বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > ডিমের খোসার এত উপকারিতা আছে জানতেন? এবার থেকে ভুলেও ফেলবেন না ডাস্টবিনে
কী কী কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে ডিমের খোসা।
কী কী কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে ডিমের খোসা।

ডিমের খোসার এত উপকারিতা আছে জানতেন? এবার থেকে ভুলেও ফেলবেন না ডাস্টবিনে

  • এই ৫ কাজে ব্যবহার করতে পারেন ডিমের খোসা। 

বাড়িতে প্রায় রোজই রান্না হয় ডিম। কিন্তু রান্না করার পর ডিমের খোসা চলে যায় ডাস্টবিনে। তবে, এবার ডিমের খোসার উপকারিতা জানলে এই ভুল জীবনে করবেন না। এই খোসা ঘরের বিভিন্ন কাজ থেকে শুরু করে রূপচর্চায় ব্যবহার করা যায়। চলুন জেনে নেই ডিমের খোসার কিছু ব্যবহার--

১. রান্না করার সময় বেখেয়েলে অনেক সময় পুড়ে যায় কড়াই। সেটা আবার ঝকঝকে করে তুলতে ডিমের খোসা ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে ডিমের খালি খোসাগুলো গুঁড়া করে নিন। এবার ওই পোড়া পাত্রের মধ্যে খোসার গুঁড়ো, নুন এবং জল দিয়ে ফুটিয়ে নিন। জল ফুটে উঠলে সেটা ফেলে দিয়ে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন পোড়া দাগ সহজেই উঠে গেছে।

২. ডিমের অমলেট বা পোচ করার পর গোটা ডিমের খোসাটা রেখে দিন ঘরের এক কোনে। এতে টিকটিকির উপদ্রব কমবে সহজেই। 

৩. বাগানিদের জন্য ডিমের খোসা বেশ উপকারি একটা জিনিস। গাছের সার হিসেবে এটি ব্যবহার করতে পারেন চোখ বুজে। ডিমের খোসা গুঁড়ো করে তা গাছের মাটিতে ছড়িয়ে দিন। এটি গাছকে পোকামাকড়ের হাত থেকেও রক্ষা করে। 

৪. ডিমের খোসা দিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে তা রূপচর্চায় ব্যবহার করতে পারেন। ডিমের খোসা গুঁড়ো করে তাতে ডিমের সাদা অংশ মিশিয়ে নিন এবং মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে উষ্ণ জল দিয়ে হালকা হাতে ঘষে তুলে নিন। এতে ত্বক নরম থাকবে ও মুখের মরা চামড়া দূর হবে। 

৫. ব্লেন্ডারের ব্লেড কিছুদিন ব্যবহারের পরেই ভোঁতা হয়ে যায়। ধারাল করতে এবং ভিতরের জমে থাকা ময়লা সহজে দূর করতেও কাজে আসবে ডিমের খোসা। ডিমের খোসা ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে সামান্য জল দিয়ে ঠান্ডা ডিমের খোসা ব্লেন্ড করুন। দেখবেন ভিতরের ময়লা পরিষ্কার হয়ে গেছে।

বন্ধ করুন