বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > World Rose Day: এক কিশোরীর হার না-মানা লড়াইয়ের সাক্ষী এই দিন, জানুন এর ইতিহাস
মেলিন্ডা রোস নামক ১২ বছর বয়সী কিশোরীর স্মৃতির উদ্দেশ্যে প্রতি বছর ২২ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড রোস ডে পালিত হয়।
মেলিন্ডা রোস নামক ১২ বছর বয়সী কিশোরীর স্মৃতির উদ্দেশ্যে প্রতি বছর ২২ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড রোস ডে পালিত হয়।

World Rose Day: এক কিশোরীর হার না-মানা লড়াইয়ের সাক্ষী এই দিন, জানুন এর ইতিহাস

  • প্রতি বছর ২২ সেপ্টেম্বরও একটি গোলাপ দিবস পালিত হয়। তবে এই দিবস পালনের উদ্দেশ্য পৃথক।

ক্যান্সারের বলি এক কিশোরীর অদম্য লড়াইয়ের স্মৃতি বহন করে বিশ্ব গোলাপ দিবস। আজ, ২২ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড রোস ডে বা বিশ্ব গোলাপ দিবস।

ভ্যালেন্টাইন্স সপ্তাহে গোলাপ দিবস পালন করি সকলে। এদিন প্রিয় মানুষকে গোলাপ দিয়ে থাকি। কিন্তু প্রতি বছর ২২ সেপ্টেম্বরও একটি গোলাপ দিবস পালিত হয়। তবে এই দিবস পালনের উদ্দেশ্য পৃথক। এই দিনটি ক্যান্সার আক্রান্তদের উৎসর্গীকৃত। ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের মনোবল বৃদ্ধি ও কষ্ট ভাগ করে নেওয়ার জন্য এদিনে তাঁদের গোলাপ দেওয়া হয়। ক্যান্সার আক্রান্তদের জীবনে আনন্দের পরিবেশ গড়ে তোলাই বিশ্ব গোলাপ দিবসের উদ্দেশ্য। ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা প্রসারও এই দিনের অন্যতম লক্ষ্য। ক্যান্সারে ব্যক্তির শারীরিক কষ্ট তো হয়েই, পাশাপাশি মানসিক দিক দিয়েও তাঁরা বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে। এমন পরিস্থিতিতে তাঁদের মনোবল বৃদ্ধি অত্যন্ত জরুরি। 

ওয়ার্ল্ড রোস ডে বা বিশ্ব গোলাপ দিবসের ইতিহাস

মেলিন্ডা রোস নামক ১২ বছর বয়সী কিশোরীর স্মৃতির উদ্দেশ্যে প্রতি বছর ২২ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড রোস ডে পালিত হয়। কানাডার বাসিন্দা ১২ বছর বয়সী মেলিন্ডা রোস ১৯৯৪ সালে আস্কিনস টিউমার নামক বিরল ধরনের রক্তের ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। তাঁর ক্যান্সারের স্টেজ দেখে চিকিৎসকরা বলেছিলেন, তিনি এক সপ্তাহ বাঁচতে পারবেন, কিন্তু তাঁর মনোবল ও ইচ্ছাশক্তির জোরে ৬ মাস বেঁচে ছিলেন মেলিন্ডা রোস। এর পর নিজের জীবদ্দশায় তিনি ক্যান্সার আক্রান্তদের সঙ্গে দেখা করেন এবং তাঁদের সঙ্গে সময় কাটিয়ে সকলের জীবন আনন্দময় করে তোলার চেষ্টা করেন তিনি। ৬ মাস পর ২২ সেপ্টেম্বর ক্যান্সারের বিরুদ্ধে যুদ্ধে হেরে, শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মেলিন্ডা। তার স্মৃতিতে এই তারিখে প্রতি বছর ওয়ার্ল্ড রোস ডে পালিত হতে শুরু করে।

২০২১-এর থিম

চলতি বছরের বিশ্ব গোলাপ দিবসের থিম হল ‘আই অ্যাম, আই উইল’।

ক্যান্সার আক্রান্তদের দেওয়া হয় গোলাপ ফুল

ওয়ার্ল্ড রোস ডে-র দিনে ক্যান্সার আক্রান্ত ও তাঁদের যাঁরা দেখাশোনা করেন, সেই সমস্ত মানুষকে গোলাপ ফুল দেওয়া হয়। জীবন এখনও শেষ হয়নি— এমন বার্তা পৌঁছে দেওয়া হয় তাঁদের কাছে। গোলাপ ফুল দেওয়ার মাধ্যমে ক্যান্সার আক্রান্তদের আশ্বস্ত করা হয় যে, এই লড়াইয়ে তাঁরা একা নন, সকলে তাঁদের পাশে আছে। ক্যান্সারের এখনও কোনও সম্পূর্ণ চিকিৎসা খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাই এমন পরিস্থিতিতে এই রোগীদের পাশে দাঁড়ানো আরও জরুরি হয়ে পড়ে, যাতে তাঁদের মনোবল বৃদ্ধি পায় এবং কর্কট গ্রাস থেকে মুক্তি পেতে লড়াই চালাতে পারে।

ওয়ার্ল্ড রোস ডে উপলক্ষে কিছু উক্তি

১. ক্যান্সার তোমাক জীবন পাল্টে দিয়েছে, হয়তো ভালোর জন্য। কী জরুরি তা তুমি শিখেছ, কাকে প্রাথমিকতা দিতে হবে তা শিখেছ, এবং সময় নষ্ট না-করতেও শিখেছ। সকলকে বল তুমি তাঁদের ভালোবাসো।– জোয়েল সিয়েগেল

২. পরিবর্তনকে যুক্তিযুক্ত করে তোলার একমাত্র পথ হল, এতে ডুবে যাওয়া, এতে গা ভাসিয়ে দেওয়া…এবং নৃত্যের তালে পা মেলানো। - অ্যালেন ওয়াটস

৩. তুমি ক্যান্সার বলি হতে পার বা ক্যান্সার জয় করতে পার। এটি একটি মানসিকতা। - ডেভ পেলজের।

৪. একবার তুমি আশা-আকাঙ্খা বেছে নিলে, সমস্ত কিছু সম্ভব। - ক্রিস্টোফার রিভ

৫. মানুষের সঙ্গে যা কিছু হতে পারে, তার তুলনায় ব্যক্তির প্রাণশক্তির অনেক বেশি শক্তিশালী। - সি সি স্কট

বন্ধ করুন