বাংলা নিউজ > কথা ও কাহিনি > Copa America Final: বার্সেলোনা থেকে বাংলাদেশ, মেসির খেতাব জয়ের উৎসবে সামিল গোটা বিশ্ব
লিওনেল মেসির ক্ষেত্রে বরাবরই পরিবার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের সবচেয়ে সেরা মুহূর্তের পরই মারাকানার ঘাসে বসে ফোনেই পরিবারের সঙ্গে আনন্দ ভাগ করে নেন মেসি। তাঁদের বাবার জয়ের উচ্ছ্বসিত দেখায় তাঁর তিন পুত্রকেও। 1/9

Copa America Final: বার্সেলোনা থেকে বাংলাদেশ, মেসির খেতাব জয়ের উৎসবে সামিল গোটা বিশ্ব

  • অতীতে বারংবার কাছে এসেও খেতাব হাতছাড়া হয়েছে। তবে মতান্তরে বিশ্বের সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ফুটবলার লিওনেল মেসি অবশেষে মারাকানার মায়াবী রাতে আন্তর্জাতিক ট্রফি জয়ের খরা কাটিয়ে কোপা আমেরিকার খেতাব জিতে নিয়েছেন। প্রিয় ফুটবলারের সাফল্যের রাতে বার্সেলোনা থেকে বাংলাদেশ, সব যেন মিলেমিশে একাকার। 

লিওনেল মেসির ক্ষেত্রে বরাবরই পরিবার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের সবচেয়ে সেরা মুহূর্তের পরই মারাকানার ঘাসে বসে ফোনেই পরিবারের সঙ্গে আনন্দ ভাগ করে নেন মেসি। তাঁদের বাবার জয়ের উচ্ছ্বসিত দেখায় তাঁর তিন পুত্রকেও। 2/9
লিওনেল মেসির ক্ষেত্রে বরাবরই পরিবার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের সবচেয়ে সেরা মুহূর্তের পরই মারাকানার ঘাসে বসে ফোনেই পরিবারের সঙ্গে আনন্দ ভাগ করে নেন মেসি। তাঁদের বাবার জয়ের উচ্ছ্বসিত দেখায় তাঁর তিন পুত্রকেও।
প্রিয় ফুটবলারের প্রথম খেতাব জয়, আর তাঁর অনুরাগীরা উৎসবে সামিল হবে না, তা কী করে সম্ভব? বার্সেলোনা থেকে বাংলাদেশ, গোটা বিশ্বই তাঁর প্রিয় ফুটবলারের সাফল্যে মেতে উঠেছে।  4/9
প্রিয় ফুটবলারের প্রথম খেতাব জয়, আর তাঁর অনুরাগীরা উৎসবে সামিল হবে না, তা কী করে সম্ভব? বার্সেলোনা থেকে বাংলাদেশ, গোটা বিশ্বই তাঁর প্রিয় ফুটবলারের সাফল্যে মেতে উঠেছে। 
১৩ বছর আগে আর্জেন্তিনা জার্সি গায়ে নিজের কেরিয়ারের একমাত্র ট্রফিটি জিতেছিলেন মেসি। যদিও সেটি ছিল বেজিংয়ের অলিম্পিক্সে, যা আন্তর্জাতিক খেতাবের আওতায় আসেনা। মরাকানার মায়াবী রাতেও সেই জয়ী দলে ফের এক মেসির স্বপ্নের রাতে তাঁর সঙ্গী দুই বন্ধু সার্জিও আগুয়েরো এবং অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া।  7/9
১৩ বছর আগে আর্জেন্তিনা জার্সি গায়ে নিজের কেরিয়ারের একমাত্র ট্রফিটি জিতেছিলেন মেসি। যদিও সেটি ছিল বেজিংয়ের অলিম্পিক্সে, যা আন্তর্জাতিক খেতাবের আওতায় আসেনা। মরাকানার মায়াবী রাতেও সেই জয়ী দলে ফের এক মেসির স্বপ্নের রাতে তাঁর সঙ্গী দুই বন্ধু সার্জিও আগুয়েরো এবং অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। 
ম্যাচের ৯০ মিনিটের পর কান্নায় ভেঙে পড়া নেইমারকে সান্ত্বনা দিতে দেখা যায় মেসিকে। পরবর্তীকালে সাজঘরে প্রাক্তন বার্সেলোনা সতীর্থের সঙ্গে খোশমেজাজে আড্ডা দিতেও মশগুল হন লিও মেসি। এই ছবি আরও একবার দুই দলের দুই তারকার প্রগাঢ় বন্ধুত্বের পরিচয় বহন করে। 9/9
ম্যাচের ৯০ মিনিটের পর কান্নায় ভেঙে পড়া নেইমারকে সান্ত্বনা দিতে দেখা যায় মেসিকে। পরবর্তীকালে সাজঘরে প্রাক্তন বার্সেলোনা সতীর্থের সঙ্গে খোশমেজাজে আড্ডা দিতেও মশগুল হন লিও মেসি। এই ছবি আরও একবার দুই দলের দুই তারকার প্রগাঢ় বন্ধুত্বের পরিচয় বহন করে।