বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > সাবধান! মাত্রাতিরিক্ত পেঁপে খেলে দেখা দিতে পারে নানা সমস্যা, জেনে নিন
পেঁপেতে অধিক পরিমাণে ফাইবার থাকায় এটি কোষ্ঠকাঠিন্যের রোগীদের জন্য ভালো।
পেঁপেতে অধিক পরিমাণে ফাইবার থাকায় এটি কোষ্ঠকাঠিন্যের রোগীদের জন্য ভালো।

সাবধান! মাত্রাতিরিক্ত পেঁপে খেলে দেখা দিতে পারে নানা সমস্যা, জেনে নিন

  • অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ক্যারোটিনয়েডের মতো বিটা ক্যারোটিনের উল্লেখযোগ্য উৎস। এটি আমাদের দৃষ্টিশক্তির জন্য জরুরি।

পেঁপের নানা উপকারিতা সম্পর্কে আমরা সকলেই জানি। এটি একটি কম ক্যালরি যু্ক্ত ফল যা ব্যক্তির স্বাস্থ্য লাভে সাহায্য করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ক্যারোটিনয়েডের মতো বিটা ক্যারোটিনের উল্লেখযোগ্য উৎস। এটি আমাদের দৃষ্টিশক্তির জন্য জরুরি। এ ছাড়াও পেঁপের পাতা ডেঙ্গির জ্বর কম করতে সাহায্য করে থাকে। এই সমস্ত উপকারীতা সত্ত্বেও, প্রয়োজনাতিরিক্ত পেঁপে খেলে স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

নিউট্রিশানিস্ট ও ওয়েলনেস এক্সপার্ট বরুণ কাত্যালের মতে, পেঁপেতে অধিক পরিমাণে ফাইবার থাকায় এটি কোষ্ঠকাঠিন্যের রোগীদের জন্য ভালো। তবে এতে উপস্থিত ল্যাটেক্স পেট জ্বালা, ব্যথা ও সমস্যার পাশাপাশি পেট খারাপের জন্য দায়ী। পেঁপেতে উপস্থিত ফাইবারের কারণে ডাইরিয়া হতে পারে, যার ফলে শরীরের জল কমে যেতে পারে।

পেঁপে খেলে কোন কোন সমস্যা দেখা দিতে পারে—

গর্ভবতী মহিলাদের জন্য ক্ষতিকর

পেঁপেতে অধিক পরিমাণে ল্যাটেক্স থাকায় এটি গর্ভাশয় সঙ্কুচিত করার কারণ হতে পারে। পেঁপেতে উপস্থিত প্যাপেইন ভ্রুণের উন্নতির জন্য প্রয়োজনীয় পর্দার ক্ষতি করতে পারে।

হজম সংক্রান্ত সমস্যা

এতে উপস্থিত ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে স্বস্তি দেওয়ার পাশাপাশি পেট খারাপের কারণও হয়ে উঠতে পারে। পেঁপের খোসায় উপস্থিত ল্যাটেক্স পেটের গন্ডগোলের ঘটাতে পারে এবং ব্যথার কারণ হয়ে পড়ে।

অ্যালার্জির সমস্যা

এতে উপস্থিত প্যাপেইন অ্যালার্জির সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে। অধিক পেঁপে খেলে, ফোলাভাব, মাথা ঘোরা, মাথা ব্যথা, চুলকানির মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

জন্মগত দোষের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে

পেঁপের পাতায় উপস্থিত প্যাপেইন বাচ্চাদের জন্য স্লো পয়জনের কাজ করে। এর ফলে জন্মগত দোষও দেখা দিতে পারে। স্তনপানের সময় পেঁপে খাওয়া কতটা নিরাপদ, সে বিষয় এখনও অনেক কিছু জানার অবকাশ আছে। অতএব সন্তান জন্মের আগে ও পরে, স্তন্যপান করিয়ে থাকলে পেঁপে খাবেন না।

বাচ্চাদের জন্য ক্ষতিকর

শিশুরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে এক বছরের কম বয়সি বাচ্চাদের পেঁপে খাওয়ানো উচিত নয়। ছোট বাচ্চারা খুব কম জল পান করে। পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান ছাড়া উচ্চ পরিমাণে ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার-দাবার খাওয়া উচিত নয়।

বন্ধ করুন