বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Covid-19: কোভিড নিয়ে কেন্দ্রের উদ্বেগ, চিঠি দেওয়া হল ৭ রাজ্যকে

Covid-19: কোভিড নিয়ে কেন্দ্রের উদ্বেগ, চিঠি দেওয়া হল ৭ রাজ্যকে

কোন কোন রাজ্যকে সাবধান করছে কেন্দ্র?

Covid-19: আবার নতুন করে কোভিড নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। কোন কোন রাজ্যকে সতর্ক থাকার কথা বলছে কেন্দ্র?

আবার বাড়ছে কোভিড সংক্রমণ। আর তাই সতর্কতা বাড়াতে চাইছে কেন্দ্র সরকার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক সাতটি রাজ্যকে চিঠি দিয়েছে যাতে এই রাজ্যগুলি আরও বেশি মাত্রায় কোভিড পরীক্ষার উপর জোর দেয়। এর পাশাপাশি টিককরণের ক্ষেত্রেও গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে কেন্দ্র সরকারের তরফে।

দিল্লি, কর্ণাটক, কেরালা, মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, তামিলনাড়ু এবং তেলেঙ্গানাকে চিঠি দিয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ বলেছেন, আগামী সপ্তাহগুলিতে আরও বেশি করে সতর্ক হওয়ার কথা বলেছেন। আগামী কয়েক সপ্তাহে এই রাজ্যগুলিতে বেশ কিছু উৎসব উদ্‌যাপন হওয়ার কথা। সেই সময়ে করোনা সংক্রমণ আরও বাড়তে পারে। তেমনই উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। আর সেই কারণেই রাজ্যগুলিকে আরও সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। (আরও পড়ুন: কোভিড সেরে যাওয়ার পরে ১৫০ দিন পর্যন্ত সাবধান! কেন বলছেন চিকিৎসকরা)

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ বলেছেন, ‘উপসর্গগুলির পরিবর্তনের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। রোগটিতে কী কী বদল হচ্ছে, সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। নির্দেশিকা মেনে জেলাভিত্তিক ইনফ্লুয়েঞ্জা-জাতীয় অসুস্থতা (ILI) এবং SARI কেসগুলি পর্যবেক্ষণ করতে হবে। কোভিডের প্রাথমিক লক্ষণগুলির দিকে খেয়াল রেখে ব্যবস্থা নিতে হবে, যাতে এই রোগটি আবার মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে না পড়ে। কোনও এলাকাকে আলাদা করে গুরুত্ব দিতে হলে, তারও ব্যবস্থা নিতে হবে।’ (আরও পড়ুন: কবে শেষ হবে করোনার যাতনা? চিনের কবি নাকি আদিযুগেই বলে গিয়েছেন, খোঁজ মিলল কবিতায়)

ইতিমধ্যেই দিল্লিতে শনিবার ১৩.৮৪ শতাংশ ক্ষেত্রে কোভিড পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে। নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২,৩১১ জন।

চিঠিতে বলা হয়েছে যে গত সপ্তাহে ভারতে যত নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছে, তার মধ্যে ৮.২ শতাংশই দিল্লির। এদিকে, কেরালায় গত মাসে প্রতিদিন গড়ে ২,৩৪৭ জন এবং মহারাষ্ট্রে ২,১৩৫ জন সংক্রমিত হয়েছেন। (আরও পড়ুন: টাক পড়ে যাচ্ছে, যৌনশক্তি কমে যাচ্ছে, অনেক কিছুর জন্য দায়ী এই অসুখ, বলছে গবেষণা)

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, ‘বাজার, আন্তঃরাজ্য বাস স্ট্যান্ড, স্কুল, কলেজ, রেলওয়ে স্টেশন ইত্যাদির মতো জনবহুল জায়গায় কোভিড-উপযুক্ত আচরণ নিশ্চিত করার জন্য নতুন করে গুরুত্ব দেওয়া দরকার।’

আন্তর্জাতিক যাত্রীদের কোভিড পরীক্ষার পাশাপাশি জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের কথাও বলা হয়েছে চিঠিতে। শনিবার ভারতে ১৮,৬৬৭ টি নতুন কোভিড-১৯ কেস ধরা পড়েছে। তাই ক্রমশ উদ্বেগ বাড়ছে সরকারের।

বন্ধ করুন