বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > খাওয়ার পর-পরই আপনার বাথরুম যাওয়ার অভ্যাস রয়েছে? তাহলে অবশ্যই এই বিষয়গুলো জানুন
খাওয়ার পরেই মল ত্যাগের প্রয়োজন কেন পড়ে?
খাওয়ার পরেই মল ত্যাগের প্রয়োজন কেন পড়ে?

খাওয়ার পর-পরই আপনার বাথরুম যাওয়ার অভ্যাস রয়েছে? তাহলে অবশ্যই এই বিষয়গুলো জানুন

  • কেন খাওয়ার পরেই মল ত্যাগের প্রয়োজন পড়ে? জেনে নিন এখনই। 

ভাবুন! আপনি একটি পার্টিতে গিয়েছেন। আপনার পছন্দের অনেক ধরনের খাবার আছে, কিন্তু আপনি সেই খাবারগুলো খেতে ভয় পাচ্ছেন। এর কারণ হল, খাবার খাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই আপনার টয়লেটের দিকে দৌড়তে হবে। যারা এই সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, তাঁদের জন্য এই পরিস্থিতি সত্যি ভয়াবহ। এই সমস্যা আরও ভয়াবহ হয়ে ওঠে যখন খাবার খাওয়ার পরেই বাথরুম ব্যবহারের জন্য আপনার ওজন কমতে শুরু করে। অনেকে আবার টয়লেট যাওয়া এড়াতে ডায়েটেও কাটছাট করা শুরু করেন। এমন পরিস্থিতিতে এমন কিছু ব্যবস্থা রয়েছে, যার দ্বারা আপনি এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। আসুন, আগে জেনে নিই এই সমস্যা কী ও কেন হয়--

এই সমস্যার নাম কী

ডাক্তারি পরিভাষায় এটিকে গ্যাস্ট্রো কলিক রিফ্ল্যাক্স বলে। এক্ষেত্রে খাবার খাওয়ার পরেই মল ত্যাগের প্রয়োজন পড়ে। যাদের মল চেপে রাখার অভ্যাস রয়েছে, তাঁদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। 

কী করবেন

  • খাবার ভালো করে চিবিয়ে খান।
  • ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খান।
  • ৩-৪ ঘণ্টা পর পর খাবার খান। ছোট ছোট মিলে ভাগ করে নিন আপনার রোজের খাবার।

ডায়েটে এই জিনিসগুলি অন্তর্ভুক্ত করুন

এই সমস্যা এড়াতে আপনার ডায়েটে ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার রাখুন। ফাইবার সমৃদ্ধ খাবারের মধ্যে রয়েছে নাশপাতি, আপেল, মটর, ব্রকলি, গোটা শস্য, মটরশুটি এবং ডাল। এছাড়াও দই, সালাদ, আদা, আনারস, পেয়ারা, পার্সলে ইত্যাদি খাবারও খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন। এছাড়া কলা, আম, পালংশাক, টমেটো, বাদামের মতো খাবারে পটাশিয়ামের পরিমাণ বেশি, তাই এই খাবারগুলিও এক্ষেত্রে উপকারী।

বন্ধ করুন