বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Gobindobhog Rice with Jaggery Chutney: গোবিন্দভোগের ফ্যানভাতের সঙ্গে গুড়-তেঁতুলের চাটনি সাপ্টে খেলে এই উপকারগুলি পাবেন
ফ্যানভাতের সঙ্গে আলুসেদ্ধ, ডাল সেদ্ধ আর তেঁতুল গুড়ের চাটনি বহু বাঙালি বাড়িতেই লক্ষ্মীপুজোর দিন খাওয়ার রীতি রয়েছে।
ফ্যানভাতের সঙ্গে আলুসেদ্ধ, ডাল সেদ্ধ আর তেঁতুল গুড়ের চাটনি বহু বাঙালি বাড়িতেই লক্ষ্মীপুজোর দিন খাওয়ার রীতি রয়েছে।

Gobindobhog Rice with Jaggery Chutney: গোবিন্দভোগের ফ্যানভাতের সঙ্গে গুড়-তেঁতুলের চাটনি সাপ্টে খেলে এই উপকারগুলি পাবেন

  • বহু বাঙালি বনেদি বাড়িতেই লক্ষ্মীবার বৃহস্পতিবারে ফ্যানভাত, আলুসেদ্ধ আর গুড়-তেঁতুলের চাটনি খাওয়ার রীতি আছে। বিশেষ করে ঘটি বাড়িতে লক্ষ্মীপুজোতে এই মেনুর বহু প্রচলন দেখা যায়।বাঙালির জীবনে খাদ্য-বিলাসে এই বিশেষপদগুলি আলাদা মাত্রা যোগ করেছে যুগ যুগান্ত থেকে! আর রয়েছে তার বিভিন্ন গুণাগুণও।

হাল ফ্যাশনের কাঁচের প্লেটে নয়! পাতি স্টিলের থালা হবে, তাতে গরম গরম গোবিন্দভোগ চালের ফ্যানভাত তুলে দেওয়া হবে, সাদা ধোঁয়া ওঠা ভাতের উপরে পড়বে ঘি, কাঁচা লঙ্কা, নুন। পাশে সাজানো থাকবে গরম গরম আলুসেদ্ধ। আর পাত থেকে দূরে একটা ছোট বাটিতে থাকবে গুড়, তেঁতুল দিয়ে তৈচি চাটনি। বাঙালির জীবনে খাদ্য-বিলাসে এই বিশেষপদগুলি আলাদা মাত্রা যোগ করেছে যুগ যুগান্ত থেকে! আর রয়েছে তার বিভিন্ন গুণাগুণও। গোবিন্দভোগ চালের ফ্যানভাত রান্না সেভাবে রেসিপি দিয়ে বলা যায় না। তবে তার গুণাগুণ নিয়ে আলোচনা করা যায়। তার আগে দেখে নেওয়া যাক, বিশেষ গুড়-তেঁতুল চাটনি কীভাবে তৈরি করবেন। এতে কোন উপকার পাবেন তাও দেখে নিন।

গুড়-তেঁতুল চাটনি রেসিপি

বহু বাঙালি বনেদি বাড়িতেই লক্ষ্মীবার বৃহস্পতিবারে ফ্যানভাত, আলুসেদ্ধ আর গুড়-তেঁতুলের চাটনি খাওয়ার রীতি আছে। বিশেষ করে ঘটি বাড়িতে লক্ষ্মীপুজোতে এই মেনুর বহু প্রচলন দেখা যায়। এবার আসা যাক, সহজ এই চাটনির রেসিপিতে। গুড়ে জল ঢেলে তা গলিয়ে নিন। এরপর ঘরে রাখা তেঁতুল থেকে কাত বের করে নিন। গুড় যদি না গলতে চায়, তাহলে গরম জল দিতে পারেন। এসব হতে দিয়ে, সোজা বাগান থেকে লেবু পাতা ছিড়ে নিয়ে আসুন। কাগজি বা গন্ধ লেবুর পাতা হলে তো কথাই নেই! এরপর গলে যাওয়া গুড়ে তেঁতুলের কাত দিয়ে, কাঁচা লঙ্কা, কাঁচা সরষের তেল দেওয়ার পর, ওই লেবু পাতা হাতে কচলে নিয়ে তা চাটনিতে রেখে দিন! দিতে পারেন অল্প নুন। কীভাবে চাটনি শেষ হবে তা ধরতে পারবেন না! আরও পড়ুন-গরমে মাছ-মাংস মুখে রোচচে না রোজ? হালকা ডায়েটে এই শাক-সবজিগুলো যোগাবে পুষ্টি

গুড়-তেঁতুলের চাটনির উপকারিতা

-গুড় ওজন কমাতে সাহায্য করে।

-শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যায় গুড়ের উপকারিতা রয়েছে।

-ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে চিনির চেয়ে গুড় অনেক ভাল।

-এনার্জি যোগাতে গুড়ের উপকারিতা রয়েছে।

-লিভার ভাল রাখা, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করা, সর্দিকাশি দূর করতে , রোগ প্রতিরোধ ক্ষমা বাড়াতে গুড়ের জুড়ি মেলা ভার!

-ওজন কমাতে তেঁতুল কার্যকরী।

-ডায়াবেটিস আক্রান্তদের জন্য তেঁতুল কার্যকরী ফল দেয়।

-হজম করতে সাহায্য করে।

-হার্ট ভাল রাখতে ও অ্যালার্জি থেকে দূরে রাখে তেঁতুল।

ফ্যানভাত কেন খাবেন?

-যাঁদের ত্বক সংবেদনশীল, তাঁদের ক্ষেত্রে ফ্যানভাতের গুরুত্বই আলাদা। ত্বকের যত্নে ফ্যানভাত কার্যকরী ফল দেয়।

-সূর্যের ক্ষতিকারক প্রভাব থেকে রক্ষা করে ফ্যানভাত।

-বয়সের ছাপ পড়া থেকে দূরে রাখে ফ্যানভাত।

-ফ্যানভাত ত্বকে বাড়তি জৌলুস আনতে সাহায্য করে।

বন্ধ করুন