বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Health Benefits of Gulancha: ওমিক্রন থেকে বাঁচতে চান? গুলঞ্চে ভরসা রাখতে পারেন
গুলঞ্চের অনেক গুণ। (ফাইল ছবি)
গুলঞ্চের অনেক গুণ। (ফাইল ছবি)

Health Benefits of Gulancha: ওমিক্রন থেকে বাঁচতে চান? গুলঞ্চে ভরসা রাখতে পারেন

  • সংক্রমণ হয়তো আটকাবে না, কিন্তু রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়িয়ে সংক্রমণের ভয়াবহতা কমিয়ে দিতে পারে এই গাছের নানা অংশ।

ওমিক্রন থেকে ১০০ শতাংশ বাঁচাতে পারে, এমন কোনও ওষুধ এখনও আবিষ্কার হয়নি। কী করলে করোনার এই জীবাণুর হাত থেকে বাঁচা যাবে, সেটিও এখনও পরিষ্কার নয়। তবে একটি বিষয় পরিষ্কার। রোগ প্রতিরোধ শক্তি যদি চাঙ্গা থাকে, তাহলে ওমিক্রন শরীরে প্রভাব ফেলবে কম।

এখন শীতকাল। এমনিতেই নানা ধরনের জীবাণুর ক্ষমতা বাড়ে এই সময়ে। ফলে রোগ প্রতিরোধ শক্তি যত জোরদার রাখা যায়, ততই ভালো। আর এই কাজে সাহায্য করতে পারে গুলঞ্চ গাছের নানা অংশ। তেমনই বলছেন আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞ দীক্ষা ভাবসার। 

গত কয়েক দশকে পশ্চিমের দেশগুলিতে জনপ্রিয় হয়েছে এই গাছের ভেষজ গুণ। যদিও ভারতের আয়ুর্বেদ বহু বহু বছর আগে থেকেই এর গুণের কথা বলে আসছে। 

কীভাবে কাজে লাগে গুলঞ্চ (How Giloy improves immunity):

দীক্ষা ভাবসার বলছেন, এর নানা উপাদান রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। যেমন:

  • প্রদাহ কমানোর মতো উপাদান রয়েছে এতে
  • রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট
  • ব্যাকটিরিয়া এবং ভাইরাস জাতীয় সংক্রমণ রোধ করার উপাদান
  • ডায়াবিটিসের সমস্যা কমানোর মতো উপাদান
  • এমনকী ক্যানসারের আশঙ্কাও কমাতে পারে এর কয়েকটি উপাদান

 

কোন কোন সমস্যায় নিয়মিত খেতে পারেন গুলঞ্চ (Health benefits of Giloy):

  • জ্বর
  • চিকুনগুনিয়া
  • করোনা সংক্রমণ হলে
  • করোনা থেকে সেরে ওঠার সময়ে
  • ডায়াবিটিসে

 

কীভাবে খাবেন গুলঞ্চ (How you can add Giloy to your diet):

  • গুলঞ্চের পাতা বা ডাঁটা সারা রাত জলে ভিজিয়ে রেখে দিতে পারেন। সকালে খালি পেটে সেই জল খেয়ে নেবেন।
  • ১০ গ্রাম শুকনো গুলঞ্চ ৪০০ মিলিলিটার জলে সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে এটি ফুটিয়ে নিন। গরমে জলটি শুকিয়ে ১০০ মিলিলিটার মতো হয়ে গেলে সেটি ঠান্ডা করে খেয়ে নিন। ডায়াবিটিসের সমস্যা না থাকলে এতে আখের গুড় মিশিয়ে নিতে পারেন।
  • আগের মিশ্রণটির সঙ্গে তুলসী, হলুদ আর লবঙ্গ মিশিয়েও খেতে পারেন।
  • গুলঞ্চ গুঁড়ো কিনতে পাওয়া যায়। সকালে সেই গুঁড়োর এক চামচ এক গ্লাস জলে মিশিয়ে নিন। তাতে এক চামচ মধু মেশান। মিশ্রণটি খালি পেটে খেয়ে নিন।
  • দুপুরে আর রাতে খাবার খাওয়ার আগে এর ট্যাবলেটও খেতে পারেন। ওষুধের দোকান থেকে কিনে নিতে পারেন এটি।

বন্ধ করুন