বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Weight Loss Home Remedies: শুধু লেবুজল নয়, ওজন কমাতে খালি পেটে এই খাবারগুলিও রাখুন! তড়তড়িয়ে কমবে মেদ
কীভাবে ঝরানো যাবে মেদ। 
কীভাবে ঝরানো যাবে মেদ। 

Weight Loss Home Remedies: শুধু লেবুজল নয়, ওজন কমাতে খালি পেটে এই খাবারগুলিও রাখুন! তড়তড়িয়ে কমবে মেদ

  • যদি অ্যাসিডিটির সমস্যা না থাকে, বা জয়েন্টে ব্যথা থাকে তাহলে লেবুর জল খেতে পারেন সকালে খালি পেটে। আর তা নাহলে শুধু লেবুর রসও মেদ ঝরাতে খুবই কার্যকরী ফল দেয়। রয়েছে আরও অনেক রকমের পন্থা , যা ভুঁড়ির মেদ কমায়।

কোনও অনুষ্ঠান হোক বা উৎসব, 'লুকিং গুড' শোনার জন্য অনেকেরই মন ছটফট করে। তবে শুধু সাজ পোশাক নয়, চেহারার গড়নও যাতে সুন্দর হয় তার চেষ্টাও অনুষ্ঠান, উৎসবের কয়েকদিন আগে থেকে শুরু করেন অনেকে। তবে একমাসের ওটার্কআউট বা ডায়েটে সেভাবে লাভের লাভ হয়নি অনেকেরই! বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একমাস নয়, সারা বছর ধরে যদি এই ছোট টিপসগুলি মেনে নিজের অভ্যাসে কিছু খাওয়া দাওয়া রাখতে পারেন, তাহলে পেতে পারেন ভুঁড়ি ঝরে যাওয়ার মতো সুখ। ছিপছিপে পাতলা পেট চাইলে অবশ্যই ডায়েটে রাখুন এই খাবারগুলি।

সকালে উঠেই পান করতে হবে এটি-

সকালে উঠেই পান করে ফেলতে হবে গরম জল। গরম জল স্নেহজাতীয় পদার্থ গলিয়ে দিতে বাধ্য। এরফলে ফ্যাট অনেকটাই ঝরে যায়। এতে হজমও ভাল হয়।

দারচিনি কীভাবে খাবেন?

সুগার কমাতে দারচিনির জুড়ি মেলা ভার। সকালে উঠেই এক চামচ দারচিনি মধু দিয়ে সকালে উঠে খেলেই কমে যাবে মেদ। এটি ফ্যাট ঝরাতে , হদম করাতে ও কোলেস্টেরল কমাতে উপকারী। এমন সাপ-কেক কোন বন্ধুর জন্মদিনে উপহার দিতে চান আপনি? দেখে নিন তৈরির পদ্ধতি

গ্রিন টি

ফ্যাট ঝরাতে গ্রিন টি খুবই কার্যকরী ফল দেয়।

লেবু

যদি অ্যাসিডিটির সমস্যা না থাকে, বা জয়েন্টে ব্যথা থাকে তাহলে লেবুর জল খেতে পারেন সকালে খালি পেটে। আর তা নাহলে শুধু লেবুর রসও মেদ ঝরাতে খুবই কার্যকরী ফল দেয়।

গোল মরিচ কীভাবে খেতে হবে?

সকালে খালিপেটে গরমজলে লেবুর রস আর গোলমরিচ দিয়ে তা খেয়ে নিলে দারুন ফল পাবেন। গোলমরিচ ফ্যাট ঝরাতে খুবই সাহায্য করে।

আমলকি

কোষ্ঠকাঠিন্য হোক বা থাইরয়েড আমলকির গুরুত্ব অপরিসীম। তাড়াতাড়ি মেদ ঝরাতে চাইলে আমলকির রস সকালে খালি পেটে খেয়ে ফেলুন। 

ত্রিফলা

রাতে খাওয়া দাওয়ার পর এক গ্রাস ত্রিফলা ভেজানো জল খেয়ে নিন। এতেই কমবে বাড়তি মেদ।

মধু খাওয়ারও রয়েছে নিয়ম

শুধুমাত্র গরম জলে মধু ফেলে খেলেই হবে না! জল যেন ফুটন্ত না হয় বা ঈষদুষ্ণ হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ফলে এমন জলে মধু দিয়ে খেলে খুবই উপকার মিলতে পারে।

বন্ধ করুন