বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Breastfeeding tips: বুকের দুধের উৎপাদন কমে যাচ্ছে? এই টোটকাগুলি মেনে চললে একরত্তির আর সমস্যা হবে না

Breastfeeding tips: বুকের দুধের উৎপাদন কমে যাচ্ছে? এই টোটকাগুলি মেনে চললে একরত্তির আর সমস্যা হবে না

মাতৃত্বকালীন অবস্থায় কিছু নিয়ম মেনে চললে এই সমস্যা এড়ানো যায় (Freepik)

Breastfeeding tips how to boost breast milk easy home remedies: শিশুর জন্মের পর প্রথম ছয় মাস ওর একমাত্র খাবার হল মাতৃদুগ্ধ। এই সময় বুকের দুধের উৎপাদন ঠিক রাখা জরুরি। বুকের দুধ বাড়ানোর কয়েকটি সহজ উপায়ের হদিশ রইল এই প্রতিবেদনে।

শিশুর জন্মের পর প্রথম ছয়মাস তার একমাত্র খাবার হল মায়ের বুকের দুধ। এই দুধ ওর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তবে অনেক সময় প্রসবের পর ব্রেস্ট মিল্ক কম উৎপাদিত হয়। সেক্ষেত্রে শিশুকে পর্যাপ্ত পরিমাণে বুকের দুধ পান করানো মুশকিল হয়ে দাঁড়ায়। সম্প্রতি এমন সমস্যা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞদের কথায়, মাতৃত্বকালীন অবস্থায় কিছু নিয়ম মেনে চললে এই সমস্যা এড়ানো যায়।

অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি ডায়েট: বুকের দুধ বা ব্রেস্ট মিল্কের উৎপাদন বাড়াতে খাবারের তালিকায় টাটকা শাক-সবজি, পিঁয়াজ, চিকেন, ডিম, দুধ, রসুন, মিট স্যুপ রাখুন। এছাড়াও মরশুমি ফল ও ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার যেমন স্যালমন, ফ্ল্যাক্সবীজ স্তন্যদানকারী মহিলাদের জন্য অত্যন্ত ভালো। এছাড়াও, বুকের দুধের পরিমাণ বাড়ানোর জন্য মেথি, ওটমিল, মৌরি বেশ কার্যকরী।

পর্যাপ্ত পরিমাণ জল পান: মায়ের দুধের প্রায় ৯০ শতাংশই জলের ভাগ। তাই শিশুর স্তনপান করার সময় শরীর হাইড্রেটেড রাখা খুব জরুরি। এই সময় রোজ ছয় থেকে আট গ্লাস জল পান করা জরুরি। এছাড়াও, অন্যান্য তরল যেমন দুধ, জুস, সুপ পান করা জরুরি। এই পানীয়গুলি শরীর হাইড্রেট রাখতে সাহায্য করে।

পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিন: মাতৃত্বকালীন অবস্থায় শরীর ক্লান্ত থাকা স্বাভাবিক। আর ক্লান্ত থাকলে দুধ উৎপাদনের হারও কমে যেতে পারে। সদ্য মায়েদের স্ট্রেস হওয়ার ঘটনা অত্যন্ত স্বাভাবিক, তাই একরত্তিকে সামলানোর পাশাপাশিই সময় বার করে বিশ্রাম নিন। পর্যাপ্ত ঘুম হলে ব্রেস্ট মিল্কের উৎপাদনও অনেকটা বৃদ্ধি পায়।

ঘনঘন স্তন্যপান: স্তনের দুধের পরিমাণ কমে গেলে একরত্তিকে ঘনঘন স্তন্যপান করান। বাচ্চা শিশু যত বেশিবার স্তন্যপান করে, ততই দুধ উৎপাদনের সম্ভাবনা বাড়ে। তাই স্তনপানের সময় প্রতিটি পাশে কমপক্ষে ১০ মিনিট করে ওকে দুধ খাওয়ান। স্তনপানের সময় একরত্তি ঘুমিয়ে পড়লে, ওকে আলতো করে জাগিয়ে দুধ খাওয়ান।

ব্রেস্ট পাম্প: ব্রেস্ট পাম্প স্তনদুগ্ধের উৎপাদনের হার বাড়িয়ে দেয়। প্রত্যেকবার স্তনপান করানো হয়ে গেলে দুই থেকে তিন বার ব্রেস্ট পাম্প করান। তবে এটি ব্যবহার করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

 

বন্ধ করুন