বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > অনলাইনে সোনার গয়না কেনার ধারা বজায় থাকবে, বলছেন বিশেষজ্ঞ
অনুষ্ঠানে মিমি চক্রবর্তী

অনলাইনে সোনার গয়না কেনার ধারা বজায় থাকবে, বলছেন বিশেষজ্ঞ

  • অতিমারি বদলে দিয়েছে অনেক কিছু। বদলেছে গয়না কেনার পদ্ধতিও। এর ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনায় গয়নার ক্ষেত্রে দেশের নামজাদা ব্র্যান্ডের পূর্বাঞ্চলের প্রধান অমিত ধরপ। মুখোমুখি রণবীর ভট্টাচার্য

টাটাদের মালিকানাধীন ভারতের সবচেয়ে বড় খুচরো গয়নার ব্র্যান্ড তনিশক পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে সম্প্রতি ‘উত্তমা’ নামে এক এক্সক্লুসিভ সংগ্রহ লঞ্চ করল। বাঙালি অভিনেত্রী তথা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী কলকাতার এক অভিজাত হোটেলে সাংবাদিক বৈঠকে এই অনন্য সংগ্রহ প্রকাশ করেন। উপস্থিত ছিলেন টাইটান কোম্পানি লিমিটেডের রিজিওনাল বিজনেস হেড-ইস্ট অমিত ধরপ।

উত্তমা মানে সেরা, সেরার সেরা! নতুন এই নতুন কালেকশন অবশ্য সাধারণ মানুষের বেছে নেওয়া। প্রায় ৭০০০ মানুষ ভোট দিয়ে বেছে নিয়েছেন ৫০টি গয়নার ডিজাইন। সারা দেশে এরকম দ্বিতীয় কোনও উদাহরণ আছে কি না সন্দেহ!

নতুন কালেকশন, গয়নার ভবিষ্যৎ, নতুন ট্রেন্ড— এসব কিছু নিয়ে কথা বলেছেন অমিত ধরপ।

প্রশ্ন: কোভিড পরবর্তী পরিস্থিতিতে গয়নার ব্যবসা নিয়ে আপনার কী মতামত?

উত্তর: কোভিডের আগে ও কোভিডের পরে, আমরা যথেষ্ট ভালো জায়গায় রয়েছি। আমরা আমাদের স্টোরগুলিতে সব রকম সাবধানতা অবলম্বন করেছি— ডাবল মাস্ক পরা, দূরত্ব বজায় রাখা, নিয়মিত স্যানিটাইজ করা। কোভিড আমাদের সব রকম পরিস্থিতির জন্য তৈরি করে দিয়েছে। তিন দফার ঢেউ আমরা সামলে উঠেছি। আর সবচেয়ে বড় কথা, আমরা সাধারণ মানুষকে আমাদের সঙ্গে পেয়েছি। এটা সবচেয়ে বড় পাওনা। পশ্চিমবঙ্গের মানুষের কাছ থেকেও আমার খুব ভালো সাড়া পেয়েছি।

প্রশ্ন: গয়নার ক্রেতাদের দিক থেকে কোনও পরিবর্তন চোখে পড়েছে?

উত্তর: কোভিডের প্রভাব হিসাবে অবশ্যই কিছু পরিবর্তন চোখে পড়েছে আমাদের। যেহেতু লকডাউন চলাকালীন মানুষ দীর্ঘ দিন কেনাকাটা করতে পারেননি, বা পরবর্তীকালে বিয়ের ক্ষেত্রেও খরচের দিক সীমিত ছিল, অনেকেই বিয়েতে গয়নার কেনাকাটায় বেশি খরচ করেছেন— যা এমনি অবস্থার থেকে বেশি বলা যেতে পারে। সাধারণত আমরা দুই ধরনের ক্রেতা দেখে থাকি, একদল যাঁরা বছরে বিশেষ বিশেষ সময়ে কেনাকাটা করেন আর আর একদল, যাঁরা বছরে নিয়মিত গয়না কিনে থাকেন দৈনন্দিন পরার জন্য। পশ্চিমবঙ্গের মতো রাজ্য, যা শিক্ষা ও সংস্কৃতির জন্য অনেক রাজ্যের থেকে আলাদা, এখানে আমরা দেখেছি পয়লা বৈশাখ বা পুজোর সময় মানুষ বেশি করে কেনেন।

অমিত ধরপ
অমিত ধরপ

প্রশ্ন: সর্বভারতীয় স্তরে আপনারা ধনতেরাসকে খুব গুরুত্ব দেন। এবার বঙ্গে পয়লা বৈশাখের সময় নতুন কালেকশন, আপনারা কি স্ট্র্যাটেজি বদল করছেন?

উত্তর: ব্যাপারটি ঠিক সে রকম নয়! ২০১৯ সালে আমরা দেশের সবচেয়ে বিশ্বস্ত গয়নার ব্র্যান্ড হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছি। সাধারণ মানুষ আমাদের ভরসা করেন। আমরা এবার স্থানীয় স্তরে পৌঁছতে চাইছি, আরও বেশি মানুষের কাছে। পয়লা বৈশাখ বাঙালি জীবনে খুব গুরত্বপূর্ণ একটি দিন। তাই প্রথমবার বাংলায় পয়লা বৈশাখে নতুন কালেকশন আমরা তুলে ধরলাম। আশা করি সাধারণ মানুষ সাদরে গ্রহণ করবেন।

প্রশ্ন: অনলাইনে সোনার গয়না কেনা… এটা কি ভবিষ্যতের ট্রেন্ড হতে চলেছে?

উত্তর: বললে অবাক হবেন, আমরা সত্যি ভাবিনি, অনলাইনে সোনার গয়না কেনার ক্ষেত্রে এত সাড়া পাব। আমাদের টিমের এক্সপার্টরা ভিডিয়ো কলিংয়ের মাধ্যমে ক্রেতাদের কাছে সোনার গয়নার পসার নিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন। তাঁরা অনলাইনেও বেছে নিয়েছেন এবং অনলাইনের কিনেছেন। পুরো ব্যাপারটি অভিনব। যদি অতিমারির মধ্যে নতুন কিছু পাওয়ার কথা বলতে হয়, তাহলে এই বিষয়টি না বললেই নয়। এই ট্রেন্ড কিন্তু সামনের দিনেও থাকবে বলে আমার মনে হয়।

বন্ধ করুন