বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অসম NRC-র ফাইনাল লিস্ট থেকে বাদ যাচ্ছে ১০ হাজার নাম
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

অসম NRC-র ফাইনাল লিস্ট থেকে বাদ যাচ্ছে ১০ হাজার নাম

  • রাজ্য কোঅর্ডিনেটর হিতেশ দেব শর্মা এই নির্দেশ দিয়েছেন। 

অসম এনআরসির চূড়ান্ত তালিকায় যাদের নাম এসেছে, তাদের মধ্যে দশ হাজার নাম বাদ দেওয়া হবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্য কোঅর্ডিনেটর হিতেশ দেব শর্মা। গত বছর অগস্টে নাগরিকপঞ্জি বা ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেনস-এর আওতায় অসমে বৈধ নাগরিকদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। কিন্তু সেই তালিকা নিয়ে আপত্তি করে প্রায় সব দল। এবার সেখান থেকে বাদ পড়ছে দশ হাজার নাম। 

মঙ্গলবার এই সংক্রান্ত নির্দেশ দিয়ে আধিকারিকদের চিঠি লেখেন হিতেশ দেব শর্মা। তিনি জানিয়েছেন যে আধিকারিকরা যে কোনও সময় কোনও নাম যুক্ত বা বাদ দিতে পারেন যতক্ষণ এনআরসি তালিকা না প্রকাশ হয়। প্রসঙ্গত, গত বছর এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছিল অগস্ট মাসে। কিন্তু এই সংক্রান্ত কোনও বিজ্ঞপ্তি দেয়নি রেজিস্ট্রার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া, ফলে সেই তালিকার কোনও আইনি বৈধতা নেই। তাই প্রয়োজনে সেই তালিকায় এখনও বদল করা যায়। 

শর্মা বলেন যে একটি তালিকা তৈরি করতে হবে যাদের নাম এনআরসি তালিকায় থাকা উচিত নয়। প্রতিটি ক্ষেত্রে কারণ দর্শাতে হবে নাম বাদ দেওয়ার জন্য। এই সংক্রান্ত সফটওয়্যার অ্যাপ দ্রুত সবাই পেয়ে যাবেন বলে চিঠিতে লেখা আছে। ভেরিফিকেশন সঠিক ভাবে করার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে যাতে পরে কোনও ব্যক্তির পরিচয় নিয়ে প্রশ্ন না ওঠে। 

চিঠিতে কোনও নির্দিষ্ট সংখ্যার কথা না বললেও সূত্রের খবর প্রায় ১০ হাজার ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা হয়েছে যাদের নাম ভুল করে এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকায় এসে গিয়েছিল ও এবার সেগুলিকে সরানো হবে। তবে কোনও বিশেষ সম্প্রদায়ের নয়, সব সম্প্রদায়ের মানুষই এই তালিকায় আছেন। মূলত তিনটি শ্রেণিভুক্ত মানুষের ক্ষেত্রে তালিকা প্রস্তুতিতে কিছু ভুল পাওয়া গিয়েছে। 

গত বছর যে এনআরসি তৈরি করা হয়েছিল তাতে বাদ গিয়েছিলেন ১৯.০৬ লাখ মানুষ। এনআরসি তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছিলেন ৩.১১ কোটি মানুষ। তবে এই তালিকায় ভুল আছে বলে দাবি করেছিল প্রায় সব রাজনৈতিক দল। 

চলতি বছর অসম সরকার বিধানসভায় জানায় বাংলাদেশ সংলগ্ন জেলায় ২০ শতাংশ ও বাকি অঞ্চলে দশ শতাংশ নাম ফের চেক করে দেখা হবে। সেই সংক্রান্ত হলফনামা সুপ্রিম কোর্টে জমা করেছিল রাজ্য। তারপরেই এল দশ হাজার নাম বাদ যাওয়ার খবর। 

 

বন্ধ করুন