বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Dementia: ডিমেনশিয়া থেকে সাবধান! ঝুঁকি কমাতে বদলান এই অভ্যাসগুলো
ডিমেনশিয়া থেকে বাঁচাতে বদলান এই অভ্যাসগুলো

Dementia: ডিমেনশিয়া থেকে সাবধান! ঝুঁকি কমাতে বদলান এই অভ্যাসগুলো

  • বৃদ্ধ বয়সে যাতে ডিমেনশিয়ার কবলে না পড়তে হয় তার জন্য এখন থেকেই সাবধান হন। এই সাতটি অভ্যাস বদলান এবং ফল দেখুন নিজের চোখেই।

ডিমেনশিয়া হচ্ছে একটি জটিল নিউরো ডিজেনারেটিভ রোগ। এই রোগ হলে মানুষ ধীরে ধীরে তাঁর স্মৃতিশক্তি হারাতে থাকেন। ভুলতে থাকেন সব কিছুই। গত বছর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ডিমেনশিয়া নিয়ে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রতিক্রিয়ার উপর একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছিল যেখানে দেখা গিয়েছে বিশ্ব জুড়ে ৫৫ মিলিয়ন মানুষ এই রোগ নিয়ে বাঁচছেন এবং প্রতি তিন সেকেন্ডে একজন এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।

হু-এর মতে এই রোগই হচ্ছে সপ্তম বৃহৎ কারণ মৃত্যুর, এবং এটার জন্য বয়সকালে অন্যদের উপরে মানুষের নির্ভরতা বাড়তে থাকে। এখনও অনেকেই জানেন না যে এই রোগ কী করে প্রতিরোধ করা যায় বা এই রোগ হলে কী করা উচিত।

ডিমেনশিয়া থেকে নিজেকে বাঁচাতে কী করবেন?

এই রোগের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে গেলে নিয়মিত মানসিক এবং শারীরিক কসরত করুন। যতটা পারেন অ্যাক্টিভ থাকার চেষ্টা করুন। দেখে নিন রোজকার জীবনের কোন সাত অভ্যাস বদলালে কমতে পারে ডিমেনশিয়া হওয়ার সম্ভাবনা।

১. সঠিক ওজন বজায় রাখুন: অতিরিক্ত ওজন মানেই সেটা রক্তচাপ বাড়াবে এবং একই সঙ্গে বাড়বে টাইপ ২ ডায়াবিটিস হওয়ার সম্ভাবনা। এবং এই দুটো রোগই কিন্তু পরবর্তী সময়ে ডিমেনশিয়া রোগের কারণ হয়ে উঠতে পারে। তাই সতর্ক থাকুন, এবং নিজের ওজন কমানোর চেষ্টা করুন। রোজ সঠিক পরিমাণে ফল, সবজি, বাদাম, ইত্যাদি খান।

২. নিয়মিত শরীর চর্চা করুন: অলস হয়ে থাকলে হার্টের অসুখের সঙ্গে মেদ বাড়তে পারে। আর ওজন বাড়া মানেই উচ্চরক্তচাপ এবং টাইপ ২ ডায়াবিটিস হওয়ার সম্ভাবনা। তাই এগুলো দূরে রাখতে নিয়মিত শরীর চর্চা করুন। নিজেকে যত অ্যাক্টিভ রাখবেন তত নানান ধরনের রোগ দূরে থাকবে।

৩. মদ্যপান ত্যাগ করুন: অতিরিক্ত মদ খেলে তা স্ট্রোক, হার্টের অসুখ, ক্যান্সারের কারণ হতে পারে যা আপনার স্নায়ুতন্ত্রকে ক্ষতি করবে। এগুলোর কারণে পরবর্তী সময় ডিমেনশিয়া হতে পারে। তাই আগে থেকে সতর্ক হন এবং মদ্যপান ত্যাগ করুন।

৪. ধূমপান ছাড়ুন: ধূমপান করলে শিরা সরু হয়ে যেতে পারে, রক্তচাপ বাড়তে পারে যা আপনাকে ক্রমশ কার্ডিওভাসকুলার রোগের দিকে নিয়ে যাবে। এবং একই সঙ্গে এটার কারণে ডিমেনশিয়া হতে পারে।

৫. চাপমুক্ত থাকুন: অতিরিক্ত চাপ নিলে বা সারাক্ষণ চাপে থাকলে বাড়তে পারে ডিমেনশিয়ার সম্ভাবনা। তাই নিজেকে শান্ত রাখার চেষ্টা করুন।

৬. নিজের স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিন: যত বয়স বাড়ে আমাদের ততই রোগের সম্ভাবনা বাড়তে থাকে। তাই বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নিয়মিত চেক আপ করান, সঠিক জীবনযাপন করুন এবং একই সঙ্গে সঠিক পুষ্টিকর খাবার খান। মোদ্দা কথা হল একটা সুস্থ, ভালো রুটিন মেনে চলুন।

৭. স্বাস্থ্যকর খাবার খান: বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া উচিত তেলেভাজা, প্যাকেটজাত খাবারের বদলে। এমন খাবার খান যা আপনাকে পুষ্টি দেবে এবং একই সঙ্গে ডিমেনশিয়ার সম্ভাবনা কমাবে।

বন্ধ করুন