বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Offbeat Darjeeling: দার্জিলিংয়ের এই জায়গা এখনও নির্জন, ঘুম ভাঙে নদীর কুল কুল আওয়াজে

Offbeat Darjeeling: দার্জিলিংয়ের এই জায়গা এখনও নির্জন, ঘুম ভাঙে নদীর কুল কুল আওয়াজে

ঘুরে আসুন তাবাকোশি থেকে। 

দার্জিলিং থেকে ৫০ কিমি দূরে ও মিরিক থেকে ৫ কিমি দূরে তাবাকোশি। রংভং নদীর ধার ঘেষে গড়ে উঠেছে বেশ কিছু হোম স্টে। গোপালধারা টি এস্টেটের ধার ঘেঁষে এই জায়গা অতীব মনোরম। 

পাহাড় ভালোবাসেন। কিন্তু দার্জিলিং, কালিম্পং বা কার্শিয়াংয়ের ওই ভিড়ভাট্টা ভালো লাগে না। অথবা পুজোতে দুটো দিন পাহাড়ের বুকে কাটাবেন ভাবছেন একদম নির্জনে। এরকম হতে চলুন যাই তাবাকোশি। দার্জিলিংয়ের বেশিরভাগ অফবিট জায়গাই এখন আর সেভাবে অফবিট নেই। ভিড়ভাট্টা লেগেই আছে। তবে তাবাকোশিতে ভিড় সেই তুলনায় অনেকটাই কম। আর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের তারিফ তো যতই করা হবে, কম পড়বে। 

দার্জিলিং থেকে ৫০ কিমি দূরে ও মিরিক থেকে ৫ কিমি দূরে তাবাকোশি। রংভং নদীর ধার ঘেষে গড়ে উঠেছে বেশ কিছু হোম স্টে। এই তাবাকোশির চারিদিকে রয়েছে চা বাগান। গোপালধারা চা বাগান লাগোয়া এই তাবাকোশি একবার গেলে আর ফিরতে মন চাইবে না।  নাম না জানা পাখিদের কিচিরমিচির আপনাকে এক অন্য জগতে নিয়ে যাবে, সঙ্গে যোগ্য সঙ্গত দেবে রংভঙের বয়ে চলার আওয়াজ। আরও পড়ুন: বর্ষায় ঘুরে আসুন ভারতের নায়াগ্রা থেকে, এই ঝরনার প্রেমে পড়তে আপনি বাধ্য

ভরা বর্ষায় এই জায়গার মাধুর্য যেন আরও বেড়ে যায়। বৃষ্টির জলে টইটম্বুর রংভং। আর অন্য দিকে, গাছের সবুজ আভা যেন আরও আরও বেড়ে গিয়েছে। প্রাতরাশ করে নদীর পাড়ে গিয়ে বসে থাকুন। হেঁটে দেখুন গ্রামের বাড়িগুলো। আলাপ জমান স্থানীয় মানুষদের সঙ্গে। নদীতে স্নানও করতে পারেন। রংভঙের ধারে একটা ছোট্ট কিন্তু বেশ সাজানো একটা পার্কও রয়েছে। পায়ে পায়ে সেখান থেকে ঘুরে আসতে পারেন। 

তাবাকোশিতে থেকে কিন্তু একটা বাড়ি ভাড়া করে আপনি খুব সহজে ঘুরে নিতে পারবেন জোড়পোখরি, লেপচাজগৎ, পশুপতির মার্কেট (ভারত-নেপাল সীমান্ত), গোপালধারা চা বাগান, মিরিক লেক, মিরিক মনেস্ট্রি। একটা গোটা দিন লেগে যাবে আপনার এই জায়গাগুলো দেখতে। আরও পড়ুন: রাজবাড়িতে থেকে রাজকীয় দুর্গাপুজোর সাক্ষী হতে চান? চলুন কলকাতা থেকে ২ ঘণ্টা দূর

কীভাবে যাবেন:

ট্রেনে করে পৌঁছে যান এনজেপি। আর ফ্লাইট নিলে বাগডোগরা। সেখান থেকে রিজার্ভ গাড়িতে মিরিখ হয়ে সোজা চলে আসুন তাবাকোশিতে। শেয়ার গাড়িতে মিরিখ চলে আসতে পারেন। হোম স্টে-কে বললে তাঁরা গাড়ি পাঠিয়ে দেবে আপনাকে মিরিখ থেকে পিক করে হোম স্টে-তে নিয়ে আসতে। এনজেপি থেকে তাবাকোশির দূরত্ব ৬০ কিমি। 

কোথায় থাকবেন:

টি ভিলেজ হোমস্টে, শুনাখারি হোমস্টে, খুশি ফার্ম হাউস, ইয়লমো হোমস্টে-সহ আরও অনেক রাত কাটানোর আছে এখানে। যা আপনি ইন্টারনেটে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। তবে থাকার জায়গা হাতে গোনা, তাই আগে থেকে বুক করে আসাই ভালো। 

 

টুকিটাকি খবর
বন্ধ করুন

Latest News

২২ বছর ধরে পালিয়ে বেড়ানো সিমি সদস্য পুলিশের জালে! রুদ্ধশ্বাস অভিযানে পাকড়াও আগামিকাল কেমন কাটবে মেষ থেকে মীনের? কারা লাকি? জানুন ২৬ ফেব্রুয়ারির রাশিফল জনগর্জনে থরহরিকম্প, অবশেষে স্বেচ্ছাবন্দি দশা থেকে বেরোলেন TMC নেতা,আটক করল পুলিশ একশো দিনের কাজের টাকা ছাড়ল রাজ্য সরকার, জিটিএ–সহ সব জেলা পাবে রাত পোহালেই কুলদীপের থেকে ওর ফাইফার চুরি করেছি- পাঁচ উইকেট শিকার করে অশ্বিনের স্বীকারোক্তি অসত্য বলছেন অভিষেক, শাহজাহানের গ্রেফতারিতে কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি হাইকোর্ট: বিকাশ ‘মিকার গান চালিয়ে বোকা বানাচ্ছেন!’ দাদাগিরিতে কেশবের গান শুনে কটাক্ষ, সত্য়িটা কী 'দাদা নিজের গান ভুলে গেছেন?' কুমার শানুকে শুধরে দিলেন শ্রেয়া, উর্মিলার সাধ পূরণ চোখের তলার কালো দাগ উধাও হবে ৭ দিনে! এই ঘরোয়া প্রতিকারের কেরামতি অঢেল ট্রেনে ছিলেন না চালক! ঘণ্টায় ১০০ কিমি গতিতে দৌড়ল মালগাড়ি

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.