বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > New Symptoms of Omicron: শ্বাসের সমস্যা বা জ্বর নয়, ওমিক্রন হলে এই সমস্যাটি হতে পারে সবচেয়ে বেশি
ওমিক্রনের নতুন উপসর্গ (ফাইল ছবি)
ওমিক্রনের নতুন উপসর্গ (ফাইল ছবি)

New Symptoms of Omicron: শ্বাসের সমস্যা বা জ্বর নয়, ওমিক্রন হলে এই সমস্যাটি হতে পারে সবচেয়ে বেশি

  • জ্বর, শ্বাসকষ্ট বা গলাব্যথার পাশাপাশি এবার অন্য একটি উপসর্গের কথা বলছেন চিকিৎসকরা। নজর রাখতে বলছেন সেদিকে।  

ওমিক্রন করোনার অন্য রূপগুলির থেকে আলাদা। অত্যন্ত দ্রুত ছড়ায় এটি। এর উপসর্গের ধরনও কিছুটা আলাদা। কী করে বুঝবেন ওমিক্রন হয়েছে কি না? কোন কোন উপসর্গের দিকে নজর রাখবেন?

এখনও পর্যন্ত কয়েকটি উপসর্গের দিকে খেয়াল রাখতে বলতেন চিকিৎসকরা। সেগুলি হল:

  • গলাব্যথা
  • ক্লান্তি
  • মাথাব্যথা
  • হাল্কা জ্বর
  • গায়ে-হাতে-পায়ে ব্যথা

মোটামুটি এই উপসর্গগুলি থাকলেই ওমিক্রন সংক্রমণ হয়েছে বলে সন্দেহ করতেন তাঁরা। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, যাঁদের খুব মৃদু উপসর্গ হচ্ছে, তাঁদের ক্ষেত্রে এই সমস্যাগুলি ততটা প্রবলভাবে দেখা যাচ্ছে না। তাহলে কী করে বুঝবেন ওমিক্রন হয়েছে কি না? নতুন একটি উপসর্গের কথা বলছেন চিকিৎসকরা। 

সম্প্রতি হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশের নামজাদা চিকিৎসক এবং ফুসফুস-বিশেষজ্ঞ মনোজ গোয়েল বলেছেন, শুধুমাত্র শ্বাসযন্ত্র নয়, ওমিক্রন শরীরের অন্য অঙ্গেও একই রকম ভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। এই তালিকায় একেবারে প্রথমেই রয়েছে পেট। তাঁর কথায়, ‘ওমিক্রন সংক্রমণ হলে অনেকেরই পেটব্যথা, বমি, বমি-বমি ভাব, খিদে কমে যাওয়া, পেটের গণ্ডগোলের মতো সমস্যা হচ্ছে। তার কারণ ওমিক্রনের জীবাণু সরাসরি পেটের মিউকাসের উপর প্রভাব ফেলছে।’

ওমিক্রন চেনার জন্য তাই এই উপসর্গটির দিকেই নজর রাখতে বলছেন তিনি। যাঁদের টিকার দু’টি ডোজ নেওয়া হয়েছে, তাঁদের অনেকেরও এই সমস্যাটি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

সাধারণ জ্বর আর ওমিক্রনের অনেকগুলি উপসর্গই এক। তাই এই পেটের গণ্ডগোল দিয়ে ওমিক্রনকে আরও সহজে চিহ্নিত করা যায়, বলেও জানাচ্ছেন মনোজ গোয়েল। পেটের এই সমস্যা দেখা দিলে কয়েকটি নিয়মও মেনে চলতে বলেছেন তিনি:

  • সব্জি, মাংস বা মাছ রান্না করার আগে ভালো করে ধুয়ে নিন। তাতে যেন কোনও ময়লা না থেকে যায়।
  • তাজা খাবার খান। বাসি খাবার এড়িয়ে চলুন।
  • চেষ্টা করুন, অন্যের সঙ্গে খাবার ভাগ করে না খেতে। খুব কাছের মানুষের সঙ্গেও খাবার ভাগ করে খাবেন না এই সময়ে।
  • ফল খাওয়ার সময়ে সতর্ক হন। রাস্তায় বিক্রি হওয়া কাটা ফল একেবারে খাবেন না।
  • বেশি ভাজাভুজি বা জাংক খাবার খাবেন না। টিকার দু’টি ডোজ হয়ে গেলেও বাইরের খাবার এড়িয়ে চলুন।

বন্ধ করুন