বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Weight Loss: ভাত না রুটি! ওজন কমাতে কোনটা খাবেন? জেনে নিন এখনই

আর মাসখানেকও বাকি নেই। ঢাকে কাঠি পড়ল বলে। করোনা আবহে গত বছরের পুজো কেটেছে অনাড়ম্বরে। তবে চলতি বছরে পুজো নিয়ে অনেক পরিকল্পনা করে ফেলেছেন সকলেই। শপিংও প্রায় শেষের পথে। এখন অনেকেই ভাবছেন, বাদবাকি সময়টায় ঝরিয়ে নেবেন অতিরিক্ত ওজন। যাতে পোশাকগুলো আর ভালো করে ফিট করে। ছবিগুলোও একদম পারফেক্ট আসে!

এসবের মাঝেই অনেকে ভাবেন কার্বোহাইড্রেটসের ইনটেক কমাবেন। তারপরেই মাথায় আসে বাদ দিতে হবে ভাত অথবা রুটি। কিন্তু ওজন কমাতে, কোনটা বাদ দেওয়া ঠিক সে নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভুগতে হয় সকলকেই। চলুন চট করে দেখে নেই এই দুই খাবারের খাদ্যগুণ। 

আমাদের দেশের বেশিরভাগ বাচ্চা ছোট থেকেই ভাত বা রুটি খেয়ে বড় হয়। রাতে ও দুপুরে ভাত বা রুটিই হয়ে থাকে সকল বাড়িতে। দুটি খাবারই অধিক কার্বোহাইড্রেটসম্পন্ন। ইচ্ছে থাকলে, ভাত অথবা রুটির মধ্যে যে কোনও একটি বেছে নিতেই পারেন। চলুন দেখে নেওয়া যাক--

রুটিতে বেশ ভালো মাত্রায় ফাইবার ও প্রোটিন রয়েছে। যা পেট ভরা রাখে অনেক্ষণ। এছাড়া রুটিতে সোডিয়াম রয়েছে, যা শরীরের জন্যও খুব উপকারি। 

অন্য দিকে, ভাতে ফাইবার থাকে রুটির থেকে কম। তাই সহজে এটি হজম করা সম্ভব। যারা বদহজমের সমস্যায় ভুগছেন, তাঁরা ভাত রাখুন অবশ্যই খাদ্য তালিকায়। 

তবে যারা ডায়েট পরিবর্তনের মাধ্যমে ওজন কমানোর কথা ভাবছেন, তাঁরা চাল ও ডাল একসঙ্গে দিয়ে খিচুড়ি বানিয়ে নিতে পারেন। এতে ডালের মাধ্যমে অধিক প্রোটিন আপনার শরীরে প্রবেশ করবে ও আপনি প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুণ পাবেন। 

আর যদি মনে করেন রুটি খাবেন তাহলে আটা বা ময়দার বদলে বাজরা, রাগির আটাও ব্যবহার করতে পারেন। এগুলোতে পুষ্টি বেশি। যদি গ্লুটেন ছাড়া আটা ব্যবহার করেন তবে ওজন কমবে বেশি তাড়াতাড়ি। 

তবে ভাত বা রুটি যাই খান না কেন, পরিমিত পরিমাণে খাবেন। বরং, সবজি খান বেশি। একবাটি ডাল খান। রোজ মাছ, মাংস ও ডিমের মতো প্রাণিজ প্রোটিন অবশ্যই খাবেন, যদি আপনি নিরামিশাষী না হন।

বন্ধ করুন