদেই আপত্তি জানিয়েছেন দেব।

ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ির পথে হাঁটছেন এক পরিযায়ী শ্রমিক
ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ির পথে হাঁটছেন এক পরিযায়ী শ্রমিক (REUTERS)

প্রসঙ্গত বৃহস্পতিবারই নেপালে আটকে পড়া বাংলার  ৩৬ জন শ্রমিক ঘাটালের তৃণমূল সাংসদের উদ্যোগে নিরাপদে ঘরে ফিরলেন সকলে। এই শ্রমিকদের মধ্যে চারজন মহিলা সহ ৩০ জন ঘাটালের বাসিন্দা। বাকিদের দুইজন হুগলির আরামবাগের এবং বাকি চারজন বাঁকুড়ার বাসিন্দা। জানা গিয়েছে নেপালে বাংলার কয়েকশো শ্রমিক আটকে রয়েছেন। জম্মু-কাশ্মীরেও আটকে রয়েছেন বাঙালি শ্রমিকরা। সকলকেই রাজ্যে ফেরানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে আশ্বাস দিয়েছেন দেব।

বন্ধ করুন