বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Skin Aging: চল্লিশ পেরোতে না পেরোতেই বলিরেখা পড়ে গিয়েছে? কারণ জানলে চমকে যাবেন
অল্প বয়সে কেন বলিরেখা পড়ে?

Skin Aging: চল্লিশ পেরোতে না পেরোতেই বলিরেখা পড়ে গিয়েছে? কারণ জানলে চমকে যাবেন

  • Reasons Behind Skin Aging: অল্প বয়সেই চোখের নিচে বা পাশে, কপালে বলিরেখা পড়ে গিয়েছে? কেন চল্লিশ পেরোতে না পেরোতেই বয়সের ছাপ পড়ছে জানেন?

সবেই চল্লিশের কোঠা পেরিয়েছেন আর এর মধ্যেই কপালে, চোখের নিচে বলিরেখা পড়ে গিয়েছে? মূলত বলিরেখার কারণেই বয়সের ছাপ মুখে ফুটে ওঠে। আমাদের যত বয়স বাড়ে তত ত্বকের নমনীয়তা কমতে থাকে, ত্বকে আর তখন তেমন কোলাজেন এবং হাইলুরনিক অ্যাসিড তৈরি করতে পারে না। এর কারণেই বলিরেখা পড়তে শুরু করে।

কিন্তু অল্প বয়সে বা দ্রুত কেন বলিরেখা পড়ে জানেন? দেখে নিন কারণগুলো -

১. মানসিক চাপ: মানসিক চাপের কুপ্রভাব ভীষণ ভাবে আমাদের ত্বকের উপর পড়ে। এবং এটার কারণে বয়সের ছাপ দ্রুত আমাদের মুখে পড়ে যায়। স্ট্রেসের কারণে এক ধরনের হরমোন বেশি উৎপাদন হয় আমাদের ত্বকে যার কারণে ত্বক তার নমনীয়তা হারায় এবং ক্রমেই বলিরেখা পড়ে যায়।

২. ধূমপান: অতিরিক্ত ধূমপানের কারণে বয়সের আগেই বুড়িয়ে যেতে পারেন। যাঁরা ধূমপান করেন তাঁদের অনেক তাড়াতাড়ি এবং বেশি বলিরেখা পড়ে যাঁরা ধূমপান করেন না তাঁদের তুলনায়। এমনটাই গবেষণায় দেখা গিয়েছে। ধূমপান ত্বকের হাইড্রেশন লেভেলকে ভীষণ রকম প্রভাবিত করে। এছাড়া এটি ত্বকের কোলাজেন লেভেল এবং নমনীয়তা কমিয়ে দেয়। যার ফলে দ্রুত বয়সের ছাপ পড়ে যায় ত্বকে।

৩.ইউভি রশ্মি: অতিরিক্ত সূর্যের আলোয় থাকলে তার ইউভি রশ্মির কারণে দ্রুত বয়সের ছাপ পড়তে পারে। এই ইউভি রশ্মি আমাদের ত্বকের ক্ষতি করে এবং কোলাজেন উৎপাদন কমায়। যার কারণে দীর্ঘক্ষণ সূর্যের আলোয় থাকা মানেই ত্বকের ক্ষতি হওয়া।

৪. ইনফ্রারেড আলো: আপনি যত ইনফ্রারেড আলোর মধ্যে থাকবেন তত বেশি আপনার ত্বকের ক্ষতি হবে। কারণ এই ধরনের আলো আমাদের ত্বকের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয় যা টিস্যুর ক্ষতি করে। এবং দীর্ঘদিন এই আলোর মধ্যে থাকলে ত্বকের পাকাপাকি ক্ষতি হয় এবং বলিরেখা দেখা দেয়।

উপরোক্ত কারণগুলোর জন্যই আমাদের ত্বক তাড়াতাড়ি বুড়িয়ে যায়। সময়ের আগেই মুখে বয়সের ছাপ পড়ে যায়। তাই সতর্ক থাকুন এবং এই জিনিসগুলোর থেকে নিজেকে যতটা পারুন দূরে রাখুন। ত্বকের যত্ন নিন তাকে ভালো রাখার জন্য।

বন্ধ করুন