বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Gandharaj Rui: রুই মাছ দিয়ে ঝোল, ঝাল তো অনেক বানালেন, গন্ধরাজ রুই বানিয়েছেন কি?

Gandharaj Rui: রুই মাছ দিয়ে ঝোল, ঝাল তো অনেক বানালেন, গন্ধরাজ রুই বানিয়েছেন কি?

গন্ধরাজ রুই

Gandharaj Rui: এখন বাজারে গন্ধরাজ চলছে, সে ফুচকা হোক বা মোমো কিংবা রোল। সবেতেই গন্ধরাজের ছোঁয়া। দেখুন বাড়িতে কীভাবে বানাবেন গন্ধরাজ রুই।

আপামর বাঙালি এবং গন্ধরাজে মজেছে। তাই তো কখনও গন্ধরাজ ফুচকা, তো কখনও গন্ধরাজ মোমোর কথা সামনে আসে। বাদ যায় না গন্ধরাজ রোলের কথাও। সবেতেই যখন গন্ধরাজের ছোঁয়া তখন মাছই বা বাদ যাবে কেন? আপনারও যদি গন্ধরাজ ফ্লেভর ভালো লাগে বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন গন্ধরাজ রুই।

রুই একটি অত্যন্ত চেনা মাছ, হামেশাই বাড়িতে হয়ে থাকে। এবার নাহয় এটাকে একটু অন্যরকম ভাবে বানালেন। স্বাদ বদল হবে আবার নতুন রান্না শেখাও হবে। দেখুন কীভাবে বানাবেন গন্ধরাজ রুই।

গন্ধরাজ রুই বানানোর জন্য কী কী লাগবে দেখুন। পদ্ধতিও শিখুন।

উপকরণ: পাঁচ ছয় পিস রুই মাছ, আদা বাটা, হলুদ গুঁড়ো, স্বাদ মতো নুন, স্বাদ মতো চিনি, কাঁচা লঙ্কা বাটা, চার পাঁচটি চেরা কাঁচা লঙ্কা, গন্ধরাজ লেবুর রস, গন্ধরাজ লেবুর পাতা, সর্ষের তেল, জল ঝরানো টক দই, জিরে গুঁড়ো, সাদা সর্ষে এবং পোস্ত বাটা।

পদ্ধতি: সবার আগে মাছের পিসগুলো ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর তাতে দিন আদা বাটা, লঙ্কা বাটা, গন্ধরাজ লেবুর রস, আর সামান্য সর্ষের তেল। এবার এটাকে মাখিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন।

তারপর কড়াইতে তেল দিন। তেল গরম হলে তাতে একে একে মাছগুলো ছেড়ে দিন। ভাজা হলে তুলে নিন। এরপর একটা বাটি নিন। সেখানে দিন চার চামচ টক দই, আদা বাটা, কাঁচা লঙ্কা বাটা, নুন, জিরে গুঁড়ো এবং সামান্য জল। এবার ভালো করে মিশিয়ে একটা পেস্ট বানান।

এরপর আবার কড়াইতে তেল দিয়ে বসান গ্যাসে। তার মধ্যে দিয়ে দিন এই মিশ্রণটা। এবার কষাতে থাকুন ভালো করে। যখন দেখবেন মশলা থেক তেল ছাড়তে শুরু করেছে তখন তাতে দিয়ে দিন সর্ষে পোস্ত বাটা। এবার আবার কষান। এবার স্বাদ অনুযায়ী চিনি দিন। ভালো করে নাড়ুন এবার।

এবার জল দিয়ে দিন, সঙ্গে দিন চেরা কাঁচা লঙ্কাগুলো। ঝোল ফুটে উঠলে তাতে মাছগুলো দিয়ে দিন। সঙ্গে দিয়ে দিন মাছ ভাজার তেল। এবার কিছুক্ষণ ঝোলটাকে ফুটতে দিন। অন্তত মিনিট দশ ফোটান। নামানোর আগে কয়েকটা গন্ধরাজ লেবুর পাতা আর অল্প রস দিয়ে দিন। এবার চাপা দিয়ে রাখুন। মিনিট দশেক পর ঢাকা খুলে গরম গরম পরিবেশন করুন গন্ধরাজ রুই।

বন্ধ করুন