বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Couple hug on a moving scooter: স্কুটারচালক ছেলের কোলে চড়ে বসেছে মেয়ে, ব্যস্ত রাস্তার ভিডিয়ো ভাইরাল

Couple hug on a moving scooter: স্কুটারচালক ছেলের কোলে চড়ে বসেছে মেয়ে, ব্যস্ত রাস্তার ভিডিয়ো ভাইরাল

স্কুটারে চড়ার ভঙ্গিই তাদের ভাইরাল করে দিল নেট দুনিয়ায় (Twitter)

Couple hug on a moving scooter on busy road in Lucknow: ব্যস্ত রাস্তায় একটি স্কুটারের উপর বসে আছে দুইজন। তাদের বসার আজব ভঙ্গিই এবার ঝড় তুলল সোশ্যাল মিডিয়ায়। পুলিশকে জানানোর পর তাদের তরফে বলা হয়, এদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শহরের ব্যস্ত রাস্তা। যানজটের মধ্যে দিয়েই কোনওরকমে এগিয়ে চলেছে সমস্ত গাড়ি। তার মধ্যেই হঠাৎ দেখা মিলল একটি স্কুটারের। উপরে আরোহী দুই প্রেমিক প্রেমিকা। তবে স্কুটারে চড়ার ভঙ্গিই তাদের ভাইরাল করে দিল নেট দুনিয়ায়। একইসঙ্গে জুটল একগাদা তিরস্কার। লক্ষ্ণৌয়ের ব্যস্ত রাস্তায় মঙ্গলবার সন্ধ্যেয় দুই প্রেমিক প্রেমিকাকে চলন্ত স্কুটারে জড়িয়ে বসে থাকতে দেখা গেল। 

এরই ভিডিয়ো এদিন ভাইরাল হয় সমাজ মাধ্যমে। তারপরেই ওঠে তীব্র সমালোচনার ঝড়। জার্নালিস্ট শরিখ নামের এক প্রোফাইল থেকে এদিন একটি ভিডিয়ো শেয়ার করা হয়। তাতে দেখা যায়, লক্ষ্ণৌয়ের একটি ব্যস্ত রাস্তা দিয়ে এগিয়ে চলেছে একটি স্কুটার । তার আরোহী যুগল পরস্পরকে জড়িয়ে বসে আছে। তবে জড়িয়ে ধরার ভঙ্গিই মূলত সমালোচনার ঝড় তুলে দিয়েছে। ভিডিয়োতে দেখা যায়, মেয়েটি চালক ছেলেটির কোলে উঠে বসে আছে। একইসঙ্গে ভালো করে জড়িয়ে ধরেছে গলা। ভিডিয়োটি পোস্ট করে শরিক ক্যাপশনে লেখেন, লক্ষ্ণৌয়ের হজরতগঞ্জে এবার এমন নির্লজ্জ দৃশ্যও দেখা গেল। শুধুই ভিডিয়োটি পোস্ট করে ক্ষান্ত হননি পোস্টদাতা। একইসঙ্গে পোস্টে মেনশন করেন লক্ষ্ণৌ পুলিশ, উত্তরপ্রদেশ পুলিশ, ডিসিপি ট্রাফিক ও ডিসিপি সেন্ট্রাল ট্রাফিককে।

এমন ভিডিয়ো দেখেই প্রত্যুত্তর আসে পুলিশের তরফেও। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ ভিডিয়োটি দেখে সরাসরি রিপ্লাই করে মেনশন করেন লক্ষ্ণৌ পুলিশ ও লক্ষ্ণৌ ট্রাফিককে। সংশ্লিষ্ট বিভাগকে জরুরি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়। এর কিছুক্ষণ পর রিপ্লাই আসে লক্ষ্ণৌ পুলিশের তরফে। জানানো হয়, এই বিষয়ে ওয়াকিবহাল কর্তৃপক্ষকে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ভিডিয়োটি পোস্ট করার পর থেকে বহুবার রিটুইট করা হয়। পাশাপাশি ট্রেন্ডিং ভিডিয়োতেও উঠে আসে এটি। এর রিপ্লাইয়ে একাধিক ব্যক্তিদের বিষয়টির নিন্দা করতেও দেখা গিয়েছে। এক ব্যবহারকারী লেখেন, এরা চারিদিকে আবর্জনা ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে। একইসঙ্গে কঠোর শাস্তি দেওয়ার দাবি জানান তিনি। আরেক ব্যবহারকারী লেখেন, একদম ঠিক কথা বলেছেন শরিক।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

 

বন্ধ করুন