বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Man hits stranger with pet: কী ভয়ঙ্কর, রাস্তায় ঝামেলা হতেই সাপ দিয়ে অন্যজনকে পেটালেন ব্যক্তি! ভাইরাল ভিডিয়ো

Man hits stranger with pet: কী ভয়ঙ্কর, রাস্তায় ঝামেলা হতেই সাপ দিয়ে অন্যজনকে পেটালেন ব্যক্তি! ভাইরাল ভিডিয়ো

রাস্তায় হঠাৎ ঝামেলা! পোষ্যকে দিয়ে প্রতিপক্ষকে পেটালেন এই ব্যক্তি! (Twitter)

রাস্তায় ঝামেলা তো আকছার লেগেই থাকে। এর সঙ্গে ওর বনিবনা না হলেই নারদ নারদ বলে মুখ চলতে শুরু করে। পাবলিক প্লেসে মেয়েদের ঝামেলা হলে চুলোচুলি আর ছেলেদের ঝামেলা হলে হাতাহাতি, এই তো সাধারণ ব্যাপার।

রাস্তায় ঝামেলা তো আকছার লেগেই থাকে। এর সঙ্গে ওর বনিবনা না হলেই নারদ নারদ বলে মুখ চলতে শুরু করে। পাবলিক প্লেসে মেয়েদের ঝামেলা হলে চুলোচুলি আর ছেলেদের ঝামেলা হলে হাতাহাতি, এই তো সাধারণ ব্যাপার। ট্রেনে, বাসে, পথেঘাটের নিত্যযাত্রীরা প্রায়ই এই ঘটনা প্রত্যক্ষ করে থাকেন। কিন্তু কেউ কেউ যে এসব ব্যাপারে বেশ এগিয়ে রয়েছেন তারই প্রমাণ মিলল এবার। এমন সব উটকো ঝামেলায় হাতাহাতি করতে তাঁরা বেশ সিদ্ধহস্ত। শুধু তাই নয়, ঝামেলা করার জন্য ব্যবহৃত তাদের অস্ত্রশস্ত্রও বেশ আধুনিক। এবারে তেমন ঘটনাই সামনে এল। অস্ত্রশস্ত্র বলতে কিন্তু খুনখারাপি নয়, নেহাত নিরীহ জিনিসও অস্ত্র হয়ে উঠতে পারে, তেমনটাই প্রমাণ করে দিলেন আমেরিকার এক ব্যক্তি।

আরও পড়ুন: চাঁদের এত স্পষ্ট ছবি আগে কখনও দেখেনি গোটা পৃথিবী! সমাজ মাধ্যমে ভাইরাল পোস্ট

আরও পড়ুন: ত্বকের বলিরেখা থেকে কালো ছোপ, সব ভ্যানিশ হয় একটি বাদামের গুণে! নামটা জানেন কি

সম্প্রতি ৪৫ বছরের এক ব্যক্তির সঙ্গে রাস্তাতেই হাতাহাতি শুরু হয় অন্য এক পথচারীর। সেই হাতাহাতির ঘটনা অবশ্য বেশিক্ষণ চলেনি। কারণ তাঁর আগেই ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তি তাঁর মোক্ষম অস্ত্রটি বার করেন। তাঁর পোষ্যকে দিয়ে চাবুকের মতো মারতে থাকেন পথচারীটিকে। কী ভাবছেন? পোষ্যকে চাবুকের মতো কীভাবে ব্যবহার করা সম্ভব? পোষ্য যদি পাইথন সাপ হয়, তাহলে সম্ভব বৈকি। টরন্টো পুলিশের তরফে এই ঘটনার একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, ওই ৪৫ বছরের ব্যক্তিটি তাঁর পোষ্য পাইথন সাপ দিয়েই মারছিলেন পথচারীকে। তাঁকে থামতে বলা হলেও থামেননি তিনি। বরং যতক্ষণ না পুলিশের গাড়ি সেখানে পৌঁছায়, ততক্ষণ অনবরত চাবুকের মতো সাপকে কাজে লাগিয়েছেন। অবশেষে পুলিশ পৌঁছাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বন্দুকের ভয় দেখিয়ে তাকে নিরস্ত করা হয়।

এই ঘটনার একটি ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই সমাজ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। সেই ভিডিয়ো রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে নেটিজেনদের মধ্যে। ভিডিয়ো পোস্ট করার একদিনের মধ্যে ঝড়ের গতিতে শেয়ার হতে থাকে। মুহূর্তের মধ্যে সেটি ভাইরাল হয়ে যায় নেটদুনিয়ায়। নেটিজেনদের অনেকেই লোকটির এমন বুদ্ধি দেখে রীতিমতো হতভম্ব হয়ে গিয়েছেন। কমেন্টেও সে কথা জানান অনেকে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন