বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Pregnant Woman: জেলকর্মীর কফির নেশার কারণে মৃত্যু বন্দির গর্ভের শিশুর, ক্ষতিপূরণ ৩ কোটির বেশি
অন্তঃস্বত্ত্বা বন্দির সন্তানের মৃত্যুর কারণ জেলকর্মীদের কফির নেশা। (প্রতীকী ছবি)

Pregnant Woman: জেলকর্মীর কফির নেশার কারণে মৃত্যু বন্দির গর্ভের শিশুর, ক্ষতিপূরণ ৩ কোটির বেশি

  • Pregnant Woman: গর্ভবতী বন্দিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় তিনি কাতরাচ্ছিলেন। ওদিকে তখন জেলকর্মীরা কফিতে মজেছেন। তাতেই ঘটে গেল বিপদ।

আমেরিকার এক গর্ভবতী বন্দি দাবি করছেন তিনি তাঁর সন্তানকে হারিয়েছেন জেলারদের অবহেলার জন্য। যখন তিনি প্রসব যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন এবং তাঁকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তখন জেলাররা মাঝপথে গাড়ি থামিয়ে স্টারবাকসে কফি খেতে যান। এদিকে তিনি গাড়িতে যন্ত্রণায় ছটফট করছেন। এরপর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও তাঁর সন্তানকে আর বাঁচানো যায়নি।

২০১৬ সালে এই ঘটনাটি ঘটেছিল। সূত্রের খবর অনুযায়ী ৩৪ বছর বয়সী মহিলাকে সেই ক্ষতির জন্য ক্ষতিপূরণ হিসেবে ৩.৮ কোটি টাকা দেওয়া হবে।

ওই জেলবন্দিনীর নাম স্যান্দ্রা। তিনি যখন ৬ মাসের গর্ভবতী তখন তাঁর কারাদণ্ড হয় ৭o দিনের জন্য। এরই মাঝে তাঁর প্রসব যন্ত্রণা হয়। এনবিসির রিপোর্ট অনুযায়ী, জল ভাঙার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি বারবার জেলারদের ডাকতে থাকেন। কিন্তু তাঁরা আসতে আসতে দুই ঘণ্টা সময় লাগিয়ে দেন।

জেল কর্মীরা যে শুধুই দেরি করে এসেছিলেন সেটা নয়, তাঁরা অ্যাম্বুলেন্স ডাকার প্রয়োজনবোধও করেননি! এবং নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবর অনুযায়ী জেলকর্মীরা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান বটে কিন্তু এমারজেন্সি কেস হিসেবে নয়। এবং হাসপাতালে যাওয়ার মাঝে তাঁরা পথে কফি খাওয়ার জন্য একটি স্টারবাকস আউটলেটের সামনে দাঁড়ানও।

এরপর ২৮ বছর বয়সী স্যান্দ্রাকে যখন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তখন তাঁর সন্তান আর বেঁচে ছিল না। জেল কর্মীদের গাফিলতির জন্য তাঁকে আর বাঁচানো যায়নি। এই মর্মান্তিক ঘটনার পর তিনি জেল কর্মীদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ আনেন। ২০১৬ এর এই ঘটনাটিকে ২০২০ এর অক্টোবরে কোর্ট ডিসমিস করে দেয়। কিন্তু তারপরের বছরেই কেসটা নতুন করে ওপেন করা হয়। এবং অবশেষে স্যান্দ্রা তাঁর এই ক্ষতির জন্য ক্ষতিপূরণ পেতে চলেছেন ছয় বছর পর!

বন্ধ করুন