বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > ব্যথায় গরম জলের সেঁক দিচ্ছেন নাকি? এতে লাভের বদলে ক্ষতি হচ্ছে না তো

ব্যথায় গরম জলের সেঁক দিচ্ছেন নাকি? এতে লাভের বদলে ক্ষতি হচ্ছে না তো

ব্যথায় গরম জলের সেঁক দিলে কী হয়?

ব্যথায় গরম জলের সেঁক কতটা কাজের ? তা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের একাংশ প্রশ্ন তুলছেন।

ব্যথা পেলে আমরা তা থেকে মুক্তি পেতে নানান উপায় খুঁজি। অনেকে নেন ঠাণ্ডা জল আবার অনেকে ব্যবহার করেন বরফের প্রলেপ। আর কেউ কেউ গরম জলের সেঁক নিয়ে থাকি।

ব্যথায় গরম জলের সেঁক কতটা কাজের ? তা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের একাংশ প্রশ্ন তুলছেন।

ব্যথা পেলেই আমরা গরম জলের সেঁক বা হট প্যাক দেই। এটা অনেক বড় একটা ভুল। আঘাতজনিত ব্যথায় প্রথম দিকে গরম সেঁক দিলে ব্যথা এবং ফোলা দুটোই বেড়ে যাবে।

কারণ গরম দিলে রক্তনালিগুলো প্রসারিত হয়ে আরও বেশি রক্ত এসে আঘাতলাগা অংশটি অনেক বেশি ফুলে যায়, ফলে ইনফ্লামেশন আরও বেড়ে যায়। অর্থাৎ নিজের ব্যাথা নিজেই বাড়ালেন।

ব্যাথা পেলে কী কী করণীয়?

ব্যথা পাওয়ার সঙ্গে বরফ সেঁক করা উচিত। বরফকে অবশ্যই কাপড় দিয়ে মুড়িয়ে দিতে হবে। অথবা আইস জেল প্যাক ব্যবহার করা যেতে পারে। ২০-৩০ মিনিট বরফ দিতে পারেন। প্রতিদিন ৪ বার করে, প্রথম ৩ দিন।

পরে অবস্থা অনুযায়ী গরম জলের সেঁক দিতে পারেন, যদি ফোলা না থাকে। জয়েন্ট বা টিস্যু ফোলা থাকলে অবশ্যই বরফ দেওয়া উচিত।

ব্যাথায় গরম জল দিলে সাময়িক আরাম পাওয়া গেলেও ফোলা ও ব্যাথা উভয়ই বেড়ে যেতে পারে। সেই কারণে ফোলা ও ব্যাথায় বরফ দেওয়াই শ্রেয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন আঘাতজনিত সমস্যা তীব্র হলে যতটা দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত। কারণ হাড় ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

বন্ধ করুন