বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > সতেজ ও পরিষ্কার ত্বকের জন্য বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন পেঁপের ফেসিয়াল জেল!
এই জেল লাগানোর পর সাবান বা ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোবেন না।
এই জেল লাগানোর পর সাবান বা ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোবেন না।

সতেজ ও পরিষ্কার ত্বকের জন্য বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন পেঁপের ফেসিয়াল জেল!

  • দোকানে নামীদামী ব্র্যান্ডের পাপায়া জেল কিনতে পাওয়া যায়। কিন্তু একটু সময় বের করে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলতে পারেন পাপায়া জেল।

পেঁপে খাওয়া শরীরের পক্ষে যেমন ভালো, তেমনই ত্বকের জন্যও এই ফলটি উপকারী। অনেকে বিউটি পার্লারে গিয়ে পাপায়া ফেশিয়াল করিয়ে থাকেন। আবার পাপায়া ফেসপ্যাকও অনেকেই লাগিয়েছেন। তবে পেপের জেলও মুখে লাগানো যায়, তা কি জানা আছে?

দোকানে নামীদামী ব্র্যান্ডের পাপায়া ফেসিয়াল জেল কিনতে পাওয়া যায়। কিন্তু একটু সময় বের করে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলতে পারেন পাপায়া জেল। 

কীভাবে বানাবেন?

উপকরণ

  • ১ বাটি পেঁপে
  • ৩ ছোটো চামচ নারকেল তেল
  • ৩ ভিটামিন ই ক্যাপসুল
  • ১ ছোটো চামচ গ্লিসারিন

পদ্ধতি:

এর জন্য ভালো ভাবে পাকা পেঁপে দরকার। শক্ত বা অর্ধেক কাঁচা পেঁপে দিয়ে এই জেল বানাতে পারবেন না। এবার পেঁপের ছোটো ছোটো টুকরো করে একটি পেস্ট বানিয়ে নিন। এরপর এতে তিনটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল কেটে, তার তেল, তিন ছোটো চামচ নারকেল তেল মেশান। কোল্ড প্রেসড নারকেলের তেলও ব্যবহার করতে পারেন। এবার এতে এক ছোটো চামচ গ্লিসারিন দিয়ে ভালো ভাবে মেশান। গরমকালে ১৫ দিনের জন্য ফ্রিজে এটি রাখতে পারেন। আবার শীতকালে গৃহ তাপমাত্রায় রাখা যেতে পারে।

পাপায়া জেল ব্যবহারের টিপস:

  • রাত্রিবেলা এই জেল মুখে লাগালে অধিক উপকার পাবেন। দিনের বেলা এর বিশেষ সুফল পাওয়া যাবে না।
  • এই জেল মুখে লাগিয়ে ভালোভাবে মালিশ করুন।
  • পেপের জেল লাগানোর পর সাবান বা ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোবেন না। ম্যাসাজ করার পর পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন।

পেপের জেলের উপকারিতা:

  • এই জেল ত্বক হাইড্রেট রাখে এবং ডিপ ময়শ্চারাইজ করে। আপনার ত্বক শুষ্ক হলে এটি নিয়মিত ব্যবহার করে সুফল পেতে পারেন।
  • পেপেতে উপস্থিত অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান ত্বকে কোনও ধরণের সংক্রমণকে বাসা বাঁধতে দেয় না। আগে থেকেই কোনও স্কিন ইনফেকশান থাকলে এটি লাগিয়ে তা সারিয়ে তুলতে পারেন।
  • ত্বকের ট্যানিং দূর করার জন্যও পেঁপের জেল ব্যবহার করতে পারেন। উল্লেখ্য সূর্যের আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মি থেকে পেঁপে ত্বককে সুরক্ষিত রাখে।
  • পেঁপের মধ্যে অ্যান্টি এজিং উপকরণ বিদ্যমান। এর জেল মুখে লাগালে ত্বক উজ্জ্বল হয়। আবার ত্বকের যৌবন বজায় রাখতে উপযোগী কোলেজনকেও বুস্ট করে। এর ফলে ত্বক টানটান থাকে এবং বলিরেখা দেখা দেয় না।
  • ভিটামিন সি-র গুরুত্বপূর্ণ উৎস হওয়ায় পেঁপের জেল মুখে লাগালে ত্বকের দাগ-ছোপ দূর করা যায়।

উল্লেখ্য সংবেদনশীল ত্বক হলে এই জেল ব্যবহারের পূর্বে প্যাচ টেস্ট করে নিন বা প্রয়োজনে কোনও বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। অন্য দিকে শুষ্ক, তৈলাক্ত ও এই দুই ধরণেরই ত্বক যাঁদের রয়েছে তাঁরাও প্রথমে প্যাচ টেস্ট করে নিতে ভুলবেন না।

বন্ধ করুন