বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Heart Block after Pfizer Booster Vaccination: বুস্টার ডোজ নেওয়ার ফলে হার্ট ব্লক! ভয়ের কারণ আছে কি? কী বলছেন বিজ্ঞানীরা
করোনার বুস্টার টিকা নেওয়ার ফলে হার্ট ব্লক ধরা পড়েছে একজনের। 

Heart Block after Pfizer Booster Vaccination: বুস্টার ডোজ নেওয়ার ফলে হার্ট ব্লক! ভয়ের কারণ আছে কি? কী বলছেন বিজ্ঞানীরা

  • করোনার বুস্টার টিকা নেওয়ার পরে Heart Block ধরা পড়েছে ৫৭ বছরের এক ব্যক্তির শরীরে। এ বিষয়ে কী বলছেন বিজ্ঞানীরা?

করোনার বুস্টার টিকা কতটা নিরাপদ? এখনও পর্যন্ত পাওয়া পরিসংখ্যান বলছে, করোনার হাত থেকে বাঁচতে টিকাই সবচেয়ে কার্যকর রাস্তা। কিন্তু এই টিকার প্রভাব শরীরে কেমন পড়বে, তা নিয়ে রীতিমতো সন্দেহ আছে অনেকের মনেই। সেই সন্দেহ আরও একটু উস্কে দিল সাম্প্রতিক ঘটনা।

ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকায়। ৫৭ বছরের এক ব্যক্তি কোভিডের বুস্টার টিকা নেওয়ার পরে তাঁর শরীরে হার্ট ব্লক ধরা পড়েছে।

চিকিৎসকরা বলেছেন, ওই ব্যক্তির Intermittent complete heart block-এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। তার সঙ্গে রয়েছে আরও একটি সমস্যা। চিকিৎসার পরিভাষায় যাকে বলা হয়েছে ventricular standstill। আর এ সব ক’টিই হয়েছে করোনার বুস্টার টিকা নেওয়ার পরে।

কতটা বিপজ্জনক এই হার্ট ব্লক?

চিকিৎসকরা বলেছেন, এটি Second-degree heart block। এক্ষেত্রে হৃদযন্ত্রে সিগনাল যায়, তার গতি ধীরে ধীরে কমে আসে। কিংবা একবার কমে একবার বাড়ে। এটি Third-degree heart block-এ মতো ভয়ঙ্কর না হলেও ঠিক সময়ে চিকিৎসা না হলে থেমে যেতে হৃদযন্ত্র।

তবে কি বুস্টার টিকা নিরাপদ নয়?

যাঁর ক্ষেত্রে এমন উদাহরণ পাওয়া গিয়েছে, তিনি আমেরিকায় Pfizer কোম্পানির বুস্টার টিকা নিয়েছিলেন। যদিও বিজ্ঞানীদের মত, তার মানেই যে এই কোম্পানির বুস্টার টিকা নিলেই এমন হবে— তা বলার কোনও অর্থ হয় না। কারণ এখনও পর্যন্ত একজনের ক্ষেত্রেই এই ঘটনা ঘটেছে।

ভারতে এমন কোনও ঘটনা ঘটেছে কি?

এখনও পর্যন্ত পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বলা যায়, ভারতে টিকা বা বুস্টার টিকার কারণে হৃদরোগে কেউ আক্রান্ত হয়েছেন— তেমন কোনও উদাহরণ নেই। সরকারের তরফেও বলা হয়েছে, টিকা সম্পূর্ণ নিরাপদ। তাই ভারতীয় টিকা নেওয়া যেতেই পারে। তাতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে বড় বিপদের আশঙ্কা কম। এখনও পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অন্তত তেমনটিই বলছে।

বন্ধ করুন