বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > ব্রা না-পরার একাধিক উপকারিতা রয়েছে জানেন কী? এবার নিশ্চিন্তে ব্রা মুক্ত থাকুন
একাধিক গবেষণায় প্রকাশিত ব্রা পরলে ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।
একাধিক গবেষণায় প্রকাশিত ব্রা পরলে ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।

ব্রা না-পরার একাধিক উপকারিতা রয়েছে জানেন কী? এবার নিশ্চিন্তে ব্রা মুক্ত থাকুন

  • এমনকি অনেকে বাড়িতে থাকলেও ব্রা পরা থেকে মুক্ত করতে পারেন না নিজেকে। আবার গরম কালেও নিজেকে ব্রায়ের স্ট্র্যাপে জর্জরিত রাখেন অনেক মহিলাই।

মহিলাদের স্তন যুগল সম্পর্কে নানান মিথ প্রচলিত রয়েছে। স্তনের শেপ ও সৌন্দর্য বজায় রাখার জন্য ব্রা পরার ওপর জোর দেওয়া হয়। এমনকি অনেকে বাড়িতে থাকলেও ব্রা পরা থেকে মুক্ত করতে পারেন না নিজেকে। আবার গরম কালেও নিজেকে ব্রায়ের স্ট্র্যাপে জর্জরিত রাখেন অনেক মহিলাই। তবে মাঝে মধ্যে মনে হতেই পারে যে, ব্রা না-পরতে হলে কত ভালো হত! অনেকে আবার বাড়িতে থাকলে ব্রা খুলে ফেলতে চান? এবার নির্দ্বিধায় তা করতে পারেন। এখানে এমন কিছু বৈজ্ঞানিক প্রমাণ দেওয়া হল, যা জানার পর ব্রা ছাড়া থাকতে দ্বিধা বোধ করবেন না অনেকে।

বিউটি স্টিরিওটাইপ ও ব্রা

ব্রা সম্পর্কে আমাদের সমাজে একাধিক স্টিরিওটাইপ রয়েছে। শুধু সৌন্দর্যই নয়, ব্রাকে আবার সভ্যতার সঙ্গেও জড়িয়ে দেখা হয়। তবে মনে রাখবেন ব্রা শুধুমাত্র একটি অন্তর্বাস। যা পরা বা না-পরা সম্পূর্ণ ভাবে মহিলার ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দ হতে পারে। অনেকে আবার বলে থাকেন যে, ব্রা না-পড়লে স্তন ঝুলে পড়তে পারে বা শেপ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আর কত কী!

স্বাস্থ্যের সঙ্গে কী এর কোনও যোগাযোগ রয়েছে?

একাধিক গবেষণায় প্রকাশিত ব্রা পরলে ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে। তবে এমন কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি যে, ব্রা পরলে সুস্বাস্থ্য বজায় রাখা যায়। বাস্তবে অধিক সময় পর্যন্ত ব্রা পরে থাকলে সাফোকেশন অনুভব করতে পারেন।

ব্রা না-পরার নানান উপকারিতা রয়েছে। জেনে নিন—

স্তনের ত্বক ভালো থাকে- ব্রা পরে থাকলে ত্বকে নোংরা জমে থাকতে পারে এবং ঘামও হতে পারে। এর ফলে রোমছিদ্র বন্ধ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। এমনকি জ্বালাও হতে পারে। বিশেষত ত্বকে জ্বালাও হতে পারে।

রক্ত চলাচল সুষ্ঠু ভাবে হয়- বেশ কয়েক ঘণ্টা লাগাতার ব্রা পরে থাকলে সাফোকেশন হতে পারে। পিঠ ও বুকের মাংসপেশীতে রক্ত চলাচল কম করে দিতে পারে ব্রা। এর ফলে ব্যথা হতে পারে। ব্রা না-পরলে শরীরের ওপরের অংশে রক্ত চলাচল সুষ্ঠু ভাবে হয়।

স্বাস্থ্কর ব্রেস্ট- ব্রা পরে থাকার ফলে স্তনের টিস্যুগুলি শক্ত হতে শুরু করে। এর ফলে স্তনে রক্ত পৌঁছতে পারে না। ব্রা না-পরলে স্তনযুগলে রক্ত সঞ্চার ভালো ভাবে হয়। এর ফলে স্তন সুস্থ থাকে।

৪. ভালো ঘুম আসে- অনেকেই ব্রা খুলে ঘুমাতে ভালোবাসেন। ব্রা খুলে ঘুমালে সাফোকেশন থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। ক্রোনোবায়োলজি ইন্টারন্যাশনাল জার্নালে প্রকাশিত এক সমীক্ষার রিপোর্টে জানা গিয়েছে, ঘুমানোর সময় ব্রা বা প্যান্টির মতো টাইট জামা কাপড় পরলে ঘুমের সময় সমস্যা দেখা দেয়। 

৫. শ্বসন প্রক্রিয়ায় উন্নতি হয়- গরমকালে ব্রা পরে থাকা অত্যন্ত কষ্টকর। এ সময় টাইট বা ওয়ার দেওয়া ব্রা পরলে সাফোকেশন হতে পারে। ব্রা না-পরলে হাল্কা অনুভব করবেন। পাশাপাশি ডায়াগ্রামে কম চাপ পড়ে।

বন্ধ করুন