বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > বাড়িতে থাকলে সানস্ক্রিন মাখেন না? দেখে নিন কীভাবে ক্ষতি করছেন ত্বকের
বাড়িতেও ব্যবহার করুন সানস্ক্রিন (ছবি-সংগৃহিত)
বাড়িতেও ব্যবহার করুন সানস্ক্রিন (ছবি-সংগৃহিত)

বাড়িতে থাকলে সানস্ক্রিন মাখেন না? দেখে নিন কীভাবে ক্ষতি করছেন ত্বকের

আপনি বাড়ির ভিতরে থাকলে রোদ থেকে সুরক্ষিত থাকেন বটে, কিন্তু বাঁচতে পারেন না সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে।

বাড়িতে বসেই কাজ করছেন। প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছেন না বাড়ি থেকেও। আর যার ফলে মাখা হচ্ছে না সানস্ক্রিনও! জানেন কী, ত্বকের কত বড় ক্ষতি করছেন। বাড়িতে থাকলেও দিনের বেলা মাখতে হবে সানস্ক্রিন। নয়তো রোজকার ক্লিনজিং-টোনিং-ময়েশ্চারাইজিং বৃথা যাবে। ট্যান পড়বে ত্বকে। 

নিশ্চয়ই ভাবছেন বাড়ির ভিতরে আবার রোদ কোথায়! আসলে আপনি বাড়ির ভিতরে থাকলে রোদ থেকে সুরক্ষিত থাকেন বটে, কিন্তু বাঁচতে পারেন না সূর্যের আলট্রা ভায়োলেট রে বা অতিবেগুনি রশ্মি থেকে। সে ঘরের ভিতরে ঢুকেও আপনার একইভাবে ক্ষতি করে! 

খোলা জানলা আর গ্রিলের ফাঁক দিয়ে ঘরে প্রবেশ করে ইউভি-এ ও ইউভি-বি রশ্মি। এমনকী, কালো কাচের জানলা ইউভি-এ রশ্মিকে আটকাতে পারলেও, দমাতে পারে না ইউভি-বিকে। যার থেকে মুখে ট্যান পড়া, বলিরেখা, স্কিন খসখসে হয়ে যাওয়ার মতো নানা সমস্যা দেখা যায়। তাই ঘরে থাকলেও সকালে ঘুম থেকে উঠে আর স্নানের পর অবশ্যই সানস্ক্রিন লাগান। 

এই একই কারণে মেঘলা দিনেও সানস্ক্রিন লাগাবেন। আকাশ মেঘলা থাকলে রোদের তাপ না থাকায় এনেকেই ভুলে যান সানস্ক্রিন লাগাতে। কিন্তু এতেও ক্ষতি হয় ত্বকের! তাই এবার থেকে আকাশ পরিষ্কার হোক বা মেঘলা, আর আপনি বাড়ির ভিতরে থাকুন বা বাইরে, সবসময় উচ্চ এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন মেখে থাকতে ভুলবেন না!

বন্ধ করুন