বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Cold during pregnancy: গর্ভবস্থায় সর্দিকাশি জ্বরে কাবু? কীভাবে কমাবেন? রইল সহজ কিছু ঘরোয়া টোটকা

Cold during pregnancy: গর্ভবস্থায় সর্দিকাশি জ্বরে কাবু? কীভাবে কমাবেন? রইল সহজ কিছু ঘরোয়া টোটকা

গর্ভাবস্থায় শিশু এবং মায়ের সুস্থ থাকা জরুরি (Freepik)

Cold during pregnancy how to cure cold in pregnancy: শীতকালে গর্ভবতী মায়েদের ঠান্ডা লাগার প্রবণতা বেড়ে যায়। এই সময় ঠান্ডা লাগলে তা শিশুর উপরেও প্রভাব ফেলতে পারে। এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে কিছু ঘরোয়া উপায় বেছে নেওয়া যেতে পারে।

গর্ভাবস্থায় মায়ের বিভিন্ন অসুখবিসুখ হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। এর ফলে গর্ভস্থ শিশুর উপরেও তার প্রভাব পড়ে।এই সময় শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটাই কমে যায়। তার উপর শীতকাল হল সমস্যা আরও বাড়ে। তাই একটু অসাবধান হলেই মুশকিল। শীতে ঠান্ডা লেগে অনেকে গর্ভবতী মহিলা জ্বর, সর্দি ও কাশিতে ভোগেন।

গর্ভাবস্থায় থাকলে যেকোনও ওষুধ খাওয়া যায় না। তাই অনেকে ঘরোয়া টোটকা খোঁজেন।এতে শিশু এবং মায়ের ওপর কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া পড়ে না।

  • হাইড্রেটেড থাকা: গর্ভাবস্থায় সারাদিন হাইড্রেটেড থাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর জন্য প্রচুর জল ও তরল জাতীয় খাবার খেতে হবে। সর্দি-কাশি হলে শরীরে জল কমতে থাকে। তাই এই সময় বেশি করে তরল জাতীয় খাবার ও জল খাওয়া উচিত।জল বুকে কফ জমতে দেয় না। উষ্ণ তরল পান করলে নাক দিয়ে জল পড়া, গলা ব্যথা, হাঁচি এবং কাশির মতো সমস্যাগুলি এড়ানো যায়।
  • আদা: আদার মধ্যে রয়েছে প্রদাহনাশক, ভাইরাস নাশক, ব্যাকটেরিয়ানাশক উপাদান। এছাড়াও, এতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। কাশি, গলা ব্যথা এবং সর্দির কমাতে আদা সাহায্য করে। এক টুকরো আদা সামান্য মধু দিয়ে চিবিয়ে খাওয়া যেতে পারে। এছাড়াও, আদা চা বানিয়ে খেলেও অনেকটা রেহাই পাওয়া যায়।
  • হলুদ: হলুদে রয়েছে কারকিউমিন। এটি ভীষণ শক্তিশালী ভাইরাসনাশক ও প্রদাহনাশক। এর পাশাপাশি এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। হলুদের প্রধান উপাদান অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এর ফলে সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা কমে যায়।
  • চিকেন স্যুপ: চিকেন স্যুপ ঠান্ডা লাগা কমাতে দারুণ কাজ দেয়। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, চিকেন স্যুপ সর্দি-কাশি ও গলা ব্যথার মতো সমস্যা কমিয়ে দেয়।
  • আনারসের সরবত: আনারসও সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা কমায়। এক কাপ আনারসের সরবতে এক চিমটে লবণ, গোলমরিচ এবং এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিয়মিত পান করলেই রেহাই পাওয়া যায়।
  • পর্যাপ্ত ঘুম: গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ঘুম ঠিকমতো না হলেরোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উপর প্রভাব পড়ে। ফলে গর্ভাবস্থায় একের পর এক রোগ লেগেই থাকে। পর্যাপ্ত ঘুম অর্থাৎ ছয় থেকে আট ঘণ্টা টানা ঘুম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এর ফলে রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করাও সহজ হয়।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন