বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Heatwave ill effect on health: তাপপ্রবাহ স্বাস্থ্যের ওপর কোন ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে, কীভাবে বাড়ায় অসুস্থতা? কিছু টিপস
তাপপ্রবাহ শরীরকে কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে তোলে, দেখে নিন। (ANI Photo) (Prateek Kumar)

Heatwave ill effect on health: তাপপ্রবাহ স্বাস্থ্যের ওপর কোন ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে, কীভাবে বাড়ায় অসুস্থতা? কিছু টিপস

  • তাপপ্রবাহ প্রথমেই শরীরে ডিহাইড্রেশনের জন্ম দেয়। ফলে হিট ক্র্যাম্প বা তাপের ফলে শরীরে বাড়ে যন্ত্রণা। এছাড়াও শরীরে আসে ক্লান্তি অনেক সময় তা বেড়ে গিয়ে হিটস্ট্রোকের জন্ম দেয়।

ঝড় বৃষ্টির ঠান্ডা হাওয়ার পরও রেহাই নেই দাবদাহ থেকে। রোদের তেজ সকাল থেকেই প্রবল অস্বস্তিতে রেখেছে বাংলার বিভিন্ন এলাকার মানুষকে। তাপপ্রবাহের জেরে বাংলার বিভিন্ন জায়গায় হিট স্ট্রোকে পর পর মৃত্যুর খবর উঠে আসছে। এদিকে, উত্তর ভারতের একাধিক এলাকায় টানা তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে আইএণডির তরফে জানানো হচ্ছে যে তাপপ্রবাহ কীভাবে শরীরের ক্ষতি করতে পারে, আর তা কীভাবে অসুস্থতার দিকে নিয়ে যায়। একই সঙ্গে সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় নিয়েও একাধিক টিপস দিয়েছে আইএমডি।

তাপপ্রবাহ থেকে কী কী অসুস্থতা দেখা দেয়?

আইএমডির দেওয়া তথ্য বলছে, তাপপ্রবাহ প্রথমেই শরীরে ডিহাইড্রেশনের জন্ম দেয়। ফলে হিট ক্র্যাম্প বা তাপের ফলে শরীরে বাড়ে যন্ত্রণা। এছাড়াও শরীরে আসে ক্লান্তি অনেক সময় তা বেড়ে গিয়ে হিটস্ট্রোকের জন্ম দেয়। তাপপ্রবাহের জেরে যে সমস্ত শারীরিক সমস্যা তৈরি হয় তার উপসর্গ দেখে নেওয়া যাক।

হিট ক্র্যাম্প হলে কী হতে পারে?

গরমে ভীষণ কাজকর্ম করলে এই হিট ক্র্যাম্প হতে পারে। এরফলে শরীরে বিভিন্ন জায়গায় ফোলাভাব ও অজ্ঞান হয়ে পড়ে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা যায়। সঙ্গে থাকে জ্বর। যা ১০২ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত উঠে যেতে পারে। আরও পড়ুন-তাপপ্রবাহের অবসান কোন মাসে? ভারতে 'হিটওয়েভ প্রন' এলাকা নিয়ে IMD কী বলছে?

তাপপ্রবাহের জেরে ক্লান্তি

তাপ লেগে প্রবল মাথার যন্ত্রণা সমেত বমিবমিভাব, ক্লান্তি শরীরে দেখা দিতে থাকে। এছআড়াও পেশিতে ব্যথা, ঘাম প্রবল পরিমাণে হতে থাকে। ফলে শরীরে স্বাভাবিক ছন্দ নষ্ট হয়। শরীরে হতে থাকে নানান ক্ষতি।

হিট স্ট্রোক হলে কী কী হতে পারে?

গরম লেগে বা প্রবল তাপের ফলে হিটস্ট্রোকের সমস্যা বহুক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে। এরফলে জ্বর ১০৪ ডিগ্রি ফারেনহাইটে উঠে যায়। অনেক সময় মাথা ধরা থাকে, বহু ক্ষেত্রে রোগী কোমায় চলে যান।

তাপপ্রবাহ থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায়

-তাপপ্রবাহ চললে দুপুর ১২ টা থেকে ৩ এর মধ্যে রোদে বের হবেন না।

-তেষ্টা না পেলেও জল পান করতে থাকুন।

-হালকা জামাকাপড়, টুপি, সানগ্লাস ছাড়াও বের হওয়ার সময় খেয়ার রাখুন পা ঢাকা জুতোর জায়গায় পা খোলা চটি পড়ে যেতে।

-রোদ থেকে অসে মদ্যপান থেকে দূরে থাকুন। এছাড়াও রোদ থেকে ছায়ায় গিয়ে চা ,কফি, সফ্ট ড্রিঙ্ক পান থেকে বিরত থাকুন।

-পারলে ভিজে কাপড় দিয়ে মাঝে মাঝে মুছে নিন গলা, ঘাড়, মুখ ও কান।

-পান্তাভাত, লেবুর জল, ঘোল অবশ্যই খাবার তালিকায় রাখুন। এছাড়াও ওআরএস এই সময় জরুরি।

-প্রয়োজন মতো দিনে গায়ে একাধিক বার জল ঢেলে গা ধুয়ে নিতে পারেন, তাপ থেকে মুক্তি পেতে।

 

বন্ধ করুন