বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Weight Loss secret of Celebs: বলিউডের তামাম তারকাদের ওজন কমানোর সিক্রেট উপায়টি কী! জেনে নিন এই 'ট্রিক'
কীভাবে ওজন কমিয়েছেন এই সেলেবরা জানেন? 
কীভাবে ওজন কমিয়েছেন এই সেলেবরা জানেন? 

Weight Loss secret of Celebs: বলিউডের তামাম তারকাদের ওজন কমানোর সিক্রেট উপায়টি কী! জেনে নিন এই 'ট্রিক'

  • ভারতী সিং ৯১ কিলো থেকে হয়েছেন ৭৬ কিলো, অন্যদিকে লিজেল ডসুজা ২ বছরে ৪০ কিলো কমিয়েছেন মেদ। আর তাঁদের বক্তব্য, এই মেদ ঝরানোর আসল সিক্রেট হল ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং। কী এই বিশেষ প্রক্রিয়া দেখে নেওয়া যাক।

ওজন কমানোর জন্য অনেকেই নানান উপায় অবলম্বন করে থাকেন। এদিকে, বলিউড তারকাদের সুঠাম চেহারা কিম্বা লাস্যময়ী ফিগার ধরে রাখার সিক্রেট জানতে অনেকেই তৎপর হয়ে পড়েন। শুধু তাই নয়, বহু বলিউড সেলেবকে দেখা গিয়েছে তাঁরা নিমেষে ঝরিয়ে ফেলেছেন মেদ। ভারতী সিং থেকে শুরু করে লিজেল ডিসুজারা মেদ ঝরানোর অন্যতম উপায় হিসাবে 'ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং' এর প্রক্রিয়া অবলম্বন করেছেন। দেখে নেওয়া যাক, এই বিশেষ প্রক্রিয়ায় কীভাবে ঝরানো যায় মেদ।

ভারতী সিং ৯১ কিলো থেকে হয়েছেন ৭৬ কিলো, অন্যদিকে লিজেল ডসুজা ২ বছরে ৪০ কিলো কমিয়েছেন মেদ। আর তাঁদের বক্তব্য, এই মেদ ঝরানোর আসল সিক্রেট হল ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং। কী এই বিশেষ প্রক্রিয়া দেখে নেওয়া যাক।

ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং কী?

এই বিশেষ প্রক্রিয়ায় একটি নির্দিষ্ট সময়ে খাবার খেতে হয়। আর প্রতিদিন একটা নির্দিষ্ট সময় ধরে মনে করে রাখতে হয় উপবাস। এতে শরীরের ফ্যাট বার্ন হয়ে যায়। এছাড়াও এই প্রক্রিয়ার অনেক স্বাস্থ্যকর দিকও রয়েছে। দাবি করছে একাধিক রিপোর্ট। ভুঁড়ি ঝরিয়ে পাতলা সুন্দর পেট পেতে পনির উপকারি! কীভাবে খাবেন জেনে নিন

কীভাবে কাজ করে ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং?

এই প্রক্রিয়ায় নানা ধরনের উপায়ে খাবার কথা বলা হচ্ছে। তবে খাবার খাওয়ার মধ্যে সময়ের পারাক ও সময় মেনে চলাই আসল। যদি দিনে আপনি ৮ ঘণ্টার মধ্যেই সব খাহার খেতে চান, তাহলে বাকি ঘণ্টাগুলোতে কিছু খাওয়া যাবে না। বিষয়টি সবচেয়ে ভাল বলতে পারবেন নিউট্রিশিয়ানিস্ট ও ট্রেনাররা। তবে এতে কার শরীরে কী প্রভাব পড়তে পারে তা বিশেষজ্ঞে্র পরামর্শ ছাড়া প্রয়োগ করা উচিত নয়।

কারা করবেন না এই ধরনের উপবাস?

মূলত ডায়েটেশিয়ানরা উপবাসের উপ জোর দেওয়ার থেকে ব্যায়াম করে মেদ ঝরানোর পক্ষেই সওয়াল করেন। তবে যদি কেউ ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং করে মেদ ঝরাতে চান, তাহলে খেয়াল রাখতে হবে যে ১৮ বছরের কম বয়সীদের এটি প্রয়োগ কার উচিত নয়। এমনকি গর্ভবতী মহিলাদের এটি প্রয়োগ করা চলবে না। স্তনপান করাচ্ছেন এমন কেউ বা ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্য এটি খুবই খারাপ।

 

বন্ধ করুন