বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > NASA Has Hired Priest: ভিনগ্রহের ‘জাদু’ আসছে পৃথিবীতে? সাধারণ মানুষকে তৈরি রাখতে ধর্মযাজক নিয়োগ নাসা-র
‘কোয়ি মিল গ্যায়া’ ছবির দৃশ্য। (ছবি: ইনস্টাগ্রাম)

NASA Has Hired Priest: ভিনগ্রহের ‘জাদু’ আসছে পৃথিবীতে? সাধারণ মানুষকে তৈরি রাখতে ধর্মযাজক নিয়োগ নাসা-র

  • ভিনগ্রহের প্রাণীরা কি পৃথিবীতে আসতে চলেছে? তারা এসে পড়লে মানবজাতি কীভাবে তাদের সামলাবে? এসব নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে নাসা।

‘কোয়ি মিল গ্যায়া’ সিনেমার জাদুর মতো ভিনগ্রহের প্রাণীরা কি সত্যিই আছে? তাহলে কি এবার তারা পৃথিবীতে আসতে চলেছে? এই সব প্রশ্ন আবার খুব প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে। কারণ নাসা (NASA)-র একটি পদক্ষেপ। সম্প্রতি নাসার তরফে এক ধর্মযাজককে নিয়োগ করা হয়েছে? এর কারণ কী?

হালে অ্যান্ড্রু ড্যাভিসন বলে এক ধর্মযাজক বা প্রিস্টকে নিয়োগ করা হয়েছে নাসা-র তরফে। নাসা একটি আপাদমস্তক বিজ্ঞানচর্চাকারী প্রতিষ্ঠান। সেখানে হঠাৎ ধর্মযাজক নিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। আর তার সঙ্গেই কতগুলো তথ্য উঠে আসছে।

অ্যান্ড্রু ড্যাভিসন শুধুমাত্র একজন ধর্মযাজক নন, তিনি একই সঙ্গে একজন ধর্মচর্চা বিশারদও। এর বাইরেও বায়াকেমিস্ট্রির কয়েকটি শাখায় তিনি কাজও করেছেন। এমন একজনকে কেন নিয়োগ করল নাসা? সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, অ্যান্ড্রু ড্যাভিসনকে বলা হয়েছে, ভিনগ্রহের প্রাণীরা পৃথিবীতে এসে পৌঁছোলে, মানুষ তাদের কেমন ভাবে গ্রহণ করবে— তা নিয়ে জানতেই এই পদক্ষেপ। বিভিন্ন ধর্মে ভিনগ্রহের প্রাণীদের সম্পর্কে কী বলা হয়েছে, সেটাও জানতে চায় নাসা। অ্যান্ড্রু ড্যাভিসনের সঙ্গে পরবর্তী সময়ে আরও ২৪ জন ধর্মচর্চা বিশারদকেও নিয়োগ করতে চলেছে নাসা। তেমনই জানা গিয়েছে সংবাদমাধ্যম সূত্রে।

কিন্তু এই নিয়োগের কারণ কী? তাহলে কি সত্যিই পৃথিবীর বাইরেও প্রাণ আছে? এখনই সে সম্পর্কে চূড়ান্ত কোনও উত্তর দেওয়া হয়নি নাসা-র তরফে। তবে বহু মহলেই জল্পনা এমন নিয়োগের পিছনে নিশ্চয়ই কোনও কারণ আছে, নিশ্চয়ই ভিনগ্রহে প্রাণের অস্তিত্বের প্রমাণ নাসার হাতে এসেছে বলেই এমন উদ্যোগ। আগামী দিনে এ বিষয়টি কোন দিকে এগোয়, সে দিকেই তাকিয়ে আছে ওয়াকিবহাল মহল।

বন্ধ করুন