বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > মাইক্রোওয়েভে কোন কোন খাবার গরম করবেন না? করলে কী কী বিপদ হতে পারে
মাইক্রোওয়েভে কোন কোন খাবার গরম করবেন না?

মাইক্রোওয়েভে কোন কোন খাবার গরম করবেন না? করলে কী কী বিপদ হতে পারে

  • মাইক্রোওয়েভ এখন অনেকের বাড়িতেই থাকে। কিন্তু এতে সব ধরনের খাবার গরম করতে নেই। তাতে নানা ধরনের ক্ষতি হতে পারে। 

মাইক্রোওয়েভ রান্নার কাজটি অনেকটাই সহজ করে দিয়েছে। কেবল রান্নাই নয় চটজলদি খাবার গরম করা বা বেকিং করার ক্ষেত্রেও খুবই সহায়ক এই মাইক্রোওয়েভ । কিন্তু সব খাবার কি ওভেনে গরম করে খাওয়া উচিত? কোন কোন খাবারের ক্ষেত্রে মাইক্রোওয়েভ ব্যবহার কোনও ভাবেই উচিত নয় দেখে নেওয়া যাক।

সেদ্ধ ডিম: খোসাসহ সেদ্ধ ডিম কখনও মাইক্রোওয়েভর ওভেনে গরম করা ঠিক নয়। কারণ তাপে খোসা ভেঙে গিয়ে ওভেন নোংরা হতে পারে। গরম করতে হলে খোসা ছাড়িয়ে ও ডিমের গায়ে ছুরি দিয়ে কেটে দিলে ডিম ফেটে যাওয়ার ভয় থাকে না।

সবজি: শাকসবজি কখনও ওভেনে গরম করবেন না। কারণ তাপের বিকিরণের ফলে সবজির পুষ্টিগুণ সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

জল: কোনও কাঁচের পাত্রে বা সেরামিকের পাত্রে মাইক্রোওয়েভে জল গরম করা ঠিক নয়। কারণ জল অনেকটা গরম হয়ে গেলেও বুদবুদ তৈরি হয় না। ফলে কতটা গরম হয়েছে বোঝা যায় না।

চিপস, ওয়েফার: এই ধরনের খাবারগুলি মাইক্রোওয়েভে এমনি গরম করা হলে তা নরম হয়ে যায়। এই ধরনের খাবার মুচমুচে রাখার উপায় হল তেল ও মশলা ছিটয়ে বেক করা।

ঠান্ডা মাংস: ফ্রিজ থেকে ঠান্ডা মাংস বার করে তা মাইক্রোওয়েভে গরম করা উচিত নয়। তা শরীরের পক্ষে যথেষ্ট ক্ষতিকর। এতে ব্যাকটিরিয়া সংক্রমনের ঝুঁকি বেড়ে যায়। ঠান্ডা মাংস গরম করার সবচেয়ে নিরাপদ উপায় হল, ঘরের তাপমাত্রা নিয়ে এসে তা গরম করা।

তেল ও তৈলাক্ত খাবার: তেল বা তৈলাক্ত খাবারে পুষ্টিগুণ ধরে রাখতে হলে এই ধরনের খাবার কখনও মাইক্রোওয়েভে গরম করা ঠিক নয়। কারণ তেলের একটি স্মোক পয়েন্ট থাকে। এর থেকে বেশি গরম হলে খাবারের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

বন্ধ করুন